Home /News /kolkata /
Fraud Case: বন্ধুত্ব পাতাতে গিয়ে খোয়া গেল মোটা টাকা! জালিয়াতদের খপ্পরে কলকাতার যুবক

Fraud Case: বন্ধুত্ব পাতাতে গিয়ে খোয়া গেল মোটা টাকা! জালিয়াতদের খপ্পরে কলকাতার যুবক

Fraud Case: বন্ধুত্ব থেকে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। ফাঁদে পা দিতেই মোটা টাকা খোয়াল যুবক।

  • Share this:

#কলকাতা: কথায় আছে লোভে পাপ, পাপে মৃত্যু! এই কথা আবারও প্রমাণ হল চিৎপুর থানার অন্তর্গত এলাকার একটি প্রতারণার ঘটনায়। একটি ঘটনা ফের প্রমাণ করে দিল, লোভের জন্য খোয়াতে হয় লক্ষ লক্ষ টাকা।

বি টি রোডের বাসিন্দা ২৬ বছরের এক যুবক চিৎপুর থানায় সম্প্রতি অভিযোগ দায়ের করেন। এই বছরের জুন মাসে ইনস্টাগ্রামে তাঁর সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতান 'dizzy_simmi_07' নামের প্রোফাইলের মালিক এক তরুণী।

বিভিন্ন সময় বন্ধুত্ব পাতানোর সুযোগ খুঁজতেন বলে সূত্রের খবর। আর সেই থেকেই ফাঁদে পা। বন্ধুত্বের সম্পর্কের থেকে কিছুদিন পর কথাবার্তা এগোয় হোয়াটসঅ্যাপ পর্যন্ত। একটি ফোন  নম্বর থেকে তাঁর সঙ্গে কথা বলতে থাকেন ওই মহিলা।

আরও পড়ুন- সিজিও-তে আনার পথে গাড়িতে ধাক্কা! চোট পেলেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়

বেশ কিছু ব্যাক্তিগত কথা বলার পরেই আসে ভিডিও কল। প্রথমে ভিডিও কলে আপত্তিকর কোনও কথা না হলেও পরে তা শুরু হয়। একদিন ভিডিও কলেই তাঁকে যৌন প্রস্তাব দেন তরুণী।

দীর্ঘদিন এভাবে মধুর সম্পর্কের পর সামনে আসে আসল প্রতারণার পরিকল্পনা। যে সমস্ত কথা ফোনের মাধ্যমে হত, তার স্ক্রিনশট ছড়িয়ে দেওয়া শুরু হয়। শুধু তাই নয়,  ভিডিও কলের চালান করা হয় যুবকের ইনস্টাগ্রাম বন্ধু তালিকার কিছু সদস্যের কাছে।

একটি অন্য হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর থেকে তাঁকেও সেই ছবি ও ভিডিও পাঠিয়ে কার্যত হুমকি দেওয়া হয়। বলা হয়, টাকা না দিলে সেগুলি আরও অনেকের কাছে ছড়িয়ে পড়বে কয়েক মুহূর্তের মধ্যে।

ভয় পেয়ে ৪৯,৭০০ টাকা জালিয়াতদের হাতে তুলে দেন ওই প্রতারিত যুবক। তার পর আবার তৃতীয় হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর ব্যবহার করে তাঁর কাছে আরও টাকা চেয়ে হুমকি দেওয়া শুরু হয় বলে অভিযোগ।

এই সমস্ত বিষয় জানানো হয় থানায়। তদন্তকারী অফিসার তথ্য হাতে পেয়েই শুরু করে কাজ। সূত্রের খবর পেয়ে একটি জায়গায় হানা দেয় তদন্তকারী অফিসার। ১৯ জুলাই গ্রেফতার হয় হাওড়ার লিলুয়া এলাকার দুই বাসিন্দা বিজয় কুমার শর্মা এবং রোহিত রজককে।

আরও পড়ুন- পরপর দুদিন ২ হাজারের নীচে সংক্রমণ, রাজ্যে ফিরছে স্বস্তির ছবি

তাদের কাছ থেকে  বাজেয়াপ্ত হয় ব্যাঙ্কের পাসবই ও একটি এটিএম কার্ড।পুলিশ সূত্রের খবর,  এই ধরনের জালিয়াতির শিকার হয়েছেন অনেকেই বলে অনুমান তদন্তকারী অফিসারের।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Fraud Case

পরবর্তী খবর