• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Cyclone Jawad: ধেয়ে আসছে ‘জাওয়াদ’ ! প্রস্তুত প্রশাসন, স্থলভাগ থেকে এখন কতটা দূরে এই ঘূর্ণিঝড় ?

Cyclone Jawad: ধেয়ে আসছে ‘জাওয়াদ’ ! প্রস্তুত প্রশাসন, স্থলভাগ থেকে এখন কতটা দূরে এই ঘূর্ণিঝড় ?

ধেয়ে আসছে সাইক্লোন জাওয়াদ

ধেয়ে আসছে সাইক্লোন জাওয়াদ

Cyclone Jawad alert: ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের শেষ দিন দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়াতে কাটবে বলে অনুমান আবহাওয়াবিদদের। সোমবার পর্যন্ত বৃষ্টির সর্তকতা দক্ষিণবঙ্গে।

  • Share this:

    কলকাতা: শনিবার সকালে উপকূলে আছড়ে পড়বে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ (Cyclone Jawad)। এর প্রভাবে সপ্তাহান্তে বাংলায় দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া। শনিবার থেকে কলকাতা-সহ উপকূল ও সংলগ্ন জেলায় ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সর্তকতা রয়েছে (Cyclone Jawad effect in West Bengal)। কলকাতাতে স্বাভাবিকের ২ ডিগ্রি উপরে পারদ। ধীরে ধীরে বাড়বে তাপমাত্রা । পূবালী হাওয়ার দাপট বাড়বে, উত্তুরে হাওয়া কমবে। এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর (Cyclone Jawad Alert) ৷

    শাহিনের পর এবার ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ (Cyclone Jawad)। সৌদি আরবের দেওয়া এই ঘূর্ণিঝড়ের অর্থ ‘উদার’ বা ‘মহান’। থাইল্যান্ডের ঘূর্ণাবর্ত নিম্নচাপ হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে। আবহাওয়া দফতরের হিসেব অনুযায়ী এবারের ঘূর্ণিঝড়ের নাম হবে জাওয়াদ।

    আরও পড়ুন-৫০ হাজার টাকা বিনিয়োগে প্রতি মাসে ১ লাখ টাকা আয় এই ব্যবসায়; সরকারের তরফেও মিলবে ভর্তুকি!

    দক্ষিণ থাইল্যান্ডের ঘূর্ণাবর্ত দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও সংলগ্ন আন্দামান সাগরে সুস্পষ্ট নিম্নচাপে পরিণত। শক্তি বাড়িয়ে গভীর নিম্নচাপ রূপে পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমশ দক্ষিণ-পূর্ব পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এ অবস্থান করবে। আজ, শুক্রবার শক্তি সঞ্চয় করে সেখানেই ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে এই গভীর নিম্নচাপ। ঘূর্ণিঝড়ের নাম হবে জাওয়াদ। ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পর এর অভিমুখ হবে উত্তর-পশ্চিম দিকে। শনিবার সকালে এটি উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ অথবা ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা। বিশাখাপত্তনম থেকে গোপালপুরের মাঝে এটি স্থলভাগে প্রবেশ করার সম্ভাবনা।

    এর প্রভাবে বাংলার উপকূলে সমুদ্র উত্তাল হবে। শনিবার সকালে সমুদ্র উপকূলে বাতাসের গতিবেগ ৬৫ থেকে ৮০ কিলোমিটার হতে পারে। মৎস্যজীবীদের সতর্কবার্তায় আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, শুক্রবার থেকে সোমবার পর্যন্ত মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

    ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব কতটা বাংলায়?

    এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই বৃষ্টি। উপকূল ও সংলগ্ন জেলাগুলিতে ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা। শনি ও রবিবার ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি। ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের শেষ দিন দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়াতে কাটবে বলে অনুমান আবহাওয়াবিদদের। সোমবার পর্যন্ত বৃষ্টির সর্তকতা দক্ষিণবঙ্গে।

    শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর

    শুক্রবার আবহাওয়ার পরিবর্তন মেঘলা আকাশ। উপকূলের দুই জেলা পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুরে কিছুটা দক্ষিণ ২৪ পরগনায় হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

    শনিবার ৪ ডিসেম্বর

    বৃষ্টি বাড়বে শনিবার। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়ার দাপট। শনিবার ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুরে। সঙ্গে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে।

    শনিবার ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, কলকাতা, হাওড়া এবং ঝাড়গ্রামে। সঙ্গে থাকবে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে ঝোড়ো হওয়া।

    রবিবার ৫ ডিসেম্বর

    রবিবার বৃষ্টির ব্যাপকতা আরও বাড়বে। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়ার গতিবেগ। পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, কলকাতা, ঝাড়গ্রাম এবং হাওড়া থেকে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সর্তকতা। রবিবার ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে কলকাতা, ঝাড়গ্রাম, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে।

    বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, বীরভূম, হুগলি, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান এবং উত্তরবঙ্গের মালদহ জেলাতেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এই জেলাগুলিতে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে ঝোড়ো হাওয়ার দাপট থাকবে।

    আরও পড়ুন- নবান্নে শিল্পপতি গৌতম আদানি! মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে লম্বা বৈঠক, বিনিয়োগে আগ্রহী আদানি কর্তা?

    কলকাতাতে কেমন আবহাওয়া ?

    আজ, শুক্রবার থেকে আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে কলকাতাতেও। মেঘলা আকাশ, সঙ্গে হালকা পূবালী বাতাস বইতে থাকবে। বজ্রগর্ভ মেঘ থেকে হালকা বৃষ্টির সামান্য সম্ভাবনা রয়েছে।

    শনিবার বৃষ্টি হবে কলকাতায়। দু-এক পশলা মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। সঙ্গে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে ঝোড়ো হাওয়া বইবে কলকাতাতে। শনিবার বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঝড় বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। রবিবার বৃষ্টি ও ঝড়ের ব্যাপকতা বাড়বে কলকাতায়। ৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিবেগে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সর্তকতা কলকাতা শহরে। বৃষ্টি চলবে সোমবারেও।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: