corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনার ধাক্কায় শ্মশানপুরী ইতালি, তবু প্রভাব পড়েনি ফেরারি-র ব্যবসায়

করোনার ধাক্কায় শ্মশানপুরী ইতালি, তবু প্রভাব পড়েনি ফেরারি-র ব্যবসায়
বুকিং কমেনি ফেরারির৷ PHOTO- FILE

ইতালির মিলানের লাগোয়া মারানেলো শহরেই ফেরারির সদর দফতর৷ করোনার দাপটে সেই শহরও এখন যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে৷

  • Share this:
  #ইতালি: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে গোটা বিশ্বের মধ্যে সবথেকে খারাপ অবস্থা ইতালির৷ সেখানে মৃতের সংখ্যা চোদ্দ হাজার ছাড়িয়েছে৷ আক্রান্তের সংখ্যাই প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজারের কাছাকাছি৷ ভয়াল ভাইরাসের ধাক্কায় গোটা বিধ্বস্ত দেশের অর্থনীতিও৷ কিন্তু সেই মন্দার আঁচ যেন লাগছে না বিশ্ববিখ্যাত গাড়ি নির্মাতা সংস্তা ফেরারির ব্যবসায়৷

ইতালির মিলানের লাগোয়া মারানেলো শহরেই ফেরারির সদর দফতর৷ করোনার দাপটে সেই শহরও এখন যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে৷ জনমানবশূন্য শহরে চারিদিকে শ্মশানের নিস্তব্ধতা৷ স্বভাবতই ফেরারির কারখানাতেও গাড়ি উৎপাদন সম্পূর্ণ বন্ধ৷ অথচ সংস্থার এক কর্তাই স্বীকার করেছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতেও ফেরারির ব্যবসায় কার্যত কোনও প্রভাব পড়েনি৷

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া ফেরারির এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ফেরারির গাড়ি কিনতে গেলে ১৮ মাস আগে তার বুকিং করতে হয় গ্রাহকদের৷ করোনার ধাক্কায় যেখানে গাড়ি নির্মাতা সংস্থাগুলির মাথায় হাত পড়েছে, সেখানে ফেরারির অগ্রিম বুকিং খুব একটা কমেনি বলেই দাবি করেছেন ফেরারির সিইও লুইস ক্যামিলার৷ তাঁর কথায়, 'ইতালির বাইরে থেকে গ্রাহকরা আমাদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এসেছেন৷'

তবে করোনার জেরে উৎপাদন বন্ধ থাকায় ২০২০-র শেষদিকে যে গাড়িগুলি ডেলিভারি হওয়ার কথা সেগুলি সময়ে গ্রাহকদের হাতে তুলে দেওয়া যাবে কিনা, তা নিয়ে নিশ্চিত নন সংস্থার সিইও৷

তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে ইতালির করোনা যুদ্ধে সামিল হয়েছে ফেরারি-ও৷ স্পোর্টস কার এবং রেসিং কার তৈরির অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে করোনা চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ভেন্টিলেটর তৈরি করছে সংস্থা৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: April 4, 2020, 7:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर