Home /News /kolkata /
রাজ্যে প্রথম মেট্রো কোচ তৈরির কারখানা, কোচ যাবে পুণে ও বেঙ্গালুরুর জন্য

রাজ্যে প্রথম মেট্রো কোচ তৈরির কারখানা, কোচ যাবে পুণে ও বেঙ্গালুরুর জন্য

প্রায় ২৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ এই কারখানা থেকে। 

  • Share this:

আবীর ঘোষাল, কলকাতা: রাজ্যে প্রথম মেট্রো কোচ তৈরির কারখানা। আর যে কারখানাকে ঘিরে রাজ্যের শিল্প বান্ধব পরিবেশ সম্পর্কে মানুষের কাছে বার্তা যাবে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। টিটাগড় ওয়াগন তাদের হিন্দমোটর শেডে তৈরি করবে মেট্রো কোচ ৷ সংস্থার এমডি উমেশ চৌধুরী জানিয়েছেন, এর ফলে প্রায় ২৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে। আমরা ধাপে ধাপে আমাদের কর্মীদের ইতালিতে নিয়ে গিয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়াব।

স্টেইনলেস স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের কোচ আগে কখনও বানানো হয়নি ভারতে। ইতালিয়ান প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই কোচ প্রস্তুত করা হবে হিন্দমোটরের টিটাগড় ওয়াগন ফ্যাক্টরিতে। এর মধ্যে পুণে মেট্রোকে সরবরাহ করা হবে অ্যালুমিনিয়াম কোচ। আর স্টেইনলেস স্টিলের কোচ সরবরাহ করা হবে বেঙ্গালুরু মেট্রোকে। এই দুই স্থানেই দেশের সবচেয়ে আধুনিক মেট্রো পরিষেবা চালু হচ্ছে। আর তার সঙ্গে জুড়ে যাচ্ছে বাংলার নাম।

আরও পড়ুন- কালো কাচ ঢাকা গাড়িতে আসতেন অর্পিতা, রাত বাড়লেই বেরোতেন ভ্রমণে

দেশে এর আগে এমন কোচ বানানো হয়নি। প্রতিটি কোচ হতে চলেছে অ্যালুমিনিয়ামের। যা সাধারণ মেট্রো কোচের চেয়ে প্রায় ৫ টন হালকা হতে চলেছে। এই কোচ হবে পরিবেশ বান্ধব। লো কার্বন ফুট প্রিন্ট। সংস্থা সূত্রে দাবি, এই কোচ চালু হলে বিদ্যুৎ খরচ অনেক কম হবে। গোটাটাই ইতালিয়ান প্রযুক্তি ব্যবহার করে বানানো হচ্ছে। কোচগুলির ভেতরে জায়গা অনেকটাই বেশি। থাকছে বেশ বড় জানলা। হ্যান্ডেল রয়েছে সুবিধাজনক উচ্চতায়। যাত্রী সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে একাধিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে এই প্রথম থাকছে অ্যান্টি ড্র‍্যাগ সিস্টেম। যার ফলে যদি কোনওভাবে দরজায় কিছু আটকে যায়, অত্যন্ত সূক্ষ্ম কিছু আটকে গেলেও ট্রেন চালু হবে না।

আরও পড়ুন-  দেবীর কৃপায় কেউ অভুক্ত থাকে না! সংসারে সমৃদ্ধি আনতে মা অন্নপূর্ণার ছবি কোথায় রাখবেন জেনে নিন এখনই

কামরার ভেতরে থাকছে ইনফ্রারেড ফায়ার ডিটেকশন ইউনিট। যাত্রীদের বসার আসন হবে বেশি আরামদায়ক। থাকছে হুইল চেয়ার রাখার ব্যবস্থা। গোটা কামরায় থাকছে একাধিক সিসি ক্যামেরা। যা থেকে ফিড পাবেন মোটরম্যান। ফলে কামরার প্রতিটি কোণায় কী হচ্ছে তা নজরে থাকবে মোটরম্যানের। এ ছাড়া থাকছে টকব্যাক সিস্টেম। ফলে যাত্রীরা কথা বলতে পারবেন মোটরম্যানের সঙ্গে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Kolkata metro

পরবর্তী খবর