Home /News /entertainment /
Rituparna Sengupta on Tarun Majumdar : প্রিয় পরিচালকের মৃত্যু সংবাদে মনখারাপ বিদেশে, শোকগ্রস্ত ঋতুপর্ণা মনে মনে কলকাতাতেই

Rituparna Sengupta on Tarun Majumdar : প্রিয় পরিচালকের মৃত্যু সংবাদে মনখারাপ বিদেশে, শোকগ্রস্ত ঋতুপর্ণা মনে মনে কলকাতাতেই

তরুণ মজুমদারের পরিচালনায় ‘আলো’, ‘চাঁদের বাড়ি’ এবং ‘ভালবাসার বাড়ি’ ছবিতে অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা

তরুণ মজুমদারের পরিচালনায় ‘আলো’, ‘চাঁদের বাড়ি’ এবং ‘ভালবাসার বাড়ি’ ছবিতে অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা

Rituparna Sengupta on Tarun Majumdar : তাঁর সৃষ্টি, সৃষ্টির প্রতি দায়বদ্ধতা ও মনন স্পর্শ করে যায় তাঁকে ৷ বললেন ঋতুপর্ণা ৷

  • Share this:

    কলকাতা : তরুণ মজুদার প্রয়াত, এ কথা বিশ্বাস করতেও তাঁর কষ্ট হচ্ছে ৷ বললেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ৷ ‘দাদার কীর্তি’, ‘পথভোলা’, ‘শ্রীমান পৃথ্বীরাজ’, ‘গণদেবতা’, ‘পলাতক’, ‘নিমন্ত্রণ’-এর পরিচালক বাংলা ছবির একটি প্রতিষ্ঠান নায়িকার কাছে ৷ তাঁর সৃষ্টি, সৃষ্টির প্রতি দায়বদ্ধতা ও মনন স্পর্শ করে যায় তাঁকে ৷ বললেন ঋতুপর্ণা ৷ বাংলা চলচ্চিত্রে তরুণ মজুমদারের অবদান সুগভীর ৷ আরও অসংখ্য গুণমুগ্ধের মতো মনে করেন ‘আলো’-র অভিনেত্রীও ৷

    তরুণ মজুমদারের পরিচালনায় ‘আলো’, ‘চাঁদের বাড়ি’ এবং ‘ভালবাসার বাড়ি’ ছবিতে অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা ৷ এর মধ্যে ‘আলো’ মনোনীত হয়েছিল জাতীয় পুরস্কারের জন্য ৷ প্রয়াত পরিচালকের তিনটি ছবির অংশ হতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করেছেন অভিনেত্রী ৷ তবে রয়ে গেল আক্ষেপ ৷ তরুণ মজুমদারের শেষযাত্রায় তিনি থাকতে পারলেন না ৷ কারণ ঋতুপর্ণা এখন বিদেশে ৷ তবে প্রিয় পরিচালকের প্রয়াণে তাঁর মন পৌঁছে গিয়েছে তাঁর কাছেই ৷ সশরীরে থাকতে না পারলেও এই শোকের মুহূর্তে আছেন ঋতুপর্ণা উপস্থিত মানসিক ভাবে ৷ জানালেন তিনি ৷

    আরও পড়ুন : তাঁর ছবিতে হাতেখড়ি শিশুশিল্পী হিসেবে, ‘তনুজেঠু’ তাঁর শিক্ষাগুরু, স্মৃতি-অর্ঘ্য প্রসেনজিতের

    আরও পড়ুন : বালিকা বধূ দেখেছেন ১৮ বার, বললেন মিঠুন

    সোমবার সকাল ১১ টা ১৭ মিনিটে প্রয়াত হন পরিচালক তরুণ মজুমদার ৷ গত ১৪ জুন থেকে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন এসএসকেএম হাসপাতালে ৷ নবতিপর পরিচালকের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ ভক্ত, অনুরাগী তথা বাংলা ছবির মহল ৷ সোমবার দুপুরে হাসপাতাল থেকে তাঁর নিথর দেহ প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় এন টি ওয়ান স্টুডিওতে ৷ সেখান থেকে এসএসকেএম হাসপাতালের অ্যানাটমি বিভাগে তাঁর দেহ দান করা হয় ৷ শেষযাত্রায় তিনি কোনওরকম ফুলের মালায় আবৃত হতে চাননি ৷ পরিবারের তরফে রাজ্য সরকারকে অনুরোধ করা হয় যাতে কোনও রকম আয়োজন করা না হয় ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Rituparna Sengupta, Tarun Majumdar

    পরবর্তী খবর