• Home
  • »
  • News
  • »
  • explained
  • »
  • CORONAVIRUS KAPPA VARIANT EXPLAINED FIRST CASES FOUND IN RAJASTHAN AND UTTAR PRADESH PB

ডেল্টার পর কাপ্পা! WHO বলছে ভারতে মিলেছে করোনার নয়া ভ্যারিয়ান্ট, তৃতীয় তরঙ্গ কি তাহলে এসে গেল?

photo source collected

যত দূর জানা গিয়েছে, কাপ্পা ভ্যারিয়েন্ট করোনার ডবল মিউট্যান্ট। এটি B.1.617.1 এই নামে পরিচিত।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দিন যত গড়িয়েছে করোনাভাইরাসের নানা ভ্যারিয়ান্ট গবেষকদের হতবাক করেছে। করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়ান্টের (Delta Variant) বাড়-বাড়ন্ত ছিলই। তারও পর নতুন করে কাপ্পা ভ্যারিয়ান্টের (Kappa Variant) সাতটি কেস ধরা পড়েছে। যেগুলি রাজস্থান ও উত্তরপ্রদেশের মাটিতে রয়েছে। গবেষকদের মতে, ডেল্টার মতো কাপ্পাও করোনাভাইরাসের ডবল মিউট্যান্ট (Double Mutant)। রাজস্থানের জয়পুর, এসএমএস মেডিকেল কলেজ দিল্লির একটি ল্যাব এবং পুণের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজিতে করোনার কিছু নমুনা পাঠায়, তাতে ১৬৬টি ডেল্টা ভ্যারিয়ান্ট আর ৫টি কাপ্পা ভ্যারিয়ান্ট পাওয়া গিয়েছে। অন্য দিকে, উত্তরপ্রদেশের লখনউ কিং জর্জেস মেডিকেল কলেজে ১০৭টি নমুনার মধ্যে ২টি নমুনায় কাপ্পা ভ্যারিয়ান্ট মিলেছে। এরপরই গবেষকরা যেমন চিন্তিত, তেমনই ঘটনা উদ্বেগ বাড়িয়েছে সাধারণ মানুষের। অনেকেই প্রশ্ন করছেন এবার কি তৃতীয় ঢেউ শুরু হল?

যত দূর জানা গিয়েছে, কাপ্পা ভ্যারিয়েন্ট করোনার ডবল মিউট্যান্ট। এটি B.1.617.1 এই নামে পরিচিত। এর মিউটেশনের দু'টি বৈজ্ঞানিক নাম হল E484Q এবং L453R। অনেকেই ভেবেছেন করোনার ভ্যারিয়েন্টের মধ্যে এটি একেবারে নতুন, তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (WHO) মতে এটা করোনার নতুন কোনও ভ্যারিয়ান্ট নয়। ২০২০ সালে অক্টোবরে ভারতে এই ভ্যারিয়ান্টটি প্রথম সনাক্ত করা হয়েছিল। কাপ্পা ছাড়াও ডেল্টা ভারতেই প্রথম পাওয়া গিয়েছে। WHO-এর মতে কাপ্পাও করোনার একটি ভ্যারিয়ান্ট, যার তীব্রতা অন্যান্য করোনার ভ্যারিয়ান্টগুলোর মতোই এবং একই ভাবে সংক্রমণ ঘটাতে পারে এই ভ্যারিয়ান্ট। উত্তরপ্রদেশ স্বাস্থ্য দফতরের অ্যাডিশনাল সেক্রেটারি অমিত মোহন প্রসাদ (Amit Mohan Prasad) জানিয়েছেন করোনার এই রূপ নিয়ে বেশি উদ্বেগের কিছু নেই। এটিও করোনার অন্য স্ট্রেনগুলির মতো চিকিৎসা যোগ্য।

অনেকের মনে প্রশ্ন উঠতে পারে কাপ্পা ভ্যারিয়ান্টের বিরুদ্ধে বর্তমান করোনা টিকাগুলি কতটা কার্যকরী? ইন্ডিয়ার কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (ICMR) জানিয়েছে ভারত বায়োটেকের (Bharat Biotech) তৈরি Covaxin কাপ্পা ভ্যারিয়ান্টের বিরুদ্ধে কার্যকর। এছাড়াও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় (Oxford University) কিছু দিন আগেই বলেছিল Covishield কাপ্পা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেয়। ভারতে এখনও পর্যন্ত যত মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে তাদের বেশিরভাগকেই Covishield ও Covaxin দেওয়া হয়েছে।

গবেষকদের দাবি, ডেল্টা ভ্যারিয়ান্টের মতো কাপ্পাও যেহেতু ডবল মিউট্যান্ট, তাই এই স্ট্রেন দ্রুত পরিবর্তন করতে পারে নিজেকে। অনুমান করা হয়েছে, ভ্যাকসিনের একটি ডোজ এই ভ্যারিয়ান্টকে থামাতে ব্যর্থ হতে পারে। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব করোনার দ্বিতীয় ভ্যাকসিন নিয়ে নিতে পারলে কাপ্পাকে আটকানো যেতে পারে বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা!

Published by:Piya Banerjee
First published: