Home /News /kolkata /
Job Offer : ছেলের পড়াশোনার জন্য গয়না বন্ধক রাখেন অঙ্গনওয়াড়িকর্মী মা, বিশাখের সামনে আজ ২ কোটি টাকার বেতনের চাকরি

Job Offer : ছেলের পড়াশোনার জন্য গয়না বন্ধক রাখেন অঙ্গনওয়াড়িকর্মী মা, বিশাখের সামনে আজ ২ কোটি টাকার বেতনের চাকরি

বিশাখ মণ্ডল

বিশাখ মণ্ডল

Job Offer : প্রতি ক্ষেত্রেই প্রস্তাবিত বেতন ছাড়িয়েছে কোটির অঙ্ক ৷ কোথাও পৌঁছেছে ২ কোটির কাছেও ৷

  • Share this:

    কলকাতা : উচ্চ মাধ্যমিকের মেধা তালিকায় পেয়েছিলেন দ্বাদশ স্থান ৷ প্রথম দশের মধ্যে থাকতে না পারার যন্ত্রণা কুরে কুরে খেয়েছিল রামপুরহাটের বিশাখকে ৷ সেইসঙ্গে তাঁর বাবা মাকেও ৷ মেধাবী সন্তানের থেকে তাঁদের প্রত্যাশা ছিল ৷ সেই প্রত্যাশার দুকূল ছাপিয়ে গেল উচ্চ মাধ্যমিকের কয়েক বছর পরে, চাকরির অফারে ৷ জিতেন্দ্রলাল বিদ্যাভবনের প্রাক্তন ছাত্র বিশাখ মণ্ডলের সামনে বিশ্বের তাবড় সংস্থার চাকরির সুযোগ ৷ প্রতি ক্ষেত্রেই প্রস্তাবিত বেতন ছাড়িয়েছে কোটির অঙ্ক ৷ কোথাও পৌঁছেছে ২ কোটির কাছেও ৷

    বিশাখের বাবা চাষবাস করেন৷ মা অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী৷ মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকের পর ডয়েন্ট এন্ট্রান্সেও ভাল ফল করেছিলেন তিনি ৷ ভর্তি হয়েছিলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং শাখায় ৷ সঙ্গী ছিল দ্বিধা, সংশয়, ভয় এবং একরাশ স্বপ্ন৷ রামপুরহাটের জিতেন্দ্রলাল বিদ্যাভবন থেকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অলিন্দ-ভয় দেখিয়েছিলেন অনেকেই ৷ বলেছিলেন ‘সাবধানে থাকিস’৷ ইঞ্জিনিয়ারিং-এর চতুর্থ বর্ষে পৌঁছে বিশাখ দেখছেন তাঁর সব ভয় ও দ্বিধা অমূলক ছিল ৷ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিজ্ঞতায় তিনি অভিভূত ৷ শিক্ষকদেরও তাঁর মনে হয়েছে বন্ধু হিসেবে ৷

    এই মুহূর্তে বিশাখের সামনে তিনটে চাকরির সুযোগ ৷ ফেসবুক লন্ডন থেকে পেয়েছেন ১ কোটি ৮৩ লক্ষ টাকার বার্ষিক বেতনের প্যাকেজ ৷ গুগল লন্ডন দিচ্ছে ১ কোটি ৪০ লাখ টাকার বার্ষিক বেতন এবং অ্যামাজন বার্লিনের তরফে তিনি পেয়েছেন ১ কোটি ১৩ লক্ষ টাকার বার্ষিক বেতনের প্রতিশ্রুতি ৷ আপাতত গুগল ও ফেসবুকের সঙ্গে বিশাখের কথাবার্তা এগোচ্ছে ৷ আরও বেতন বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে ৷

    আরও পড়ুন : মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের পর শিক্ষকের সাম্মানিক ১৫০০! স্কুলের বিজ্ঞপ্তিতে আলোড়ন সোশ্যাল মিডিয়ায়

    বেশ কিছু দিন ধরেই ফেসবুক ও গুগলের সঙ্গে বিশাখের কথা চলছে ৷ রাত ১২ টার সময় তাঁর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যোগাযোগ করেছিল গুগল ৷ সংলাপের শুরুতেই গুগল কর্তৃপক্ষ বলেছিলেন ‘দুঃখিত’! শুনেই বিশাখের মনে হয়েছিল সেখানে আর তাহলে চাকরির আশা নেই ৷ কিন্তু ভুল ভাঙল তার পরের বাক্যেই ৷ গুগল দুঃখিত, কারণ তারা বিশাখের সঙ্গে দেরিতে যোগাযোগ করেছে !

    আরও পড়ুন : ঘাটালবাসীর কাছে আশার আলো, বাস্তবায়নের পথে আরও এক ধাপ এগোল ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যান

    আকাশছোঁয়া এই অফার প্রথমে অপ্রত্যাশিত ছিল আদতে মুর্শিদাবাদের নবগ্রামের সুখীগ্রামের ছেলে বিশাখের কাছেও ৷ পারিবারিক কারণে ২০০৭ সাল থেকে তিনি মায়ের সঙ্গে থাকতে শুরু করেন রামপুরহাটে ৷ তাঁর বাবা থাকেন মুর্শিদাবাদেই৷ স্বচ্ছ্লতা না থাকলেও বিশাখের গায়ে অভাবের আঁচও লাগতে দেননি তাঁর দিদিমা৷ গত ১২ বছর ধরে বিশাখের মা অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীর কাজ করছেন ৷ ছেলের পড়ার খরচ চালাতে তিনি  অলঙ্কার বন্ধক রাখতেও দ্বিধা করেননি ৷ এখন বিশাখ পেয়িং গেস্ট হিসেবে থাকেন কলকাতায় ৷ তাঁর আক্ষেপ, দিদিমা তাঁর জীবনযুদ্ধ দেখলেও সাফল্য দেখে যেতে পারলেন না ৷ কিছু দিন আগে প্রয়াত হয়েছেন বিশাখের দিদিমা ৷ তিনি সব সময় সচেষ্ট থাকতেন অভাবের আঁচ যেন নাতির গায়ে না লাগে ৷

    আরও পড়ুন : কমল দাম, এই রবিবার ইলিশ খাবেন তো? দেখে নিন কলকাতার বাজারে ইলিশের দর

    চাকরির ক্ষেত্রে কোনটা বেশি গুরত্বপূর্ণ? বেতন না পরিবেশ? প্রশ্ন রাখা হয়েছিল বিশাখের কাছে ৷ তিনি জানিয়েছেন, দুটোই গুরুত্বপূর্ণ তাঁর কাছে ৷ তবে পড়াশোনার ক্ষেত্রে অন্তত কলেজস্তর অবধি অফলাইনের কোনও বিকল্প নেই ৷ বলছেন এই মেধাবী ৷

    ( সুশোভন ভট্টাচার্য ও অক্ষয় ধীবর)
    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Jadavpur Universituy

    পরবর্তী খবর