• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Dilip Ghosh Prabir Ghoshal: 'এঁদো পুকুর' আর 'গঙ্গা'? বিজেপিতে 'বেসুরো' প্রবীর ঘোষালকে দিলীপ ঘোষ দিলেন 'বিশেষ' পরামর্শ...

Dilip Ghosh Prabir Ghoshal: 'এঁদো পুকুর' আর 'গঙ্গা'? বিজেপিতে 'বেসুরো' প্রবীর ঘোষালকে দিলীপ ঘোষ দিলেন 'বিশেষ' পরামর্শ...

বেসুরো সতীর্থ প্রবীরকে পরামর্শ দিলীপ ঘোষের

বেসুরো সতীর্থ প্রবীরকে পরামর্শ দিলীপ ঘোষের

Dilip Ghosh Prabir Ghoshal: তীব্র ভাষায় দলে 'বেসুরো' তকমা পাওয়া প্রবীর ঘোষালকে চরম বিঁধলেন দিলীপ ঘোষ। কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বুধবারের প্রশাসনিক বৈঠককেও।

  • Share this:

#কলকাতা: প্রতিদিনের মতোই বৃহস্পতিবারও নিউটাউন ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমনে আসেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে এদিন অন্য মেজাজে পাওয়া গেল বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষকে(Dilip Ghosh Prabir Ghoshal)। একের পর এক নেতা বিধায়ক বিজেপি ছাড়ছেন। এবার ‘বেসুরো’ বিজেপি প্রার্থী প্রবীর ঘোষাল। তৃণমূল মুখপাত্রে বিজেপির তীব্র সমালোচনা করে আস্ত কলাম লিখে ফিলেছেন এই প্রাক্তন সাংবাদিক। তীব্র ভাষায় দলে 'বেসুরো' তকমা পাওয়া প্রবীর ঘোষালকে চরম বিঁধলেন দিলীপ ঘোষ। সঙ্গে কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বুধবারের প্রশাসনিক বৈঠককেও।

আরও পড়ুন: নরকগুলজার, BJP-তে শুধুই ঝগড়া আর টাকা চাওয়া! তৃণমূলে মুখপত্রে বিস্ফোরক গেরুয়া প্রার্থী

প্রবীর ঘোষাল প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh Prabir Ghoshal) বলেন, "যাদের কে নিচ্ছে না, ওখানে নো এন্ট্রি বোর্ড আছে, এক ধরনের কষ্টের মধ্যে আছেন তাঁরা। কোথায় যাবে ঠিক করতে পারছেন না। কেউ বলেছিলেন আগে ভুল করেছিলাম আবার কেউ বলছেন এখন ভুল করছেন। কে কি ভুল করেছেন আগে ঠিক করুন। ভারতীয় জনতা পার্টি গঙ্গার মতো পবিত্র ছিল থাকবে। অনেকে এসেছে সেই পবিত্রতাকে সহ্য করতে পারছে না। এঁদো পুকুরে ছিলেন ওখানেই চলে যান কমফোর্ট থাকুন আমাদের কোনও টেনশন নেই।"

আরও পড়ুন:  'তৃণমূল ওঁকে ঝুনঝুনি দেবে’, কোন প্রসঙ্গে বাবুল নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দিলীপ ঘোষের? যা বললেন...

প্রসঙ্গত, তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপি-তে গিয়েছিলেন প্রবীর ঘোষাল ((Dilip Ghosh Prabir Ghoshal)। কিন্তু সেখানে তিনিও আর থাকতে পারছেন না। কেন থাকতে পারছেন না, তা জানিয়ে তৃণমূলের মুখপত্র জাগো বাংলায় কলম ধরেছেন তিনি। তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক অভিযোগ করেছেন, বিজেপি অর্থ কেন্দ্রিক দল। বিজেপি নেতা তথাগত রায়-ও তা বলেছেন বলে দাবি প্রবীর ঘোষালের।

বুধবার সকালে জাগো বাংলায় প্রবীর ঘোষালের একটি লেখনী প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিবেদনের শিরোনাম, ‘ওখানে কাজ করার থেকে টাকা চাওয়ার লোক বেশি।’ তাঁর প্রতিবেদনে উঠে এসেছে ‘টাকা নিয়ে টিকিট’ ইস্যুও। ভাইরাল অডিয়ো ক্লিপ প্রসঙ্গটি উঠে আসে।

আরও পড়ুন: সপ্তাহান্তে ফের আবহাওয়ার রদবদল? কলকাতায় নিম্নমুখী পারদ! দেখুন আগামী কয়েকদিনের পূর্বাভাস...

বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন উত্তরপাড়ায়। কিন্তু প্রবীর ঘোষাল পরাজিত হন। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে যেভাবে জলঘোলা শুরু হয়েছিল, ঠিক সে সময় প্রবীর ঘোষালকে নিয়েও জল্পনা তৈরি হয়। ত্রিপুরায় অভিষেকের হাত ধরে প্রত্যাবর্তন ঘটেছে রাজীবের। প্রবীর ঘোষালের রাজনৈতিক অবস্থান এখনও ধোঁয়াশায়। তবে জাগো বাংলায় যেভাবে তিনি তাঁর বর্তমান দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন, তাতে ধন্দে রাজনৈতিক মহল।

আরও পড়ুন: বড় খবর! নারদ মামলায় অন্তর্বর্তী জামিন ফিরহাদ-মদন-শোভনদের! দেওয়া হল শর্ত...

গতকাল প্রশাসনিক বৈঠকে এমএলএ এমপিদের কাজে ক্ষুব্ধ ধমক দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Dilip Ghosh On CM Mamata Banerjee)। এপ্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, যখন মানুষ ক্ষেপে যায় তখন এধরনের কথা বার্তা বলে হোয়াইট ওয়াশ করার চেষ্টা করেন প্রত্যেকবার। কখনও কেষ্টকে ধমকান, বলেন ওর একটু অক্সিজেন কম, আবার ওর টাকাতে পার্টি চলে। এইধরনের নাটকবাজী দেখে দেখে বাংলার মানুষ ক্লান্ত। লোককে রাস্তায় দাঁড় করিয়ে নাম লেখাচ্ছেন একটা পয়সা দেন না। ইলেকশনের আগে বড় বড় প্রতিশ্রুতি দেন কিছু করেন না। মানুষ বিকল্প খুঁজেছে বিজেপি এসেছে। আমরা যেমন এর প্রতিবাদও করব আর মোদিজির কাজ কী ভাবে হতে পারে সেটাও দেখাব।

বিএসএফ এর পরিধি বাড়ানো হয়েছে। তিনজনকে গুলি করে মারা হয়েছে। এই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, "সাধারণ মানুষকে নয় বাংলাদেশকে মেরেছে আর এই জন্য পরিধি বাড়ানো হয়েছে। যারা বাংলাদেশিদের কাছ থেকে টাকা নেই ব্যবসা করে তারা চিৎকার চেঁচামেচি করেন। দেশের লোক খুশি আছে। আমাদের সিকিউরিটি নিশ্চিত করতে হবে। দেশের সুরক্ষা সব থেকে প্রথম। যারা এটা নিয়ে বিজনেস করছে তাদের কষ্ট হচ্ছে।"

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: