• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Sukanta Majumdar: কলকাতায় বহিরাগত? বিস্ফোরক অভিযোগ সুকান্ত মজুমদারের! পাল্টা ফিরহাদ

Sukanta Majumdar: কলকাতায় বহিরাগত? বিস্ফোরক অভিযোগ সুকান্ত মজুমদারের! পাল্টা ফিরহাদ

যুযুধান

যুযুধান

Sukanta Majumdar: এবার কলকাতায় সরাসরি বহিরাগত ঢোকানো হচ্ছে বলে অভিযোগ তুললেন বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

  • Share this:

    #কলকাতা: আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা। তারপর কলকাতা পুরসভার নির্বাচন (KMC Elections 2021)। বিগত বিধানসভা ভোটে বিজেপি-র ভরাডুবি হয়েছে। তারপরও যে কটি উপনির্বাচন হয়েছে, তাতেও দাঁত ফোঁটাতে পারেনি গেরুয়া শিবির। এই পরিস্থিতিতে কলকাতা পুরভোটেও বিরাট কিছু সাফল্য তাঁরা পাবে না বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। যদিও বিজেপি নেতৃত্ব অবশ্য তা মানতে নারাজ। তাঁরা যেমন নিজেদের সাফল্য নিয়ে আশাবাদী, একইভাবে তৃণমূলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগেও মুখর। আর এবার কলকাতায় সরাসরি বহিরাগত ঢোকানো হচ্ছে বলে অভিযোগ তুললেন বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)।

    কলকাতা পুরভোটের শেষদিনের প্রচারে বেরিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি অভিযোগ করেন, পুরসভা নির্বাচনের জন্য বহিরাগত লোকদের কলকাতায় আনছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাঁর কথায়, ''কলকাতা পুরসভা নির্বাচনের জন্য বহিরাগতদের নিয়ে আসা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার রাত থেকে কলকাতায় বাইরের লোক ঢোকানো হয়েছে। ডানকুনি থেকে প্রচুর লোক এখানে আনা হয়েছে।'' যদিও বিজেপি রাজ্য সভাপতিকে পাল্টা জবাব দিয়েছেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতার প্রাক্তন মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

    আরও পড়ুন: পঞ্চায়েতের স্মৃতি উসকে পুরভোটেও বাহিনী চায় BJP, সিদ্ধান্ত বদলাবে ডিভিশন বেঞ্চে?

    ফিরহাদ পাল্টা বলেন, ''এখানে আমাদের বহিরাগতদের আনার কোনও প্রয়োজনই পড়ে না। আমার সঙ্গে যাঁরা রয়েছেন তারাও প্রত্যেকে চেতলার মানুষ। গোটা বাংলাটাই তো আমাদের, আমাদের কেন বহিরাগত আনার প্রয়োজন পড়বে? সুকান্তবাবুরা অনেক কিছুই বলবেন। কারণ ওদের কোনও জনভিত্তি নেই। তাই এইসব অভিযোগ করছেন। এর কোনও প্রভাব পড়বে না। গোটা বাংলার মানুষ তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গেই রয়েছে।''

    আরও পড়ুন: প্রাথমিক শিক্ষায় শীর্ষস্থানে, দেশের মধ্যে ফের মুখ উজ্জ্বল বাংলার!

    বস্তুত কলকাতা পুরভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী চেয়ে হাই কোর্টে গিয়েছিল বিজেপি। কিন্তু সিঙ্গল বেঞ্চে তাঁদের আবেদন খারিজ হয়ে যায়। রাজ্য তথা কলকাতা পুলিশের উপরই ভরসা করে কোর্ট। কিন্তু সেই রায়ের বিরুদ্ধে হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চেও গিয়েছে গেরুয়া শিবির। সেই আর্জির শুনানি এখনও শেষ হয়নি।

    Published by:Suman Biswas
    First published: