Home /News /kolkata /
Man kills elder brother in Bansdroni: বালিশ চাপা দিয়ে ঘুমন্ত দাদাকে খুন করে ভোরেবলা থানায় হাজির ভাই! বাঁশদ্রোণীতে চাঞ্চল্য

Man kills elder brother in Bansdroni: বালিশ চাপা দিয়ে ঘুমন্ত দাদাকে খুন করে ভোরেবলা থানায় হাজির ভাই! বাঁশদ্রোণীতে চাঞ্চল্য

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, নিরঞ্জন পল্লির বাড়িতে দুই ভাই দেবাশিস এবং শুভাশিস থাকতেন৷

  • Share this:

#কলকাতা: বাঁশদ্রোণীতে ভাইয়ের হাতে খুন হলেন দাদা৷ খুনের পর নিজেই থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করল অভিযুক্ত৷ পুলিশকে অভিযুক্তই জানায়, দাদাকে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করেছে সে৷

এ দিন সকালে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় বাঁশদ্রোণীর নিরঞ্জন পল্লি এলাকায়৷ নিহত ব্যক্তির নাম দেবাশিস চক্রবর্তী (৫০)৷ অভিযুক্ত তাঁরই ছোট ভাই শুভাশিস চক্রবর্তী৷ ঘুমন্ত দাদাকে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করার পর ভোরবেলা নিজেই বাঁশদ্রোণী থানায় গিয়ে ঘটনার কথা জানায় শুভাশিস৷ এর পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ প্রাথমিক ভাবে পুলিশকে অভিযুক্ত জানিয়েছে, আর্থিক অনটন ঘিরে দাদার সঙ্গে অশান্তির জেরেই তাঁকে খুন করেছে সে৷

আরও পড়ুন: প্রতিবেশীর সঙ্গে চরম বচসা, সালারের গৃহবধূর সঙ্গে ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা...

স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, নিরঞ্জন পল্লির বাড়িতে দুই ভাই দেবাশিস এবং শুভাশিস থাকতেন৷ পরিবারে অন্য কেউ ছিলেন না৷ দুই ভাইয়ের আর্থিক অবস্থাও একেবারেই ভাল ছিল না৷ তবে সেভাবে দুই ভাইয়ের মধ্যে বড় কোনও বচসা বা বিবাদ চোখে পড়েনি কারও৷ তাই দাদা দেবাশিসকে যে ভাই শুভাশিস এ ভাবে হত্যা করতে পারে, তা ভাবতে পারছেন না কেউই৷ সকালে পুলিশ এলাকায় আসার পরই ঘটনার কথা জানাজানি হয়৷

দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ৷ আত্মসমর্পণের পর অভিযুক্ত শুভাশিসকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ আজই তাকে আদালতে তোলা হবে৷ খুনের প্রকৃত কারণ জানতে তাকে জেরা করছে পুলিশ৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Murder

পরবর্তী খবর