• Home
  • »
  • News
  • »
  • india-china
  • »
  • লাদাখে অবিশ্বাস্য আগ্রাসন দেখিয়েছে চিন, উপযুক্ত জবাব দিয়েছে ভারত: মার্কিন বিদেশসচিব

লাদাখে অবিশ্বাস্য আগ্রাসন দেখিয়েছে চিন, উপযুক্ত জবাব দিয়েছে ভারত: মার্কিন বিদেশসচিব

এ চিনা সংস্থাগুলির উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পিও বলেন, '২০১৩ সাল থেকে গণপ্রজাতন্ত্রী চিন তাদের সরকারি সংস্থাগুলি ব্যবহার করে বিবাদিত দক্ষিণ চিন সাগরে সামরিক পরিকাঠামো গড়ে তুলে প্রায় ৩০০০ একর এলাকা দখল করেছে৷ এর ফলে ওই অঞ্চলে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে, প্রতিবেশীদের সার্বভৌম অধিকার থেকে বঞ্চিত করার পাশাপাশি পরিবেশের অপূরণীয় ক্ষতি করেছে৷' PHOTO- ANI

এ চিনা সংস্থাগুলির উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পিও বলেন, '২০১৩ সাল থেকে গণপ্রজাতন্ত্রী চিন তাদের সরকারি সংস্থাগুলি ব্যবহার করে বিবাদিত দক্ষিণ চিন সাগরে সামরিক পরিকাঠামো গড়ে তুলে প্রায় ৩০০০ একর এলাকা দখল করেছে৷ এর ফলে ওই অঞ্চলে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে, প্রতিবেশীদের সার্বভৌম অধিকার থেকে বঞ্চিত করার পাশাপাশি পরিবেশের অপূরণীয় ক্ষতি করেছে৷' PHOTO- ANI

এ দিন মূলত চিনের কমিউনিস্ট পার্টির মনোভাবেরই কড়া সমালোচনা করেন মার্কিন বিদেশসচিব৷

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: লাদাখে ভারতের সঙ্গে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় অবিশ্বাস্য রকমের আগ্রাসী মনোভাব দেখিয়েছে চিন৷ আর তার সঠিক জবাব দিয়েছে ভারত৷ বুধবার ফের একবার চিনের কড়া সমালোচনা করে এমনই বার্তা দিলেন মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেও৷  তবে এই ঘটনাকে বিচ্ছিন্ন ভাবে না দেখে সামগ্রিক ভাবে প্রতিবেশী দেশগুলির প্রতি শি জিনপিং সরকারের আগ্রাসী মনোভাবের অঙ্গ হিসেবে দেখা উচিত বলে মনে করেন মার্কিন বিদেশসচিব৷ শুধু তাই নয়, চিনের এই আগ্রাসী নীতির বিরুদ্ধে এবার গোটা বিশ্বের মানুষকে একজোট হওয়ার ডাক দিলেন মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেও৷

    মার্কিন বিদেশসচিব বলেন, 'ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে এ বিষয়ে আমার একাধিকবার আলোচনা হয়েছে৷ চিন অবিশ্বাস্য রকমের আগ্রাসী মনোভাব দেখিয়েছে এবং ভারত তাদের পক্ষে যতটা ভাল জবাব দেওয়া সম্ভব ছিল, সেটাই দিয়েছে৷'

    শুধু ভারত নয়, চিন যেভাবে এবার ভুটানের ভূখণ্ড দখলে উদ্যত হয়েছে, তারও প্রবল সমালোচনা করেছেন মার্কিন বিদেশসচিব৷ তিনি বলেন, 'সম্প্রতি ভুটানের সঙ্গেও বিবাদে জড়িয়েছে চিনের কমিউনিস্ট সরকার৷ হিমালয় পর্বতমালা থেকে শুরু করে ভিয়েতনামের অধীনে থাকা সামুদ্রিক এলাকা, সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জ-সহ এরকম আরও অনেক উদাহরণ রয়েছে৷ সীমান্ত বিবাদ খুঁচিয়ে তোলাটা চিনের স্বভাবে পরিণত হয়েছে৷ এই দাদাগিরি গোটা বিশ্ব বেশিদিন সহ্য করবে না৷'

    চিনকে কার্যত হুঁশিয়ারির সুরে মাইক পম্পেও বলেন, 'ক্রমাগত প্রতিবেশীদের সঙ্গে ভূখণ্ড বদলে দেওয়ার চেষ্টা করতে থাকার চিনের এই নীতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট যারপরনাই ক্ষুব্ধ৷' কটাক্ষের সুরে তিনি আরও বলেন, চিনের কোনও প্রতিবেশী জানে না চিনের সঙ্গে তাদের সীমান্ত কোথায় শেষ এবং চিন আদৌ সেটাকে সম্মান করে কিনা৷ আর এখন ভুটানের মানুষ তা উপলব্ধি করতে পারছেন৷

    এ দিন মূলত চিনের কমিউনিস্ট পার্টির মনোভাবেরই কড়া সমালোচনা করেন মার্কিন বিদেশসচিব৷ তিনি অভিযোগ করেন, 'অগণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ক্ষমতা ধরে রাখা চিনা কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্ব বিদেশি শত্রুদের থেকেও নিজেদের দেশের মানুষের মুক্ত চিন্তাকে ভয় পায়৷ চিনা কমিউনিস্ট পার্টির কোনও বিশ্বাসযোগ্যতাই নেই৷ মারণ ভাইরাস সম্পর্কেও ওরা ঠিক সময়ে গোটা বিশ্বকে কিছু জানায়নি, যার ফলে এখন লক্ষ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হচ্ছে৷'

    মার্কিন বিদেশসচিব আরও বলেন, চিনের এই দখলদারির মনোভাবের বিপদ মুক্ত চিন্তায় বিশ্বাসী বিশ্বের সব মানুষই বুঝতে পারছেন৷ চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং গোটা বিশ্বে যে প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করছেন তার ফল বিশ্বের গণতন্ত্র প্রিয় মানুষের পক্ষে ভাল হবে না বলে সতর্ক করেন মার্কিন বিদেশসচিব৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: