#কলকাতা : আজ শুরু মাধ্যমিক ৷ সামনের ক’টা দিন এখন অগ্নিপরীক্ষা জীবনে প্রথমবার কোনও বোর্ড পরীক্ষা দিতে চলা হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীদের ৷ মাধ্যমিক হোক বা উচ্চমাধ্যমিক, ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাস মানেই কলকাতা ও রাজ্যের অন্যান্য জেলায় ধীরে ধীরে গরম ভালমতোই পড়তে শুরু করে ৷ আর এই সময় ঘরে ঘরে লোডশেডিংয়ের প্রকোপ বাড়া মানেই আরও সমস্যা ৷ অন্তত পরীক্ষার্থীদের জন্য তো খুবই সমস্যার ৷ তাই সিইএসসি-র পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করা হয়েছে, পরীক্ষার মরশুমে শহরে অন্তত বিদ্যুতের কোনও ঘাটতি না হয়, সেব্যাপারে তারা অত্যন্ত তৎপর ৷

পরীক্ষার কথা ভেবে ইতিমধ্যেই বহু এলাকায় পুরোনো ওয়ারিং বদলে তা নতুন করে ফেলা হয়েছে ৷ প্রয়োজন অনুযায়ী শহরের বিভিন্ন জায়গায় থাকছে মোবাইল জেনারেটর ভ্যানও ৷ এছাড়া আপৎকালীন পরিষেবার জন্য থাকছে ২০০টি বিশেষ জেনারেটর ভ্যানও ৷

ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে শহরে বিদ্যুতের চাহিদা যা থাকে, তা ফেব্রুয়ারির শেষ থেকেই ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে ৷ মার্চ মাসেই কলকাতায় বিদ্যতের গড় চাহিদা গিয়ে দাঁড়াতে পারে ১৭৮৫ মেগাওয়াটে ৷ তাই পরীক্ষার সময় অন্তত যাতে কোনও বিদ্যুৎ ঘাটতির সমস্যা না হয়, তার জন্য সবরকমভাবে প্রস্তুত সিইএসসি ৷