• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সপ্তাহের শুরুতে কলকাতায় দূষণ মাত্রাছাড়া, মনোক্সাইডের পরিমাণও বাড়ছে দিনদিন

সপ্তাহের শুরুতে কলকাতায় দূষণ মাত্রাছাড়া, মনোক্সাইডের পরিমাণও বাড়ছে দিনদিন

ছট পুজোর পরও কমল না দূষণ

ছট পুজোর পরও কমল না দূষণ

এবার কিন্তু কালীপুজোর আগে থেকেই, কলকাতার দূষণ মাত্রাছাড়া। বাতাসে কার্বন মনোক্সাইডের পরিমাণও দিনদিন বাড়ছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: কালীপুজো মানেই শব্দবাজি-আতসবাজির দাপট। যার জেরে দূষণ। এবার কিন্তু কালীপুজোর আগে থেকেই, কলকাতার দূষণ মাত্রাছাড়া। বাতাসে কার্বন মনোক্সাইডের পরিমাণও দিনদিন বাড়ছে। আজ বৃষ্টি হলেও কমল না দূষণের মাত্রা। কলকাতায় সর্বনিম্ন দূষণের মাত্রা প্রতি ঘনমিটারে ১৭৫ মাইক্রোগ্রাম।

    রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ কলকাতার বিভিন্ন এলাকায় সকাল থেকে রাত পর্যন্ত দূষণ মাপে। দূষণ মাপার যন্ত্র রয়েছে ভিক্টোরিয়া, ফোর্ট উইলিয়াম, যাদবপুর, রবীন্দ্র সরোবর, বালিগঞ্জ, বিধাননগরে। এর মধ্যে বিধাননগর ছাড়া বাকি সব জায়গাতেই দূষণ মাত্রাছাড়া। --বাতাসে ভাসমান সূক্ষ্ম ধূলিকণার পরিমাণ প্রতি ঘনমিটারে ৬০ মাইক্রোগ্রাম থাকলে, এ দেশে তা স্বাভাবিক --সেখানে সোম থেকে বুধ, এই তিন দিনে কলকাতায় বায়ুসূচকের সর্বনিম্ন মানই ছিল ১৬০ --আর সর্বোচ্চ ২৫০-এরও বেশি

    কলকাতায় কার্বন মনোক্সাইডের পরিমাণও দিন দিন বাড়ছে। --প্রতি ঘনমিটারে ৪ মাইক্রোগ্রাম থাকলে স্বাভাবিক --সেখানে কলকাতায় কার্বন মনোক্সাইডের পরিমাণ প্রতি ঘনমিটারে ১৬ থেকে ২৩ মাইক্রোগ্রাম

    বৃহস্পতিবার বৃষ্টির জেরে দূষণ কিছুটা কমবে বলেই আশা করেছিলেন পরিবেশবিদরা। তবে বৃষ্টির কারণে কিছুটা কমলেও লাগামছাড়া দূষণ চলছেই। -- প্রতি ঘনমিটার বাতাসে ভাসমান সূক্ষ্ম ধূলিকণার পরিমাণ গড়ে ১৭৫ মাইক্রোগ্রাম, সর্বোচ্চ ৩১৩ মাইক্রোগ্রাম -- কার্বন মনোক্সাইডের পরিমাণ সর্বোচ্চ ছিল ৫০ মাইক্রোগ্রাম

    অনেকেই বলছেন, পরিবেশ নিয়ে আরও সচেতন না হলে আগামী দিনে কিন্তু বড় বিপদ।

    First published: