Home /News /kolkata /
CBI: হ‍ঠাৎ কলকাতা শহরজুড়ে সিবিআই তল্লাশি! সূত্র লুকিয়ে অসমে, কারণ শুনলে চমকে উঠবেন

CBI: হ‍ঠাৎ কলকাতা শহরজুড়ে সিবিআই তল্লাশি! সূত্র লুকিয়ে অসমে, কারণ শুনলে চমকে উঠবেন

সিবিআই তল্লাশি

সিবিআই তল্লাশি

CBI: অসমে জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণ টেন্ডারে কারচুপি,শহর কলকাতায় তল্লাশি সিবিআইয়ের।

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতায় একযোগে একাধিক সিবিআই অভিযান। অসমের দিসপুরে জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণ ও সংস্কারমূলক কাজের বরাত নিয়ে কারচুপির অভিযোগ। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে কলকাতায় বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালাল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এদিন অভিযান চালানো হয়, মুচিপাড়া থানা এলাকার ১৩ ডি, ফরডাইস লেনে সৌমিত্র দে নামে এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে।

উল্লেখ্য, দিসপুরে জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণ ও সংস্কারের কাজের জন্য টেন্ডার ডাকা হয়। তারই বরাত পেতে ঘুষ কেলেঙ্কারি সামনে এসেছে। সরাসরি এই কেলেঙ্কারিতে যোগ রয়েছে ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটি অব ইন্ডিয়ার দিসপুর আঞ্চলিক অফিসের অ্যাকাউন্ট্যান্ট ও জুনিয়র অ্যাকাউন্ট্যান্টের। যারা মূলত ঘুষ নিয়ে হরিয়ানার এক বেসরকারি সংস্থাকে বরাত পাইয়ে দিতে যে যে সুযোগ সুবিধা প্রয়োজন, তার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। ইতিমধ্যে জাতীয় সড়ক অথরিটির ওই দুই অফিসার ও বেসরকারি সংস্থার এক্সজিকিউটিভ ডিরেক্টর সহ তিন কর্মী অর্থাৎ মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। শুধু তাই নয় এই মামলাতে ইতিমধ্যে অভিযান চলেছে বেঙ্গালুরু, হরিয়ানার গুরুগ্রাম, শিলং ও পাটনায়।

আরও পড়ুন: দিল্লিতে আজ মমতার বৈঠকে সম্ভবত নেই আপ, টিআরএস! তবে থাকছে অধিকাংশ বিরোধী দলই

সিবিআই সূত্রে খবর, ওই বেসরকারি সংস্থার এক্সজিকিউটিভ ডিরেক্টেরের বাড়ি থেকে তল্লাশি চালিয়ে প্রায় ২.৩৩ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। সিবিআই সূত্রে খবর, ওই বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে যোগ রয়েছে কলকাতার ব্যবসায়ী সৌমিত্র দে-র। বৈদ্যুতিক সামগ্রির ওই ব্যবসায়ী ওই সংস্থার মাধ্যমে অসমে জাতীয় সড়কে বৈদ্যুতিক সামগ্রি সরবরাহ করেছিল বলে খবর। তাই সংস্থার সঙ্গে কী ভাবে যোগাযোগ? কত টাকার লেনদেন হয়েছে? তা জানতে চান তদন্তকারীরা।

আরও পড়ুন: বালিশ চাপা দিয়ে ঘুমন্ত দাদাকে খুন করে ভোরেবলা থানায় হাজির ভাই! বাঁশদ্রোণীতে চাঞ্চল্য

তাই এদিন সৌমিত্র দে’র বাড়িতে অভিযান চালাল সিবিআই।প্রসঙ্গত এরআগে ২০১৮ সালে মেঘালয়ে জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণের বরাত পেয়েছিল এই সংস্থা। তাতেও কারচুপি করে বেআইনি ভাবে ব্যাঙ্কের নথি বের করে পেশ করার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। তাতেও বেশ কয়েকজনের নাম উঠে এসেছে। সব মিলিয়ে টেন্ডার কারচুপি মামলায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তের সাথে কলকাতাতেও চলল অভিযান।

Published by:Pooja Basu
First published:

Tags: CBI, Kolkata News

পরবর্তী খবর