Home /News /kolkata /
KMC: পেল্লাই LED স্ক্রিন! চোখের সামনে শহর! নবান্ন, লালবাজারের পর কলকাতা পুরসভায় অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুম

KMC: পেল্লাই LED স্ক্রিন! চোখের সামনে শহর! নবান্ন, লালবাজারের পর কলকাতা পুরসভায় অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুম

কলকাতা পুরসভায় অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুম প্রতীকী ছবি।

কলকাতা পুরসভায় অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুম প্রতীকী ছবি।

KMC: এবার কম্পিউটারাইজড অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুমে বসেই অনলাইনে বিভিন্ন বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা যাবে। পাশাপাশি, আরও দ্রুত গতিতে কাজ হবে এই কন্ট্রোল রুমে। বসানো হচ্ছে ৪টি এলইডি স্ক্রিন। একাধিক কম্পিউটার মনিটর।কলকাতা পুরসভার কন্ট্রোল রুমের নম্বর0 33 - 2286-1212/1313/1414।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#কলকাতা: নবান্ন এবং লালবাজারের পর কলকাতা পুরসভায় অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুম। পেল্লাই মাপের এলইডি স্ক্রিন। চোখের সামনে শহরের আনাচ-কানাচের ছবি। কলকাতা পুলিশ ও পুরসভার সিসিটিভি ক্যামেরা যুক্ত থাকবে এই কন্ট্রোল রুমের নেটওয়ার্কে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও বিপর্যয় মোকাবিলায় এই কন্ট্রোল রুমে বসে শহরের বিপর্যয় মোকাবেলা করতে পারবেন মেয়র-সহ মেয়র পারিষদরা (KMC)।

বর্ষার মধ্যেই জুলাই মাসে চালু হয়ে যেতে পারে কলকাতা পুরসভার আধুনিক কন্ট্রোল রুম। নবান্নের ধাঁচে অত্যাধুনিক সার্ভার থাকছে কন্ট্রোল রুমে। আর এই কন্ট্রোলরুম সামলাতে পুরনো কর্মীদের সঙ্গে প্রযুক্তি সহায়ক বেশ কিছু কর্মী নিচ্ছে কলকাতা পুরসভা। পাশাপাশি থাকবেন সিভিক ভলেন্টিয়াররাও।

আরও পড়ুন: আজ জয়েন্টের ফলপ্রকাশ রাজ্যে! কখন, কীভাবে দেখবেন রেজাল্ট? জানুন বিশদে

বর্তমান কন্ট্রোল রুমের পরিকাঠামোগত উন্নয়ন করে খোলনলচে বদলে দেওয়া হচ্ছে। বর্তমান কর্মচারীদের পাশাপাশি সেখানে থাকবেন আরও ৩০ জন সিভিক ভলান্টিয়ার। লক্ষ্য কন্ট্রোল রুমের কাজকর্মে আরও গতি আনা। আর এই পরিকাঠামোগত উন্নয়ন হলে ব্যয় হবে প্রায় দুই কোটি টাকা (Kolkata Municipal Corporation)।

নতুন কন্ট্রোল রুমের কাজ চলছে বেশ কিছুদিন ধরেই। কতটা এগিয়েছে সেই কাজ? বুধবার তা সরেজমিনে পরিদর্শন করেন পুর কমিশনার বিনোদ কুমার। কেইআইআইপি সামগ্রিকভাবে এই নতুন কন্ট্রোল রুম তৈরির দায়িত্বে রয়েছে। এছাড়াও, পুরসভার ইঞ্জিনিয়াররাও এখানে কাজ করছেন। সমন্বয় রাখতে জনসভায় থেকে উদ্যান বিভাগ এবং সাধারন প্রশাসন সকলেই যুক্ত থাকবেন এই কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে।

এতদিন শুধু হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করে নাগরিকরা তাঁদের অভাব-অভিযোগ জানাতে পারতেন। কলকাতা পুরসভার কন্ট্রোল রুমের নম্বর 0 33 - 2286-1212/1313/1414। এই নম্বরে ফোন করলে কন্ট্রোল রুমের কর্মীরা প্রথমে অভিযোগ নথিভুক্ত করতেন। এরপর অভিযোগ অনুযায়ী বিভিন্ন বিভাগকে পদক্ষেপ করতে বলা হত।

আরও পড়ুন: দক্ষিণবঙ্গে বর্ষার অনুকূল পরিস্থিতি, রাজ্যজুড়েই আজ বৃষ্টির পূর্বাভাস

কম্পিউটারাইজড অত্যাধুনিক এবার কন্ট্রোল রুমে বসেই অনলাইনে বিভিন্ন বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা যাবে। পাশাপাশি, আরও দ্রুত গতিতে। কাজ হবে এই কন্ট্রোল রুমে। বসানো হচ্ছে ৪টি এলইডি স্ক্রিন। একাধিক কম্পিউটার মনিটর (Kolkata Municipal Corporation)।

এই অত্যাধুনিক কন্ট্রোল রুমে চোখের পলকে যে তথ্যগুলো উঠে আসবে সেগুলি হল.... ১) গোটা শহরের ট্রাফিক আপডেট। ২) শহরের কোন রাস্তায় জল জমেছে। ৩) পুরসভার কোন কোন পাম্পিং স্টেশন জমা জল নামাতে শুরু করেছে।

আরও পড়ুন: দুর্দান্ত সুখবর! একধাক্কায় ভোজ্যতেলের দামে বিরাট পতন! জেনে নিন লিটার প্রতি রেট কত হল...

ইতিমধ্যেই পুরসভা নতুন হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর চালু করেছে। 8335999111 এই নাম্বারে হোয়াটসঅ্যাপ করে সমস্যার ছবি তুলে পাঠিয়ে দিতে পারেন শহরবাসী। নাগরিকরা সমস্যার সমাধান পেয়ে যাবেন চোখের পলকেই। আর এই সমস্ত সমস্যা সমাধানে কন্ট্রোল রুম থেকেই এই যাবতীয় কাজকর্ম পরিচালিত হবে।

চলতি  বর্ষার সময় শহরের কোথাও গাছ পড়লে তার ছবি সরাসরি কন্ট্রোল রুমে বসে দেখতে পারবেন সপার্ষদ মেয়র ফিরহাদ হাকিম। শহরজুড়ে বসানো কলকাতা পুলিসের ক্যামেরাগুলি এর সঙ্গে যুক্ত থাকবে। ফলে সহজেই শহরের আনাচে-কানাচের ছবি ধরা পড়বে বড় পর্দায়। সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ নেবে পুর কর্তৃপক্ষ। শুধু গাছ পড়া বা জল জমা নয়, প্রয়োজনে নিত্যদিন শহরের কোন রাস্তায় কতটা যানজট রয়েছে, কন্ট্রোল রুমে বসে তাও দেখা যাবে। সেই অনুযায়ী কোনও নাগরিক ফোন করলে ফিডব্যাক দিতে পারবেন পুরকর্মীরা।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Firhad Hakim, KMDA

পরবর্তী খবর