মাঝরাতে ৪ লক্ষ আতঙ্কের আওয়াজ, খামারবাড়ির রহস্য শোনাবে গা ছমছমে ভয়ের গল্প!

মাঝরাতে ৪ লক্ষ আতঙ্কের আওয়াজ, খামারবাড়ির রহস্য শোনাবে গা ছমছমে ভয়ের গল্প!

এক দম্পতি জীবনের সব সঞ্চয় দিয়ে ১৪৯ বছরের পুরনো একটি ফার্ম হাউজ কিনেছিলেন। কিন্তু সেই সুখ বেশি দিন উপভোগ করতে পারেননি।

  • Share this:

#পেনসিলভেনিয়া: নতুন বাড়ি কে না কিনতে চায়! তার পর যদি সেটা হয় ফার্ম হাউজ, তাহলে তো আর কথাই নেই! জীবনের বাঁচিয়ে রাখা সব সম্পদ দিয়ে কিনে ফেলা হয় নতুন ঠিকানা। তবে এই সুখ ক্ষণিকেরও হতে পারে। কারণ, কিছু ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে অনেকেই ঠকে গিয়েছেন। সেই সময়ে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়াটাও কম বলে মনে হতে পারে। পেনসিলভেনিয়াতে এমনই একটা ঘটনা ঘটেছে। এক দম্পতি জীবনের সব সঞ্চয় দিয়ে ১৪৯ বছরের পুরনো একটি ফার্ম হাউজ কিনেছিলেন। কিন্তু সেই সুখ বেশি দিন উপভোগ করতে পারেননি।

এই গল্পটা ঠিক সিনেমার গল্পের মতো। ফার্ম হাউজটি কিনবার পর ওই দম্পতি বাড়িটিতে থাকার জন্য আসেন। ১৪৯ বছরের পুরনো বাড়িটিতে থাকার কথা ভেবে ভীষণ উৎসাহী ছিলেন তাঁরা, কিন্তু অসুবিধাটা শুরু হয় ঠিক সূর্য নামার পর থেকে। রাতের বেলায় অদ্ভুত সব আওয়াজ শুনতে পান তাঁরা। মনে হতে থাকে বাড়ির দেওয়াল থেকে নানা শব্দ তাঁদের কানে আসছে। ঠিক যেমনটা গা ছমছমে সিনেমায় দেখা যায়। এর পরই এই শব্দের কিনারা খুঁজে বার করতে একটি তদন্তকারী দলকে ডাকা হয়। সেই দল সরেজমিনে তদন্ত করে যা খুঁজে বার করে তা রীতিমতো অবাক করার বিষয়।

তদন্ত রিপোর্টে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য- সেই বাড়ির দেওয়ালে বাসা বেঁধেছিল প্রায় ৪ লক্ষ মৌমাছি। এই খবর জানতে পেরে ওই দম্পতির হুঁশ উড়ে যায়। CNN-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বাড়ির মালিক জানিয়েছেন, আসলে এই ফার্ম হাউজটি অনেক কম দামে তাঁরা পেয়ে গিয়েছিলেন। বাড়ির পুরনো মালিকও এটিকে তাড়াতাড়ি বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, কিন্তু ফার্ম হাউজটিতে এমন একটা গণ্ডগোল রয়েছে তাঁরা ঘুণাক্ষরেও ভাবতে পারেননি। সেই মৌমাছিদের তাড়াতে একজন দক্ষ মৌমাছি বিশেষজ্ঞকে ডাকা হয়। তিনি এই পুরো কাজটি করতে ৪ লক্ষ টাকা নিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে!

Published by:Pooja Basu
First published: