Home /News /life-style /

Hair Removal Scrub: বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন হেয়ার রিমুভাল স্ক্রাব, জেনে নিন উপায়!

Hair Removal Scrub: বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন হেয়ার রিমুভাল স্ক্রাব, জেনে নিন উপায়!

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি রয়েছে যা ব্যবহার করে লোম তুললে এই সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না।

  • Share this:

#কলকাতা: অনেকেরই শরীরে প্রচুর লোম থাকে যা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। শর্ট ড্রেস পরা থেকে স্লিভ লেস জামা, লোম থাকলে এসব পোশাকে দেখতেও তেমন ভালো লাগে না। তাই লোম শরীরে কমিয়ে ফেলার উপায় অনেকেই খোঁজেন। লোম কমিয়ে ফেলার দু'ধরনের উপায় রয়েছে। প্রথমটি মেডিক্যাল পদ্ধতির অবলম্বন আর দ্বিতীয় লোম তুলে ফেলা। এই লোম তুলে ফেলার জন্যই কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি রয়েছে (Hair Removal Body Scrub)।

অনেকেই লোম তুলে ফেলার জন্য রেজারের ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু এতে লোম ত্বকের উপর থেকে কেটে যায় বা ভেঙে যায়, ফলে ভিতরে থেকেই যায়। এতে লোম খুব তাড়াতাড়ি আবার বেড়ে যায় এবং মোটাও হয়ে যায়। তাই কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি রয়েছে যা ব্যবহার করে লোম তুললে এই সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না।

আরও পড়ুন: ওজন কমাতে চান? আমন্ড না আখরোট, কোনটার কার্যকারিতা বেশি জানেন!

ঘরোয়া পদ্ধতিতে একটি স্ক্রাব বানিয়ে নিতে হবে এর জন্য। স্ক্রাব বানাতে প্রথমেই দরকার চিনি। একটি পাত্রে নিতে হবে ৪ কিউব বা ৩ টেবিল চামচ চিনি। তাতে দিতে হবে ২ টেবিল চামচ লেবুর রস। এবার আলুর রস পাঁচ টেবিল চামচ নিতে হবে। নিতে হবে ৫ টেবিল চামচ মুসুর ডাল বা পিঙ্ক লেন্টিল পাউডার।

সমস্ত উপাদানগুলি একসঙ্গে মিশিয়ে একটি মিশ্রণ বানিয়ে নিতে হবে। এবার যেখান থেকে লোম তোলা দরকার সেখানে এই মিশ্রণটি লাগাতে হবে। ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখতে হবে এবং সম্পূর্ণ মিশ্রণটি ত্বকে শুকিয়ে যাওয়ার পর ভালো করে ধুয়ে ফেলতে হবে। এই মিশ্রণটি লোম তুলে ফেলতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি আলুর রস লোমের রঙ হালকা করতে সাহায্য হবে।

আরও পড়ুন: অনিদ্রায় ভুগছেন? রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে চুমুক দিন সুবাসিত চায়ের পেয়ালায়

এটি একদম প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বক থেকে লোম কমাতে সাহায্য করে। লোমের পরিমাণ কমাবে এবং রঙ হালকা করে দেবে। এছাড়াও লোম কমানোর আরেকটি উপায় আছে- মেডিক্যাল উপায়। এক্ষেত্রে কিছু ওষুধের সাহায্য়ে ভিতর থেকে লোম কমানোর চেষ্টা করা হয়। যারা খুব তাড়াতাড়ি ফল পেতে চায়, তাদের অনেকেই এই পদ্ধতি বেছে নেয়। কিন্তু যারা ওষুধ থেকে বা কেমিক্যাল থেকে দূরে থাকতে চায়, তারা প্রাকৃতিক উপায়ে এই কাজ করতে পারে।

উল্লেখ্য, এই মিশ্রণে যদি কোনও ধরনের সমস্যা হয়, তা হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে এবং কী থেকে সমস্যা হচ্ছে তা বুঝতে হবে!

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

পরবর্তী খবর