Home /News /life-style /
Nail Biting: টেনশন হলেই দাঁত দিয়ে নখ কাটেন? শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে নিজের কত ক্ষতি করছেন, জানুন

Nail Biting: টেনশন হলেই দাঁত দিয়ে নখ কাটেন? শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে নিজের কত ক্ষতি করছেন, জানুন

Nail Biting

Nail Biting

Nail Biting: এই কুঅভ্যাসের শিকড় লুকিয়ে থাকে শৈশবে৷ অনেকেরই বড় হয়ে এই অভ্যাস ছাড়তে সমস্যায় পড়তে হয়৷ সাধারণত এটা মানসিক সমস্যা৷ যখন স্ট্রেস সামলাতে না পেরে ক্রমাগত দাঁত দিয়ে নখ কাটতে থাকে একজন৷

  • Share this:

    ‘ওনিকোফেজিয়া’ বললে আমরা কিছুই বুঝব না৷ অথচ এই শক্ত নামের আড়ালেই আছে দাঁত দিয়ে নখ কাটার মতো বদঅভ্যাস৷ চিকিৎসা পরিষেবার ভাষায় একে বলা হয় ইমপালস কন্ট্রোল ডিসঅর্ডার৷ উদ্বেগ, উত্তেজনাকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে এই কুঅভ্যাসের শিকড় লুকিয়ে থাকে শৈশবে৷ অনেকেরই বড় হয়ে এই অভ্যাস ছাড়তে সমস্যায় পড়তে হয়৷ সাধারণত এটা মানসিক সমস্যা৷ যখন স্ট্রেস সামলাতে না পেরে ক্রমাগত দাঁত দিয়ে নখ কাটতে থাকে একজন৷ (Side effects of nail biting)

    আমেরিকান সাইকিয়াট্রিক অ্যাসোসিয়ে‘শন জানিয়েছে, নখ কাটা বা নখ খাওয়ার প্রবণতা পুনরাবৃত্তিপ্রবণ বা রেপেটিটিভ৷ যখন অবাঞ্ছিত চিন্তাভাবনা মনের মধ্যে ভিড় করে তখনই অবচেতনে নিজের অজান্তেই দাঁতে নখ কাটতে শুরু করে৷ মনে হয়, যেন এতে কিছুটা হলেও সুস্থিতি পাওয়া যায়৷ বা চিন্তার উপশম ঘটে৷ নার্ভাস লাগলে তো বটেই৷ একাকিত্বে ভুগলে বা খিদে পেলেও অনেকে নখ কাটতে শুরু করে দেন৷

    এই কুঅভ্যাসের বহু অপকারিতা আছে৷ প্রথমত, এই বদ অভ্যাস থেকে মানসিক সমস্যা দেখা দেয়৷ ক্রমশ বিষণ্ণতা গ্রাস করে৷ সামাজিক একাকিত্বও যেন চারপাশ থেকে এসে ঘিরে ধরে৷

    আরও পড়ুন : অন্তর্বাস, চিরুনি, ব্রাশের মতো এড়িয়ে চলুন অন্যের জুতো মোজাও

    তাছাড়া একাধিকভাবে সংক্রমণের ভয় তো থাকেই৷ দীর্ঘ দিন ধরে নখ খেলে এর ময়লা পেটের ভিতরে যেতে থাকে৷ ফলে পেটের সমস্যা অবধারিত৷ তাছাড়া এই অভ্যাস চোয়ালের ক্ষতি করে৷ আঘাত লাগবার ঝুঁকি থাকে দাঁতের মাড়িতেও৷ দাঁত ও মুখের অন্য অংশের ক্ষতি করে৷ জীবাণু ও ছত্রাকের আক্রমণের ফলে অন্যান্য অসুখের তীব্রতা বেড়ে যায়৷

    আরও পড়ুন : ‘খাদ্যহীন খাদ্য’ সাদা চিনি কিন্তু অনেক সময়েই খাঁটি নিরামিষ নয়!

    আরও পড়ুন : লাজুক বলে প্রেমে পড়বেন না! মুখচোরাদের ডেটিংয়ের আড় ভাঙানোর জন্য রইল সহজ উপায়

    এই অভ্যাস ছাড়ানোর একাধিক ঘরোয়া টোটকা আছে৷ অনেক সময়েই বাচ্চাদের মুখে গার্ড পরিয়ে রাখা হয়৷ নখে নিমপাতার রস লাগিয়ে রাখার টোটকা তো বহু পুরনো৷ দরকারে নখে লাগিয়ে রাখতে পারেন কোনও তীক্ষ্ণ, ধারাল জিনিসও৷ তবে সবথেকে সেরা উপায় হল প্রতি সপ্তাহে নেলকাটারের শরণাপন্ন হওয়া৷ তাহলে নখও থাকবে না, বদঅভ্যাসও বাসা তৈরি করতে পারবে না৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Nail Biting

    পরবর্তী খবর