Home /News /kolkata /
Babul Supriyo: তারকা বাবুলের সঙ্গে সেলফির হিড়িক, প্রথম দিনের বিধানসভা অধিবেশনে

Babul Supriyo: তারকা বাবুলের সঙ্গে সেলফির হিড়িক, প্রথম দিনের বিধানসভা অধিবেশনে

তারকা বাবুলের সঙ্গে সেলফির হিড়িক, প্রথম দিনের বিধানসভা অধিবেশনে

তারকা বাবুলের সঙ্গে সেলফির হিড়িক, প্রথম দিনের বিধানসভা অধিবেশনে

বিধানসভার অধিবেশনে প্রথম যোগ দিয়ে আবেগপ্রবণ বাবুল। 

  • Share this:

আবীর ঘোষাল, কলকাতা: পেস্তা রঙের পোশাক। শুক্রবার সাড়ে ১২টা নাগাদ বিধানসভায় এসে পৌঁছলেন বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo) ৷ আর বিধানসভা ভবনে আসতেই বাবুলকে ঘিরে হুড়োহুড়ি বাকিদের মধ্যে। এদিন প্রথমবারের মতো বিধানসভা অধিবেশনে যোগ দেন বাবুল। অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় পরিচয় করিয়ে দেন তাঁকে। তবে প্রথম দিনের অধিবেশনে সকলের নজর ছিল তারকা বাবুলের দিকেই। বিধায়ক হিসাবে তিনি বসেছিলেন আরেক তারকা বিধায়ক চিরঞ্জিত চক্রবর্তীর পাশে। তবে শোক প্রস্তাব পেশের পরেই একে একে সব বিধায়করা এসে কথা বলে যান বাবুলের সাথে। সেলফি তুলতেও দেখা গেছে বাবুলের সাথে। আর সকলের আবদার মিটিয়েছেন বাবুল।

আরও পড়ুন- রাহুল সিনহার কথায় আমোদ পেয়েছেন কুণাল ঘোষ, কেন?

অনেক ডামাডোলের পর ১১ মে বিধায়ক হিসাবে শপথ নিয়েছিলেন বালিগঞ্জের বাবুল সুপ্রিয়। সেই শপথের পর সাংবাদিক বৈঠক থেকে বিরোধীদের আক্রমণ করেছিলেন বাবুল। বাবুল বললেন, ‘‘আমাকে যা খুশি বলতে পারেন বিরোধীরা। কিন্তু আমি এখন জনপ্রতিনিধি, আমি সকলের বিধায়ক। এখন জগত ছোট। সকলের সাহায্য পাচ্ছি।’’ আসানসোল থেকে শুরু করে বিজেপির ভূমিকা, সব নিয়েই বাবুল  মত প্রকাশ করেছিলেন।

বাবুল বলেন, ‘‘আসানসোলকে মিস করব না ৷ শত্রুঘ্ন সিনহার সঙ্গে অনেকদিনের পরিচয়। জমিয়ে কাজ করতে পারব। ওখানে বিজেপিকে মানুষ ভোট দেয়নি৷ দল ছেড়ে দিলেও অনেকে বিধানসভা পদ ছাড়ে না সেটার নজির আছে ৷ আমি তো তা করিনি। আর দেখুন একেই বোধহয় পোয়েটিক জাস্টিস বলে। আমি ছাড়ার কথা বলার পরেও আমাকে তারকা প্রচারক তালিকায় রাখা হয়েছিল। আমি তো প্রায় তখন রাজনীতি ছেড়ে দিয়েছিলাম। কিন্তু দিদি আমাকে নিয়ে আসেন।’’

আরও পড়ুন-পাশের হারে শীর্ষে পূর্ব মেদিনীপুর! কলকাতার ফলাফল কেমন? চমকে দেওয়া রেজাল্ট...

বিরোধীদের আক্রমণ করে তিনি বলেন, ‘‘আমার বারবার মনে হয় বাংলার প্রতি অন্যায় হয়েছে। আমার মূল্ লক্ষ্য এখন বাংলার জন্য কাজ করা। আমি এই কাজের চাপ এঞ্জয় করি। অমিত শাহয়ের বঙ্গ সফরকে আক্রমণ করে বাবুল সুপ্রিয় বলেন, কাশীপুরে যে ভাবে বডি আটকানো হল। উনি সিবিআই তদন্তের কথা বলছেন ময়নাতদন্তের আগেই। ওঁর বলা উচিত ছিল, আগে ময়নাতদন্ত হোক, তারপর যা দেখা যাবে। উনি এজেন্সিকে প্রভাবিত করছেন।’’

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Babul supriyo

পরবর্তী খবর