• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • সারা বছর সুস্থ থাকার একটাই পাসওয়ার্ড-- কালোজিরে

সারা বছর সুস্থ থাকার একটাই পাসওয়ার্ড-- কালোজিরে

file image

file image

  • Share this:

    #কলকাতা: কালোজিরে! বাঙালি হেঁশেলের ভীষণ পরিচিত এক সদস্য! তবে শুধু রান্নার উপকরণ হিসেবেই সে সীমাবদ্ধ নয়! রয়েছে আরও হাজারটা গুণ! কালোজিরের মধ্যে কী আছে আর কী নেই! নাইজেলোন, থাইমোকিনোন, লিনোলিক অ্যাসিড, ওলিক অ্যাসিড, ক্যালসিয়াম, আয়রন, জিংক, ম্যাগনেশিয়াম ,ফসফেট, সেলেনিয়াম, ভিটামিন-এ, ভিটামিন-বি, ভিটামিন-বি ২, নায়াসিন, ভিটামিন-সি, ফসফরাস, কার্বোহাইড্রেট ছাড়াও জীবাণু নাশক নানা গুরুত্বপূর্ণ উপাদানে ভরপুর!

    কাজেই সবসময় হাতের কাছে রাখুন কালোজিরে! কারণ--

    ১) স্মরণ শক্তি বৃদ্ধিতে কালোজিরের জুড়ি মেলা ভার! এক চা চামচ পুদিনাপাতার রস বা কমলার রস বা এক কাপ লাল চায়ের সঙ্গে এক চা চামচ কালোজিরের তেল মিশিয়ে দিনে তিনবার নিয়মিত খান! স্মরণ শক্তি বাড়বে, দুশ্চিন্তা দূর হয়!

    ২) কালোজিরে প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক, অ্যান্টিসেপটিক। নিয়মিত কালোজিরে খেলে মস্তিস্কের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। কালোজিরের তেল হার্টে রুগিদের জন্যও খুব উপকারি। এক কাপ দুধে এক চা চামচ কালোজিরের তেল এবং প্রতিদিন ২বার করে খেতে থাকলে হার্টের সমস্যা থেকে মুক্ত থাকা যাবে। সাথে কালোজিরার তেল দিয়ে বুকে নিয়মিত মালিশ করতে হবে।

    ৩) হঠাৎ মাথা ব্যথা শুরু হলে, মাথায় আধ চা চামচ কালোজিরের তেল ভালভাবে মালিশ করুন! ব্যথা নিমেষে গায়েব! এছাড়া, এক চা চামচ কালোজিরের তেলের সঙ্গে ১ চা চামচ মধু মিশিয়ে দিনে তিনবার করে খান! টানা ২-৩ সপ্তাহ খেলে মাইগ্রেনের সমস্যা অনেকটাই কমবে!

    ৪) সর্দি-কাশিতে আরাম পেতে, এক চা চামচ কালোজিরের তেলের সঙ্গে ১ চা চামচ মধু বা এক কাপ লাল চায়ের সঙ্গে আধ চা চামচ কালোজিরের তেল মিশিয়ে দিনে তিনবার খান! পাতলা পরিষ্কার কাপড়ে কালিজিরা বেঁধে শুকলে, শ্লেষ্মা তরল হয়! পাশাপাশি, এক চা-চামচ কালোজিরের সঙ্গে তিন চা-চামচ মধু ও দুই চা-চামচ তুলসি পাতার রস মিশিয়ে খেলে জ্বর, ব্যথা, সর্দি-কাশি কমে! বুকে কফ বসে গেলে কালিজিরে বেটে, মোটা করে প্রলেপ দিন। একই সাথে ।

    ৫) বাতের ব্যাথায় আরাম পেতে, ব্যথার জায়গা ভাল করে ধুয়ে পরিষ্কার করে কালোজিরের তেল মালিশ করুন। এক চা- চামচ কাঁচা হলুদের রসের সঙ্গে ১ চা চামচ কালোজিরের তেল ও ১ চা চামচ মধু মিশিয়ে দিনে তিনবার খান! ২-৩ সপ্তাহ টানা খেলে ফল মিলবে হাতেনাতে!

    ৬) ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রনে রাখতে প্রতিদিন সকালে দুকোয়া রসুন চিবিয়ে খেয়ে, সারা গায়ে কালোজিরের তেল মালিশ করে রোদে আধ ঘণ্টা বসে থাকুন। পাশাপাশি ১ চা চামচ কালোজিরের তেলে ১ চা চামচ মধু মিশিয়ে খেলেও ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে থাকে! কালোজিরে ডাবাবিটিস রোগিদের জন্যও খুব উপকারি!

    First published: