• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • TOLLYWOOD MOVIES GUESS WHY NIRONTOR WILL STAY IN PROSENJIT CHATTERJEES HEART FOREVER TC RC

Prosenjit Chatterjee: বড়দিনে প্রত্যাবর্তন কাকাবাবুর, কিন্তু প্রসেনজিতের হৃদয়ে 'নিরন্তর' টান অন্য ছবির!

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

অভিনেতা ও প্রযোজক প্রসেনজিৎ (Prosenjit Chatterjee) প্রথম থেকেই ভেবেছিলেন এই ছবিটি কোনও একটা উৎসবের সময় মুক্তি পেলে ভীষণ সাড়া পাবে।

  • Share this:

#কলকাতা: প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chattopadhyay) বেশ কয়েক বছর ধরেই, খুব বেছে সিনেমা করছেন। যেগুলি একেবারে অন্য আঙ্গিকের। বুম্বাদার অভিনয় নিয়ে সমালোচকরাও খুব বেশি প্রশ্ন তোলেন না। গত বছরই, টেলিভিশনে মুক্তি পেয়েছে নিরন্তর (Nirontor)। এই ছবির মুখ্য অভিনেতা যেমন প্রসেনজিৎ, এর পাশাপাশি ছবিটির প্রযোজনাও তিনি করেছেন। ছবির পরিচালক চন্দ্রাশিস রায় (Chandrasish Roy)।

জীবনের কয়েকটি ভাগের ওপর নির্ভর করে তৈরি হয়েছে এই সিনেমার চিত্রনাট্য। এই ছবিতে দু'টি আলাদা আলাদা ব্যক্তিত্বের পরিচয় পাওয়া গিয়েছে। দু'জনেই অফিসের কাজের জন্য কোনও এক পাহাড়ে একটি হোটেল নির্মাণের কাজের জন্য একত্রিত হয়েছিলেন। একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়র, অন্যজন তার সহকারী। সিভিল ইঞ্জিনিয়ার-এর চরিত্রে ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। আর সহকারীর চরিত্রে ছিলেন সত্যম (Satyam)। শহরের ব্যস্ত জীবন থেকে একেবারে আলাদা একটা জায়গায় দু'জনেই খুঁজে পেয়েছেন তাঁদের নিজের সত্ত্বা। সিনেমার দৃশ্য যত এগিয়েছে দু'জনের বন্ধুত্ব তত গভীর হয়েছে। সিনেমা বিশেষজ্ঞদের মতে, টলিউডে এমন ছবি এর আগে অন্য কোনও সুপারস্টার করেননি।

ছবি মুক্তির একবছর সম্পন্ন হয়েছে। অভিনেতা ও প্রযোজক প্রসেনজিৎ প্রথম থেকেই ভেবেছিলেন এই ছবিটি কোনও একটা উৎসবের সময় মুক্তি পেলে ভীষণ সাড়া পাবে। এর জন্য নন্দন বা শহরের আরও কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি কথাও ভেবেছিলেন। তিনি বলেন, “এটা এমন কোনও ছবি নয়, যার বড় দর্শকমহল হবে। তাই ছবিটির প্রিমিয়ার বড় করে না করলেও চলত। তাই আমরা এই ছবিটাকে টেলিভিশনে রিলিজ করার সিদ্ধান্ত নfই। কারণ, সেই সময়ে করোনা পরিস্থিতি খুব একটা ভালো ছিল না। শহরের প্রেক্ষাগৃহগুলিতে মুক্তির নিয়ে টানাপোড়েন চলছিল। টেলিভিশনে রিলিজ করeর ফলে প্রচুর দর্শক এই সিনেমা দেখতে পেয়েছেন”।

টলিউড সুপারস্টার এই ছবি নিয়ে আরও কিছু কথা বলেছেন, “প্রথমত এই সিনেমার স্ক্রিপ্ট পছন্দ হয়েছিল আমার। তাই আমি প্রযোজনা করবার সিদ্ধান্ত নিই। এবং চরিত্রটা এত ভালো ছিল তাই আমি সেটাকেও ছাড়তে চাইনি। তাই এই ছবিতে অভিনয়ও করি। আমি সব সময় তরুণ পরিচালকদের সমর্থন করি। চন্দ্রাশিস ভালো পরিচালকদের মধ্যে পড়ে, আমি ওর কাজ এর আগে দেখেছি। ওর গল্পে একটা আবেগ ছিল। যেটা আমাকে আকৃষ্ট করেছিল। এছাড়াও ছবির জন্য ওর কাস্টিং খুব ভালো ছিল। এককথায় সরল গল্পের সঙ্গে একটি বাণিজ্যিক দিকও ছিল ছবিটিতে। এই ছবি আমার হৃদয়ে থাকবে। যাঁরা ভালো ছবি দেখতে পছন্দ করেন তাঁরা ছবিটাকে পছন্দ করেছেন।”

সামনেই প্রসেনজিৎ অভিনীত ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’ (Kakababur Pratyaborton) মুক্তি পাবে। বড় পর্দায় মুক্তির দিন ঘোষণা হয়ে গিয়েছে। চলতি বছরের ২৪ ডিসেম্বর ছবিটি মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে।

Published by:Raima Chakraborty
First published: