• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সম্পত্তি নষ্ট করলে শুধু ক্ষতিপূরণ নয়, এবার ৭ বছর কারাবাস

সম্পত্তি নষ্ট করলে শুধু ক্ষতিপূরণ নয়, এবার ৭ বছর কারাবাস

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ৷ এবার রাজ্য সরকারের পদক্ষেপ সেই ঘোষণায় সিলমোহর দিল ৷

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ৷ এবার রাজ্য সরকারের পদক্ষেপ সেই ঘোষণায় সিলমোহর দিল ৷

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ৷ এবার রাজ্য সরকারের পদক্ষেপ সেই ঘোষণায় সিলমোহর দিল ৷

  • Share this:

     #কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ৷ এবার রাজ্য সরকারের পদক্ষেপ সেই ঘোষণায় সিলমোহর দিল ৷ সরকারি ও বেসরকারি সম্পত্তি বাঁচাতে কড়া আইন আনছে রাজ্য সরকার ৷ এবার শুধু সম্পত্তি নষ্টে জরিমানাই নয়, হবে লম্বা কারাবাস ৷ ঘোষণা মতোই আইন পরিবর্তনে শীঘ্রই নয়া বিল আনা হবে ৷

    ধূলাগড় থেকে ভাঙড় ৷ প্রতিবাদ মিছিল থেকে ধর্মঘট ৷ প্রতিবাদ আন্দোলনের নামে চলেছে ভাঙচুর ৷ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সরকারি সম্পত্তি ৷ বাদ পড়েনি বেসরকারিও ৷ কোটি কোটি টাকার ক্ষতি বহন করতে হয়েছে সরকারকেই ৷ সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি রুখতে এবার বিধানসভার আগামী অধিবেশনেই আইন সংশোধনে বিল আনছে সরকার ৷

    সম্পত্তি ধ্বংসের পুরনো আইন অনুযায়ী, শাস্তি হিসেবে জেলের সর্বোচ্চ মেয়াদ ছিল ৬ মাস ৷ একইসঙ্গে সম্পত্তি ভাঙচুরের অপরাধে জরিমানা নির্ধারণ করত কোর্ট ৷ নয়া আইন পাশ হলে এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ বদলে যাবে ৷ নতুন আইনে কারাবাসের সময় সর্বনিম্ন ৬ মাস ও সর্বোচ্চ ৭ বছর হতে চলেছে ৷ নতুন আইনে জরিমানা নির্ধারণের প্রক্রিয়াও বদলাচ্ছে ৷ ধ্বংস হওয়া সম্পত্তির বাজারদরই হবে জরিমানার অঙ্ক ৷ সৌন্দর্য্যায়নের ক্ষতি করলেও একই ব্যবস্থা ৷ আইন যে ভাঙবে, তাকেই প্রমাণ করতে হবে তিনি সম্পত্তি নষ্টের আইন ভাঙেননি  নতুন বিলের খসড়া প্রায় তৈরি ৷

    ভাঙড়ে আন্দোলনে বেশ কয়েক কোটি টাকার সরকারি সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে। ভবিষ্যতে এই ধরণের হিংসাত্মক ঘটনা রুখতে আইন আনতে চলেছে রাজ্য সরকার। আইন কার্যকর হলে, সরকারি-বেসরকারি সম্পত্তি নষ্ট করলে হামলাকারী থেকেই ক্ষতিপূরণ আদায় করা হবে। আগামী বিধানসভা অধিবেশনেই এই আইন আনবে রাজ্য সরকার। সরকারি হোক বা বেসরকারি। গোলমাল, সংঘর্ষের ঘটনায় কোনও সম্পত্তি নষ্ট হলে তার ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য থাকবে হামলাকারী।

    ভাঙড়ে জমি আন্দোলনে পুলিশের ১২টি গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া বা জলে ফেলার ঘটনা ঘটে। এর আগেও রাজ্যে সরকারি- বেসরকারি সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে। তাই এবার সম্পত্তি নষ্ট বন্ধে আইন লাগু করতে চলেছে রাজ্য সরকার। ক্ষতি হয়েছে কোটি কোটি টাকার।

    ভাঙড়ে পুলিশের ১২টি গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া বা জলে ফেলা হয় ৷ এর মধ্যে দুটি গাড়ি কেনা হয়েছিল ২০১৬ সালের নভেম্বরে ৷ ভাঙড়েই গাড়ি নষ্টের জন্য সরকারের ক্ষতি হয়েছে ২.৩৫ কোটি টাকা ৷ এর আগেও একাধিক সরকারি সম্পত্তি নষ্টের ঘটনা ঘটেছে ৷ ব্যক্তিগত বিরোধেও সম্পত্তি নষ্টের অভিযোগ জমা পড়েছে ৷

    ভাঙড়ে অশান্তির পিছনে কয়েকটি দল ও সংগঠনের উসকানি রয়েছে বলে মনে করছে প্রশাসন। শুক্রবার রেড রোডে খাদ্যসাথীর অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারি, ‘সরকারি বা বেসরকারি সম্পত্তি নষ্ট করলে, যে নষ্ট করবে তার কাছ থেকেই টাকা নেবে সরকার ৷ কারণ আমাদের হাতে পয়সা নেই ৷ ’

    First published: