Home /News /kolkata /
KMC : হরিদেবপুরকাণ্ডের জেরে অবশেষে নিয়োগ-পদক্ষেপ কলকাতা পুরসভার

KMC : হরিদেবপুরকাণ্ডের জেরে অবশেষে নিয়োগ-পদক্ষেপ কলকাতা পুরসভার

৭ জুলাই থেকে এই আবেদন অনলাইনে করা যাবে মিউনিসিপাল সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইটে

৭ জুলাই থেকে এই আবেদন অনলাইনে করা যাবে মিউনিসিপাল সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইটে

KMC : ওয়েস্ট বেঙ্গল মিউনিসিপ্যাল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে এই নিয়োগ হবে। ৭ জুলাই থেকে অনলাইনে আবেদন।

  • Share this:

কলকাতা : হরিদেবপুরকাণ্ডের জের। একসঙ্গে ৬২ জন সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি পুরসভার। ওয়েস্ট বেঙ্গল মিউনিসিপ্যাল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে এই নিয়োগ হবে। ৭ জুলাই থেকে অনলাইনে আবেদন।

সম্প্রতি হরিদেবপুরকাণ্ডে একজন সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ারকে সাসপেন্ড করা হয়েছে । এই ঘটনার প্রতিবাদে পুরসভার ইঞ্জিনিয়ারদের বামপন্থী সংগঠন শূন্যপদে নিয়োগের দাবিতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এই বিক্ষোভের পরই পুরসভায় ৬২ জন শূন্যপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি । কাকতালীয়ভাবে এই ৬২ জনই সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার পদে। এর মধ্যে আলো বিভাগের সাত জন, সিভিল বিভাগে ৪২ জন এবং মেকানিক্যাল বিভাগে ১৩ জন সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করা হবে।

কলকাতা পুরসভার সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার এই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে www mscwb.org-এই ওয়েবসাইটে অনলাইনে আবেদন করা যাবে । সংরক্ষণের নির্দিষ্ট নিয়ম এবং বয়সসীমা মেনে আবেদন করতে হবে । ৩৭ বছর পর্যন্ত আবেদনকারীরা এই চাকরির যোগ্য । ৭ জুলাই থেকে এই আবেদন অনলাইনে করা যাবে মিউনিসিপাল সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইটে ।

আরও পড়ুন : মণিপুর ধসে নিহতদের মধ্যে ৯ জওয়ান দার্জিলিং-এর, শোকস্তব্ধ মুখ্যমন্ত্রী

শূন্যপদে নিয়োগ নিয়ে কলকাতা পুরসভার  ইউনিয়নগুলি আবেদন জানিয়ে আসছিল । ক্লার্কস থেকে শুরু করে ইঞ্জিনিয়ার সব স্তরের কর্মী ইউনিয়ন গুলি বার বার স্মারকলিপি জমা দিয়েছে কর্তৃপক্ষের কাছে । বিভিন্ন দফতরে প্রায় ৩৭ হাজারের বেশি শূন্যপদ আছে বলে টিএমসি ইউনিয়নের নেতা অমিতাভ  ভট্টাচার্যের দাবি।

সম্প্রতি ২৬ জুন রবিবার সন্ধ্যায় হরিদেবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায় এক কিশোর। এরপর তদন্ত কমিটি নিয়ে চাপানউতোর । শেষ পর্যন্ত পুরসভার আলো বিভাগের ডিজি-সহ আধিকারিকদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত এবং একজন সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ারকে সাসপেন্ড করা হয় । এই ইঞ্জিনিয়ারের সাসপেনশন নিয়ে প্রতিবাদ জানায় ইঞ্জিনিয়ারদের সংগঠন । সাসপেনশন প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল এবং পাশাপাশি শূন্যপদে নিয়োগের দাবি জানান তারা । বৃহস্পতিবার দুপুরে এই বিক্ষোভ প্রতিবাদ মিছিলের পরই ওয়েস্ট বেঙ্গল মিউনিসিপাল সার্ভিস কমিশনের এই বিজ্ঞপ্তি ।

আরও পড়ুন : হরিদেবপুরকাণ্ডে পুর ইঞ্জিনিয়ারকে 'সাসপেন্ড', বিক্ষোভ পুরসভায়

যদিও এই ৬২ জন সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ারের শূন্য পদে নিয়োগের জন্য ২৬ এপ্রিল ছাড়পত্র দেয় রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর । তার পর ২৬ জুন ঘটে হরিদেবপুরের দুর্ঘটনা । তার উপরে ইঞ্জিনিয়ারদের কেন্দ্রীয় পুরভবনে বিক্ষোভ মিছিল, শূন্য পদে নিয়োগের দাবি এবং অবশেষে মিউনিসিপাল সার্ভিস কমিশনের এই বিজ্ঞপ্তি । পারস্পরিক ঘটনা কাকতালীয় হলেও বিরোধীরা কটাক্ষ করতে ছাড়ছেন না ।

আরও পড়ুন : বড় সিদ্ধান্ত, বিদ্যুতের খরচ কমাতে অভিনব পরিকল্পনা রাজ্যের! সব জেলায় চিঠি

কেএমসি ক্লার্কস ইউনিয়নের সম্পাদক অমিতাভ ভট্টাচার্য সেদিনই বিক্ষোভ মিছিলে দাবি করেছিলেন, ‘‘আমরা বার বার কর্তৃপক্ষকে বলেছি শূন্য পদে লোক নিয়োগ করতে হবে । প্রতি ওয়ার্ডে ১২-১৪ জন করে কর্মী থাকতেন, তাঁরা রক্ষণাবেক্ষণ করতেন । সেই নিয়োগ বন্ধ । সাব অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ারকে ঘুরে ঘুরে সাড়ে তিন হাজার ল্যাম্পপোস্ট দেখতে হবে ?’’

কেএমসি ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড অ্যালায়েড সার্ভিসেস অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক মানস সিনহা অভিযোগ করেছিলেন, ‘‘ ওই ইঞ্জিনিয়ারের উপর দু’টি ওয়ার্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল । দুটো আলাদা বরোর । ওই ইঞ্জিনিয়ার স্পষ্ট জানিয়েছেন ওটা বিএসএনএল-এর পোস্ট ছিল সেখানে পুরসভা কোনও আলো লাগায়নি। তিনি এমন কোনও নির্দেশও দেননি । তাহলে কীসের ভিত্তিতে তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করে সাসপেনশনের কথা বাজারে ভাসিয়ে দেওয়া হল? এটা চক্রান্ত। ’’

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: KMC

পরবর্তী খবর