হোম /খবর /কলকাতা /
'এটা কী বলুন তো..', সুকন্যাকে জিজ্ঞেস করে ইডি! উত্তর নেই, সঙ্গেসঙ্গে গ্রেফতার!

Anubrata Mondal Daughter: 'এটা কী বলুন তো..', সুকন্যাকে জিজ্ঞেস করে ইডি! উত্তর না মেলাতেই সঙ্গেসঙ্গে গ্রেফতার!

কোন ফাঁদে গ্রেফতার সুকন্যা?

কোন ফাঁদে গ্রেফতার সুকন্যা?

Anubrata Mondal Daughter: ইডি সূত্রে খবর, অনুব্রত মণ্ডলের কন্যা সুকন্যা মণ্ডলকে তিনজন মহিলা অফিসার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে গতকাল।

  • Share this:

নয়াদিল্লি: বাবা গ্রেফতার হওয়ার আট মাসের মাথায় গ্রেফতার মেয়েও। গরু পাচার মামলায় বুধবার অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ে সুকন্যা মণ্ডলকে গ্রেফতার করেছে ইডি। সূত্রের খবর, বুধবার জিজ্ঞাসাবাদের সময় বেশ কিছু নথি দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল সুকন্যাকে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে তিনি কোনো কিছু বলতে পারেননি। মনীশ কোঠারিকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করে অনুব্রত মণ্ডলের কন্যা সুকন্যা মণ্ডলের বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য পায় ইডি। এই সমস্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে কোনো প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেননি অনুব্রত মণ্ডলের কন্যা।

ইডি সূত্রে খবর, অনুব্রত মণ্ডলের কন্যা সুকন্যা মণ্ডলকে তিনজন মহিলা অফিসার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে গতকাল। মনীশ কোঠারিকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় তিনি জানিয়েছিলেন, অনুব্রত মণ্ডল এবং তাঁর কন্যা যে সমস্ত তথ্য পাঠাতেন তাঁর কাছে, সেই সমস্ত তথ্য অনুযায়ী সমস্ত অ্যাকাউন্ট দেখে দিতেন তিনি।

আরও পড়ুন: মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা মমতার! যা বললেন, ইঙ্গিত স্পষ্ট হয়ে গেল! ব্যাপক শোরগোল

এক্ষেত্রে বুধবার যখন অনুব্রত মণ্ডলের কন্যা সুকন্যা মণ্ডলকে নানা হিসেবের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়, সেই প্রসঙ্গে সুকন্যা বলেন, ''এই বিষয়ে আমি কিছু জানি না। যা বলার আমার বাবা এবং মনীশ কোঠারি বলতে পারবেন।''

ইডি সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, অনুব্রত মণ্ডল এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের নামে মোট ২০ কোটি টাকা জমা পড়েছিল ২০১৬ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত। ইডির পক্ষ থেকে সুব্রত বিশ্বাস নামে এক ব্যাংক কর্মীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গিয়েছিল বিভিন্ন সময় অনুব্রত মণ্ডলের বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চালকের হাত থেকেই টাকা পাঠাতেন। ৬ কোটি টাকা পাঠিয়ে বিভিন্ন অ্যাকাউন্টে জমা করতে বলা হয়েছিল। সেই সমস্ত সম্পত্তির মধ্যে ছিল একাধিক রাইস মিল এবং একাধিক কোম্পানির নামে অ্যাকাউন্ট।

আরও পড়ুন: হঠাৎ গ্রেফতার অনুব্রত-কন্যা! কেন? চমকে দেওয়া তথ্য! ইডিকে যা জানিয়ে দিলেন সুকন্যা...

ওই জমা করা টাকা থেকেই সুকন্যা মণ্ডলের নামে তিন কোটি টাকা এফডি করা হয়েছিল বলে জানতে পেরেছে ইডি। অনুব্রত মণ্ডলের কন্যার নামে যে ২৬ টি সম্পত্তি কেনা হয়েছিল, সেই সমস্ত সম্পত্তি ইডির নজরে আগে থেকেই ছিল। একাধিক সম্পত্তি কেনা হয়েছিল ভোলে বোম রাইস মিলের নামেও।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Anubrata Mondal, Cow Smuggling Case, Sukanya Mondal