• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • রাজের দুলহন তিনিই, ফেসবুকে জানালেন ‘ফুরফুরে’ শুভশ্রী

রাজের দুলহন তিনিই, ফেসবুকে জানালেন ‘ফুরফুরে’ শুভশ্রী

Photo Courtesy : Subhasree Ganguly Facebook Handle

Photo Courtesy : Subhasree Ganguly Facebook Handle

নায়িকা জানালেন, বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক আছে বলেই তিনিও আছেন ফুরফুরে।

  • Share this:

    #কলকাতা: কোথাও কিচ্ছু নেই। হঠাৎ এ কী বিড়ম্বনা। এই মুহূর্তে টালিগঞ্জের সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের একজন নাকি গায়ে আগুন লাগাতে যাচ্ছিলেন। আর আরেকজন নাকি ঘুমের ওষুধ খেয়ে সটান হাসপাতালে। এ সবই নাকি এই প্রজন্মের এক বক্স অফিস হিট পরিচালকের জন্য ! দিনভর চলল মিমি-রাজ-শুভশ্রী ত্রিকোণ প্রেমের রসায়নের জটিল জল্পনা। দিনের শেষে অভিনেত্রী শুভশ্রী জানালেন, ‘‘ এ সবই ভুলভাল।’’ মিমি রেগে কাঁই, আর রাজ এক হাত নিলেন জনৈক সাংবাদিককে।

    এক পরিচালক আর দুই অভিনেত্রী। সিনেমার পরিভাষায় ‘এক ফুল দো মালি’। টলিউডের বিগ ব্রেকিং নিউজ। রাজ চক্রবর্তী নাকি শুভশ্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে ফের মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে নতুন করে সম্পর্ক তৈরী করছেন। এই জটিল টানাপোড়েনের মাঝেই নাকি মিমি চক্রবর্তী ঘুমের ওষুধ খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। রাজ যান তাঁকে দেখতে। সে সব মেনে নিতে না পেরে নাকি গায়ে আগুন লাগাতে যান শুভশ্রী। সংবাদমাধ্যমে এ খবর ছড়িয়ে পড়তেই হৈহৈ কান্ড। জল্পনায় জল ঢালতে ফেসবুকে মুখ খুললেন শুভশ্রী। অটুট আছে রাজের সঙ্গে রিলেশনশিপ। কোথাও কাঁটা হয়ে ফুটে নেই অন্য কেউ। নায়িকা জানালেন, বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক আছে বলেই তিনিও আছেন ফুরফুরে। হেসে ওড়ালেন আত্মহত্যার গুজব।

    টলিউডে গুঞ্জন-ফিসফাস বন্ধ করতে পরে ফেসবুকে কয়েক লাইন পোস্টও করলেন শুভশ্রী। শুভশ্রীর পোস্ট টুইটারে শেয়ার করে রাজ যেন বার্তা দিলেন ইয়ে রিস্তা টুটেগা নেহি। তারপর টুইটারে আক্রমণ করলেন সেই সাংবাদিককে। যিনি নাকি এইসব গুজব রটিয়েছিলেন। আর যাকে নিয়ে এই সব তিনি আবার রাজের এক্স, মিমি চক্রবর্তী। মিমি জানিয়েছেন যাবতীয় খবর মিথ্যে। শুটিংয়ের মাঝে দুপুরের দিকে হঠাৎ বাড়ি থেকে ফোন পান। জানতে পারেন, কে নাকি লিখেছে তিনি ঘুমের ওষুধ খেয়েছেন। এসব শুনে তাঁর মা কোলাপস্ করে যাওয়ার মতো অবস্থা! বাধ্য হয়ে কাজ বন্ধ রেখে বাড়ি ফেরেন। নায়িকা প্রশ্ন তুলেছেন, এসব খবরে পরিবারের উপর দিয়ে কী ঝড় যায় কেউ বোঝেন! রাজ আর রাজের প্রেমিকার মাঝখানে তিনি? কী সব খবর! গুজব না সত্যি। বলা মুশকিল। তবে এটা বলা যায়, ইন্ডাস্ট্রিতে সম্পর্কে রসায়ন নিয়ে ঠিক কী হতে পারে, সে রকম একটা ছবি ভবিষ্যতে হলে তার একটা স্ক্রিপ্ট মোটামুটি তৈরী হয়ে গেল। আর তা একদম শুদ্ধ দেশি টলিউটি। কেউ বলতে পারবেন না টুকলি।

    First published: