Afghan Passports: ভারতীয় ভিসা-সহ বেশ কয়েকটি আফগান পাসপোর্ট চুরি কাবুলে ! ঘটনার পিছনে ISI-এর মদতের আশঙ্কা

Representational Image

Afghan passports with Indian visas stolen: তালিবানরা কাবুল দখলের পরেই সেখানকার একটি ট্রাভেল এজেন্সি সংস্থার অফিসে হানা দিয়েছিল বেশ কয়েকজন সশস্ত্র দুষ্কৃতীর দল ৷ ওই দুষ্কৃতীরাই একাধিক পাসপোর্ট চুরি করে পালায় বলে জানা গিয়েছে ৷

  • Share this:

    কাবুল: কাবুল থেকে ভারতীয় ভিসার স্ট্যাম্প দেওয়া বেশ কয়েকটি আফগান পাসপোর্ট চুরির ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে ৷ ভারত সরকার সূত্রে খবর, বেশ কয়েকটি আফগান পাসপোর্ট চুরির ঘটনা ঘটেছে কাবুলে ৷

    তালিবানরা কাবুল (Kabul) দখলের পরেই সেখানকার একটি ট্রাভেল এজেন্সি সংস্থার অফিসে হানা দিয়েছিল বেশ কয়েকজন সশস্ত্র দুষ্কৃতীর দল ৷ ওই দুষ্কৃতীরাই একাধিক পাসপোর্ট চুরি করে পালায় বলে জানা গিয়েছে ৷ ভারতীয় ভিসা-সহ আফগান পাসপোর্ট (Afghan Passports with Indian visas) চুরির পিছনে পাকিস্তানি গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই-এর হাত রয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে ৷ ওই দুষ্কৃতীরা নিজেদের মধ্যে উর্দুতে কথা বলছিল বলে জানা গিয়েছে ৷

    আরও পড়ুন- চমকে উঠল গোটা অঞ্চলের মানুষ, বিরাট পাখির মতো জলে ওটা কী! তুলকালাম কাণ্ড

    তবে ঠিক কতগুলি পাসপোর্ট চুরি হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি ৷ এই চুরির ঘটনায় সবচেয়ে বড় আশঙ্কা, পাসপোর্ট এবং ভিসাগুলি কোনও জঙ্গি কার্যকলাপে ব্যবহৃত হতে পারে ৷ তবে ইতিমধ্যেই আফগানদের দেওয়া পুরনো ভিসা সবই বাতিল করেছে ভারত ৷ তবে এগুলির থেকেই জাল পাসপোর্ট এবং নকল ভিসা বানানোর আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে ৷

    প্রসঙ্গত, ই-ভিসা ছাড়া ভারতে ঢুকতে পারবেন না আফগান নাগরিকেরা। বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে এ কথা জানানো হয়েছে। একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানে নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিবেচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আফগান নাগরিকেরা যাতে জরুরি ভিত্তিতে ই-ভিসার আবেদন জানাতে পারেন সেই উদ্দেশ্যে ‘ই-এমার্জেন্সি এক্স-মিস (Miscellaneous) ভিসা’ ব্যবস্থা চালু হয়েছে গত সপ্তাহে।

    এদিকে আফগানিস্তানে (Afghanistan) তালিবানদের (Taliban) হাতে মৃত্যু হয়েছে তাঁর পরিবারের চার জনের। আফগান অভিনেত্রী মালিশা হিনা খান (Malisha Heena Khan) সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নিজেই জানালেন। মালিশা থাকেন ভারতে। আর তাই নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করছেন তিনি। আফগান অভিনেত্রী জানিয়েছেন, পরিবারের চার সদস্যের মধ্যে ছিলেন তাঁর কাকু যিনি আফগানিস্তান সরকারের পরিবহণ মন্ত্রকে এক সময়ে কাজ করেছিলেন।

    আরও পড়ুন-সন্তানদের নিয়ে ডিনার সারছিলেন বাবা-মা, আচমকা খুলে পড়ল চলন্ত সিলিং ফ্যান! তার পর...

    পরিবারের চার সদস্য গাড়ি করে যাচ্ছিলেন। সেই সময়ে তালিবানদের গুলিতে মৃত্যু হয় তাঁদের। জানিয়েছেন মালিশা। সেই চার জনের মধ্যে তাঁর খুড়তুতো দুই ভাইবোনও ছিলেন। ভারত সম্পর্কে মালিশা বলেছেন, ‘‘আমরা সত্যিই ভাগ্যবান ভারতে থাকতে পেরে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এর জন্য ধন্যবাদ।’’

    মালিশা আরও জানিয়েছেন যে এখনও তাঁর পরিবারের ৪-৫ জন আটকে রয়েছেন আফগানিস্তানে। কোনওরকমে নিজেদের লুকিয়ে রেখেছেন তাঁরা তালিবানদের থেকে। ট্যুইট করেই মালিশা বলছেন, খারাপ খবর আসছে আফগানিস্তান থেকে। আমার পরিবারের চারজন সদস্যকে আমরা হারিয়েছি। তাঁদের মধ্যে ছিলেন আমার কাকু যিনি আফগানিস্তান সরকারের পরিবহণ মন্ত্রকে এক সময়ে কাজ করেছিলেন। এ ছাড়া আমার দুই খুড়তুতো ভাইবোন ছিলেন।
    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: