Home /News /kolkata /

Bengal Bjp: 'সর্ষের মধ্যেই ভূত', BJP নেতৃত্বের কাছে হারের 'গুরুতর' কারণ জানিয়ে গেলেন প্রার্থীরা! 

Bengal Bjp: 'সর্ষের মধ্যেই ভূত', BJP নেতৃত্বের কাছে হারের 'গুরুতর' কারণ জানিয়ে গেলেন প্রার্থীরা! 

কলকাতায় হারের কারণ কী?

কলকাতায় হারের কারণ কী?

Bengal Bjp: প্রসঙ্গ কলকাতা পুরভোট। 'সর্ষের মধ্যেই ভূত'! নেতৃত্বের কাছে নালিশ পরাজিত বিজেপি প্রার্থীদের। সরব শাসকের সন্ত্রাস নিয়েও।

  • Share this:

#কলকাতা:  বিজেপি-র (Bengal Bjp) বৈঠকেই বেসুরো প্রার্থীরা। সর্ষের মধ্যেই লুকিয়ে ভূত। নেতৃত্বের কাছে অভিযোগ কলকাতা পুরভোটের পরাজিত প্রার্থীদের একাংশের।  ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের।

কলকাতা পুর নির্বাচনে  ভরাডুবির পর রবিবার হেস্টিংস অফিসে পর্যালোচনা বৈঠকে একদিকে যেমন শাসকদলের সন্ত্রাস নিয়ে বিজেপি নেতৃত্বের কাছে ভুরিভুরি অভিযোগ তুলে ধরেন পরাজিত প্রার্থীরা। পাশাপাশি দুর্বল সংগঠন এমনকী দলে থেকেও দলের বিরোধিতা করেছেন অনেকেই। এমন নালিশও জানান পরাজিত প্রার্থীদের অনেকেই।

যেমন অনুশ্রী চট্টোপাধ্যায়। ৮৭ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি প্রার্থী। সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানান, ''নেতৃত্বকে বলেছি যে, সংগঠনটা আরও মজবুত করতে হবে। তবে দেখতে হবে যেন সরষের মধ্যে ভূত না থাকে।'' অনেকেই প্রার্থীপদ না পেয়ে নির্বাচনে  দলের সঙ্গে অন্তর্ঘাত করেছে সংবাদমাধ্যমের সামনে সেই বিষয়টিও আড়াল করেননি গেরুয়া শিবিরের অনেক পরাজিত প্রার্থীই।

পুরভোটে খারাপ ফল কেন? ‘সর্ষের মধ্যেই ভূত’ নালিশ পরাজিত BJP প্রার্থীদের কেউ কেউ প্রকাশ্যে নিজেদের ক্ষোভের কথা এদিন উগরে দেন অমিত মালব্য, অগ্নিমিত্রা পল সহ অন্যান্য নেতৃত্বের কাছে। কলকাতা পুরযুদ্ধে বিপর্যস্ত বিজেপি। হাতে মাত্র তিনটি ওয়ার্ড। কার্যত ধরাশায়ী বিজেপি। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি যা ভোট পেয়েছিল এবার তার থেকেও খারাপ অবস্থা দলের। হারের কারণ বিশ্লেষণে রবিবার হেস্টিংসে বিজেপির বৈঠক। নেতৃত্বের তরফে ত্রুটি-বিচ্যুতির মেরামতের আশ্বাস দেওয়াা হয় বলে সূত্রের খবর। আগামী দিনে পরাজিত প্রার্থীদেরই যে  মুখ হিসেবে সামনে রেখে নিজের নিজের ওয়ার্ডে সংগঠন বিস্তার করা হবে তাও এদিনের বৈঠক থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় পরাজিত প্রার্থীদের।

আরও পড়ুন: 'ভুল চিন্তাভাবনা এসেছিল', সুকান্ত মজুমদারের কাছে 'ভুল' স্বীকার বিধায়কের! কিন্তু কেন?

পুরভোটে হারের কারণ পর্যালোচনা হিসেবে যে বৈঠকে এদিন অনুষ্ঠিত হয় সেখানে অনুপস্থিত ছিলেন কলকাতা পুরভোটের অন্যতম দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, বৈঠকে প্রত্যেক পরাজিত প্রার্থীই সাংগঠনিক দুর্বলতার কথা তুলে ধরেন। সেই সঙ্গে দলের একাংশের বিরুদ্ধে দলবিরোধী কাজের অভিযোগও জানান তাঁরা।

আরও পড়ুন: 'আরও পাঁচটি গেল মনে হচ্ছে', BJP-কে বিঁধে বিস্ফোরক বাবুল সুপ্রিয়! গেরুয়া শিবিরে ঝড়

বিজেপির রাজ্য সভাপতি  সুকান্ত মজুমদার অবশ্য বলেন, সাংগঠনিক দুর্বলতা যে ছিল তা অস্বীকার করার জায়গা নেই। তবে তিনি এও স্পষ্ট করে দেন যে, 'দল বিরোধী কাজ বরদাস্ত করা হবে না। আমরা সব বিষয়টাই নজরে রাখছি'। এদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের অন্যতম মুখপাত্র কুণাল ঘোষের কটাক্ষ, একুশে বঙ্গজয়ের স্বপ্ন দেখেছিল পদ্ম শিবির। বিধানসভা ভোটে জোর ধাক্কা। তারপর কলকাতার পুরভোটে। এবার বাকি অন্যান্য পুরভোট'। কলকাতা পুরভোট থেকে শিক্ষা নিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে আগামী দিনে দোষ-ত্রুটি সংশোধন করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে চলার বার্তাই দিয়েছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। কতটা কাজে আসে সেই বার্তা তার উত্তর দেবে সময়ই ।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Bengal BJP, KMC Elections 2021

পরবর্তী খবর