• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Rani Mukerji Beauty Secrets: এই দুই জুসের জাদুতেই এখনও লাবণ্যময়ী তিনি, ত্বক সুন্দর রাখতে কী করেন রানি মুখোপাধ্যায়?

Rani Mukerji Beauty Secrets: এই দুই জুসের জাদুতেই এখনও লাবণ্যময়ী তিনি, ত্বক সুন্দর রাখতে কী করেন রানি মুখোপাধ্যায়?

Rani Mukerji Beauty Secrets: বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কী ভাবে সময়ের কাঁটা উল্টো দিকে ঘুরিয়ে দিয়েছেন তিনি?

Rani Mukerji Beauty Secrets: বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কী ভাবে সময়ের কাঁটা উল্টো দিকে ঘুরিয়ে দিয়েছেন তিনি?

Rani Mukerji Beauty Secrets: বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কী ভাবে সময়ের কাঁটা উল্টো দিকে ঘুরিয়ে দিয়েছেন তিনি?

  • Share this:

#কলকাতা: মর্দানি ২-এর (Mardaani 2) পর আবার বড় পর্দায় দেখা যাবে রানি মুখোপাধ্যায়কে (Rani Mukerji)। সংসার, সন্তান পালন এবং কেরিয়ার এই তিনের মধ্যে সফলভাবে সমন্বয় সাধন করেছেন তিনি। তার সঙ্গে এটা ভুলে গেলেও চলবে না যে প্রভাবশালী যশ রাজ ফিল্মসের (Yash Raj Films) সর্বময় কর্ত্রী তিনি। বিয়ে বা সন্তানের জন্মের পরে ব্রেক নিয়ে ফিরে আসাকে কেউ কামব্যাক বলে না। অন্তত রানির এই শব্দ ব্যবহারে ছিল ঘোর আপত্তি। মেয়ে আদিরার জন্মের পর মর্দানি হিসাবে ফিরে এসে তিনি প্রমাণ করে দিয়েছেন যে তাঁর অভিনয়ের ধার এতটুকু কমেনি।

সইফ আলি খানের (Saif Ali Khan) সঙ্গে জুটি বেঁধে তাঁকে আবার দেখা যাবে বান্টি অউর বাবলি ২-এ (Bunty Aur Babli 2)। বলিউডে এক যুগ কাটিয়েও রানির ত্বক এখনও মাখনের মতো পেলব ও মসৃণ (Rani Mukerji Beauty Secrets)। এর রহস্য কী? বছর ৪৩-এর রানিকে এখনও দিব্যি মধ্য তিরিশ বলে চালিয়ে দেওয়া যায়। বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে কী ভাবে সময়ের কাঁটা উল্টো দিকে ঘুরিয়ে দিয়েছেন তিনি? যদিও বলা হয় যে বাঙালি মেয়েরা এমনিতেই সহজাত সৌন্দর্যের অধিকারী, কিন্তু ত্বকের যত্ন নিতে রানি কোনও কসুর রাখেন না। এতদিনে বোঝা গেল যে কী ভাবে নিজের বয়স এক জায়গায় ধরে রেখেছেন নায়িকা। রানির উজ্জ্বল ও পেলব ত্বকের রহস্যের পিছনে (Rani Mukerji Beauty Secrets) রয়েছে মাত্র দু'টো পানীয়ের জাদু।

আরও পড়ুন - শীতে গলাব্যথা, গলার খুসখুসানি যেতেই চায় না? আরাম পান ঘরোয়া টোটকায়

রানির প্রিয় পানীয়

সকালে উঠেই এক গ্লাস অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারীর রস পান করেন তিনি (Rani Mukerji Beauty Secrets)। এই জুস পানের ফলে ত্বকে আর্দ্রতা বন্দী হয়ে যায় এবং ত্বক হয়ে ওঠে অনেক নরম। অ্যালোভেরা জুসের অপর একটি গুণ হল যে এই জুস ত্বকের মধ্যে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে ত্বক পরিষ্কার রাখে।

অ্যালোভেরা জুসের পরেই রানি পান করেন করলার জুস। এতে আছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট আর ভিটামিন সি। বলাই বাহুল্য যে এই দু'টো উপাদানই ত্বকের জন্য খুব ভালো।

আরও পড়ুন - কোভিড থেকে সেরে উঠেছেন? কত দিনের মধ্যে ফের শুরু করা যাবে শরীরচর্চা?

শোনা গিয়েছে যে এই দুই মর্নিং ড্রিঙ্ক ছাড়াও গোটা দিনে বেশিরভাগ সময়েই গ্রিন টিয়ে চুমুক দেন তিনি। ত্বকের যত্নে গ্রিন টিয়ের অবদান অনস্বীকার্য। এছাড়াও রানির অন্যতম প্রিয় পানীয় হল ডাবের জল। এর মধ্যে উপস্থিত ভিটামিন C কোলাজেন সিন্থেসিস করে ত্বক স্বাস্থ্যোজ্জ্বল, তরতাজা ও তারুণ্যে ভরপুর রাখে। চোখের জন্য রানি ব্যবহার করেন রোজ টোনার।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: