• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • YOUR VOTE WILL HELP FULFILL ASPIRATIONS OF ALL AND REALISE YOUR DREAMS GOVERNOR JAGDEEP DHANKHAR TWEET BEFORE WEST BENGAL ELECTION 2021 SB

Jagdeep Dhankhar: প্রথম দফা ভোটের আগেই আসরে ধনখড়, দিলেন 'জরুরি' বার্তা!

'কৌশলী' বার্তা ধনখড়ের

প্রথম দফা ভোটের আগে বাংলার ভোটারদের জন্য কৌশলী বার্তা দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Jagdeep Dhankhar)।

  • Share this:

    #কলকাতা: রাজ্যের রাজ্যপাল হয়ে আসা ইস্তক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সঙ্গে তাঁর সংঘাত সর্বজনবিদীত। সেই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনা থেকে যে সংঘাতের সূত্রপাত, তা প্রায় নিত্যদিনে পরিণত হয়েছিল দিন কয়েক আগেও। শুধু তাই নয়, কখনও সখনও তা লাগামছাড়া হয়ে গিয়েছে। এমনকী রাজ্যপালকে 'বিজেপির এজেন্ট' বলতেও পিছপা হননি তৃণমূল নেতারা। তবে, ভোট ঘোষণার পর স্বাভাবিক কারণেই পদমর্যাদার কারণে সেই সংঘাত আপাতত 'বন্ধ' রয়েছে। এবার প্রথম দফা ভোটের আগে বাংলার ভোটারদের জন্য কৌশলী বার্তা দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Jagdeep Dhankhar)।

    শুক্রবার এক ভিডিয়ো বার্তায় রাজ্যপাল বলেন, 'আপনার ভোট দেশ গঠনের জন্য আর আপনার ভোটই আপনার ভবিষ্যৎ গঠন করে দেবে। আমি পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত ভোটারদের অনুরোধ করছি, এগিয়ে যান আর আপনার গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করুন। আপনার ভোট আগামী পাঁচ বছরের জন্য আপনার এলাকার বিধায়ক বেছে দেবে। আর সেটাই বাংলার ভবিষ্যৎ নির্ধারন করে দেবে।'

    তার আগে একটি ট্যুইটে রাজ্যপাল লেখেন, 'আমি বিশেষত প্রথম বারের ভোটারদের উদ্দেশে বলতে চাই, গণতন্ত্রের এই উৎসবে যোগদান করুন। আপনার ভবিষ্যৎকে মজবুত করুন। অবশ্যই নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করুন।' রাজ্যপালের সংযোজন, 'আপনার ভোট দিলে গণতান্ত্রিক কাঠামো তৈরি করতে তা কাজে লাগবে, আর তা আপনাকে গর্বিত করবে। আপনার স্বপ্ন তা পূরণ করবে। এটা শুধু আপনার অধিকার নয়, আপনার কর্তব্যও বটে।' প্রসঙ্গত, ভোটের আগেআগেই পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের প্রত্যাহার দাবি করে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যপালকে অপসারণের দাবি জানিয়েছে রাজ্যের শাসকদল। তার আগে অবশ্য সংঘাত চরমে উঠেছিল। তা নিয়ে পালটা গর্জে উঠেছিলেন ধনখড়ও। কিন্তু রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে ভোটের সময় কোনও বিতর্কে না গিয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগের উপরই জোর দিয়েছেন তিনি।
    Published by:Suman Biswas
    First published: