Home /News /kolkata /
Suvendu Adhikari: প্রথমবার রাজ্যের সরকারি অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েও গেলেন না বিরোধী দলনেতা

Suvendu Adhikari: প্রথমবার রাজ্যের সরকারি অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েও গেলেন না বিরোধী দলনেতা

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

Suvendu Adhikari: কেন গেলেন না শুভেন্দু, কারণ কী বললেন, দেখে নিন।

  • Share this:

#কলকাতা:  রাজ্যের তরফে প্রথমবার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে কোনও সরকারি অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হলেও সেই অনুষ্ঠানে গরহাজির থাকলেন শুভেন্দু। কেন তিনি গরহাজির থাকলেন? প্রশ্নের উত্তরে শুভেন্দু অধিকারী বললেন, 'বিশেষ কাজ থাকায় যায়নি। তবে ভালই করেছি যাইনি। কারণ গেলেই তো নানান অযৌক্তিক কথা শুনতে হত। একজন মুখ্যমন্ত্রীর মুখে এই ধরনের ভাষা শোভা পায় না। মুখ্যমন্ত্রীর মুখে এই ধরনের কথা শুনেই বোঝা যাচ্ছে তিনি আতঙ্কিত'।

 আরও পড়ুন: 'এত টাকা উঠল, জানলে আগেই অ্যাকশন নিতাম', বিরোধীদের আক্রমণের জবাব মমতার

সোমবার নজরুল মঞ্চে রাজ্য সরকারের পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকেই বাংলা নিয়ে কেন্দ্রকে জোরালো গলায় সতর্ক করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট বার্তা দিয়ে বলেন, 'বাংলার মানুষের অসম্মান কোনও ভাবেই বরদাস্ত নয়'। কেন্দ্রকে চরম হুঁশিয়ারি দেন মমতা। বলেন, 'তোমরা কী মনে কর কেন্দ্র সাধু আর রাজ্যগুলো চোর? রাজ্যগুলো আছে বলেই বেঁচে আছো'। এ দিন এসএসসি দুর্নীতিতে শিল্পমন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারি নিয়ে প্রথমবার মুখ খোলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। একই সঙ্গে এই ইস্যুতে বাংলাকে কালিমালিপ্ত করা যাবে না বলেও কেন্দ্রকে তোপ দাগেন মমতা। এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "মহারাষ্ট্রে লড়াই করতে পারেনি৷ ভাবছে এর পর ঝাড়খণ্ড, ছত্তিসগঢ় তারপর বাংলা৷ আয় না একবার বাংলা৷ বাংলায় আসতে গেলে বঙ্গোপসাগর পেরতে হবে৷ দিঘা পেরতে গেলে কুমির কামড়াবে, সুন্দরবন পেরতে গেলে রয়্যাল বেঙ্গল কামড়াবে৷ আর নর্থ বেঙ্গল পেরোতে গেলে হাতি শুঁড়ে পেঁচিয়ে ছুড়ে ফেলবে'।

আরও পড়ুন: '৩৫ বছর গান গাইছি, দিদিই প্রথম সম্মান দিলেন', বঙ্গবিভূষণ পেয়ে আবেগাপ্লুত কুমার শানু

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বার বার বলেন, তিনি নিজে অন্যায় করেন না৷ কেউ অন্যায় করলে সমর্থন করেন না৷ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাম না করে মমতা বলেন, "কেউ চোর, ডাকাত হলে তৃণমূল তার পাশে থাকে না। এমএলএ, এমপি, মিনিস্টার কাউকে রেয়াত করি না৷ কিন্তু অযথা আমার গায়ে কালি ছিটোলে আলকাতরা আমার হাতেও আছে৷ ওয়াশিং মেশিনে জামাকাপড় পরিষ্কার হতে পারে, আলকাতরা হয় না'৷ আর বিধানসভা চত্বরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতেই নিজের পুরনো দলের নেত্রীর বিরুদ্ধে চড়া সুর শোনা গেল শুভেন্দু অধিকারীর বক্তব্যে। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ঝেড়ে ফেলার চেষ্টা করছেন তৃণমূল নেত্রী, এ দিন যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী বক্তব্য রেখেছেন তাতে সরকারি অনুষ্ঠানের গরিমা নষ্ট হয়েছে বলেও দাবি শুভেন্দু অধিকারীর।

VENKATESWAR  LAHIRI 

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Suvendu Adhikari

পরবর্তী খবর