Afghanistan Crisis : শরীর দেখানো চলবে না! এবার আফগান মহিলাদের খেলাধূলায় নিষেধাজ্ঞা জারি তালিবানের...

এবার খেলায় নিষেধাজ্ঞা Photo : File Photo

Afghanistan Crisis : ক্রিকেট-সহ যেকোনও খেলার ক্ষেত্রেই মহিলাদের শরীর উন্মুক্ত হয়ে যায়। তাই আফগানিস্তানে জারি হল ফতোয়া।

  • Share this:

    #কাবুল : তালিবানের (Taliban Terror) দখলে গোটা আফগানিস্তান (Afghanistan Crisis)। আশরাফ ঘানি সরকারের পতনের পর গঠিত হয়ে গিয়েছে নয়া তালিবান সরকারও (Taliban)। আর এবার আফগানিস্তানে (Afghanistan Crisis) একের পর এক নিষেধাজ্ঞা জারি হতে শুরু হল। সেদেশে মহিলাদের যেকোনও ধরনের খেলায় অংশগ্রহণে নিষেধাজ্ঞা জারি করল তালিবানরা (Taliban)।

    আফগানিস্তানে (Afghanistan Crisis) নয়া তালিবান সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই এই ফতোয়া জারি করেছে। কট্টরপন্থী ইসলামিক সংগঠনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে এমনই দাবি করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তালিব কালচারাল কমিশনের ডেপুটি প্রধান আহমেদুল্লাহ ওয়াশিক স্পষ্ট জানিয়ে দেন, দেশের মহিলাদের খেলাধুলো করার কোনও দরকার নেই। দেশের সংস্কৃতির পক্ষে এটা একেবারেই যথাযোগ্য নয়।

    আরও পড়ুন : শিক্ষকরা পরতে পারবেন না জিন্স-টি শার্ট, শিক্ষিকাদের জন্য টাইট পোশাকে নিষেধাজ্ঞা পাকিস্তানে

    ক্রিকেট-সহ যেকোনও খেলার ক্ষেত্রেই মহিলাদের শরীর উন্মুক্ত হয়ে যায়। আর তাই কোনও খেলার সঙ্গেই আফগান মহিলাদের যুক্ত থাকার দরকার নেই। তালিবানের কালচারাল কমিশনের ডেপুটি হেড আহমাদুল্লাহ ওয়াসিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া বিবৃতিতে এই ফতোয়ার কথা জানায়।

    এর আগে মহিলাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা নিয়েও ফতোয়া জারি করেছিল তালিবান জঙ্গিগোষ্ঠী। কেবলমাত্র মহিলা শিক্ষকরাই ছাত্রীদের পড়াতে পারবেন। সেটা কোনওভাবে সম্ভব না হলে বয়স্ক শিক্ষক যার চরিত্রে কোনও দাগ নেই, কেবল তিনিই ছাত্রীদের পড়ানোর দায়িত্ব নিতে পারবেন। এছাড়া বেসরকারি আফগান বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ছাত্রীদের সমসময় বোরখা এবং নিকাব পড়তে হবে। শুধু তাই নয়, পাশাপাশি বসতে পারবে না ছেলে-মেয়েরা। মাঝে অবশ্যই পর্দা থাকতে হবে। আর এসবের পর এবার জারি হল নয়া এই ফতোয়া।

    প্রসঙ্গত, গত বুধবার আফগানিস্তানে নতুন অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে তাদের নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা করেছে তালিবান। ইতিপূর্বে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও, নয়া ক্যাবিনেটে কোনও মহিলাকে জায়গা দেওয়া হয়নি। তালিবান সরকারের শীর্ষে বসছেন মহম্মদ হাসান আখুন্দ। তিনিই হচ্ছেন ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী। আফগানভূমে তালিবান সরকারের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছে মহম্মদ হাসান আখুন্দ। ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী পদে বসছে মোল্লা আবদুর ঘানি বরাদর। তবে সে একা নয়, দ্বিতীয় ডেপুটি হচ্ছে মৌলবি হানাফি। বিদেশমন্ত্রী হচ্ছে আবাস স্তানিকজাই, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী পদে বসছে মোল্লা ইয়াকুব। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হচ্ছে সিরাজউদ্দিন হাক্কানি। সেই সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বে মুনির। তবে এটা আপাতত কার্যনির্বাহী ক্যাবিনেট বলে জানিয়েছে তালিবানের মুখপাত্র।

    আরও পড়ুন : বন্দুক তাক করে তালিবান, অকুতোভয় আফগান মহিলার সাহসে মুগ্ধ গোটা বিশ্ব

    পাশাপাশি, দেশের উপ প্রধানমন্ত্রী পদ পাচ্ছেন বরাদর। দ্বিতীয় উপ প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন মৌলবী আবদুল সালাম হানাফি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একটি সাংবাদিক বৈঠক করে তালিবান মুখপাত্র নতুন সরকারের ঘোষণা করেন। তালিব মুখপাত্র আহমাদুল্লা ওয়াসিক বলেন, 'আনুষ্ঠানিকভাবে আমরা নতুন সরকারের ঘোষণা করব। তবে তার আগে কোন কোন পদে কারা থাকছেন, সেটি একে একে ঘোষণা করা হচ্ছে।'

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: