‘‘ওই স্কুলে আর কোনওদিনও মেয়েকে পাঠাব না...’’ : নির্যাতিত শিশুর বাবা

‘‘ওই স্কুলে আর কোনওদিনও মেয়েকে পাঠাব না...’’ : নির্যাতিত শিশুর বাবা
Guardian Agitation at GD Birla School, Ranikuthi

স্কুলে চার বছরের শিশুর উপর যৌন নিগ্রহের অভিযোগ।

  • Share this:

#কলকাতা: স্কুলে চার বছরের শিশুর উপর যৌন নিগ্রহের অভিযোগ। স্কুল থেকে বাড়িতে আসার পরও ক্রমাগত গোপনাঙ্গ থেকে রক্তক্ষরণ। যাদবপুর থানায় স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে পরিবার। SSKM-এ আপাতত চিকিৎসাধীন নির্যাতিত শিশু।

হাসপাতালের কাজে অবশ্য সন্তুষ্ট নন ছাত্রীর বাবা ৷ সকাল ৯টায় শিশুর মেডিক্যাল পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও সেটা হয়নি বলে অভিযোগ ৷ পরীক্ষা হতে দেরি হলে তার প্রভাব রিপোর্টেও পড়তে পারে বলে মনে করছে শিশুর পরিবার ৷  এসএসকেএম থেকে মেয়েকে অন্য হাসপাতালে সরানোর চিন্তাভাবনা করছেন ছাত্রীর বাবা ৷

এসএসকেএমে আজ সকালে মেডিক্যাল পরীক্ষাও হয়েছে শিশুর ৷ শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের দল রয়েছে হাসপাতালে ৷ রানিকুঠির ওই স্কুলে তিন বছর আগেও এমন ঘটনা ঘটেছিল বলে অভিযোগ ৷ নার্সারির শিশুর সঙ্গে এমন ঘটনায় এখন স্বভাবতই আতঙ্কে রয়েছেন অভিভাবকরা ৷

নির্যাতিত শিশুর বাবা জানান,

এত টাকা দিয়েছি, ডোনেশনও দিয়েছিলাম ৷ তবুও ছাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন ! আমার মেয়ে যে বেঁচে ফিরেছে, এটাই ভাগ্য ৷ দ্বিতীয়বার ওই স্কুলে মেয়েকে পাঠাব না

ঘটনায় উত্তেজনা বেড়েছে স্কুল চত্ত্বরেও ৷ এক অভিভাবক জানান, ‘‘ এত বড় ঘটনা ঘটে যাওয়ার পরও প্রিন্সিপাল বলছেন তিনি কিছুই জানেন না ৷  মেয়েদের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা আতঙ্কে আছি ৷ এই স্কুলে দ্বিতীয়বার একই ঘটনা ঘটেছে ৷ ’’

গতকাল, বৃহস্পতিবার স্কুল থেকে মেয়েকে নিতে যান মা। তখনই দেখেন, মেয়ের জামা রক্তে ভেজা। বাড়িতে আসার পরও শিশুর গোপনাঙ্গ থেকে রক্তক্ষরণ হতে থাকে। মেয়েকে নিয়ে বেলেঘাটার একটি নার্সিংহোমে যায় পরিবার। চিকিৎসক যৌন নিগ্রহের কথা জানান। এরপরই যাদবপুর থানায় স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ দায়ের করে পরিবার।

শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের দল রয়েছে এসএসকেএম-এ ৷ মূত্র ত্যাগের সময় এখনও কষ্ট হচ্ছে চার বছরের ওই ছাত্রীর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা ৷

vlcsnap-2017-12-01-09h36m25s131

First published: 11:17:12 AM Dec 01, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर