Biggboss14|সিদ্বার্থ শুক্লাকে Me Too-তে ফাঁসানোর হুমকি দিলেন দেবলীনা, আক্রমণ শুরু নিকির

Biggboss14|সিদ্বার্থ শুক্লাকে Me Too-তে ফাঁসানোর হুমকি দিলেন দেবলীনা, আক্রমণ শুরু নিকির
Me Too-র বিষয়টি দেবলীনা স্বীকার করে নেন।

Me Too-র বিষয়টি দেবলীনা স্বীকার করে নেন।

  • Share this:

#মুম্বই: বিগ বস মানেই বিতর্ক। বিগ বসের ঘর যেন বিতর্ক ছাড়া চলে না। প্রত্যেক সিজনের মতো এই সিজনেও সেই বিতর্ক জারি রয়েছে। প্রত্যেকবারের মতো এ বারও একাধিক দলে ভাগ হয়ে খেলা শুরু হয়েছে ঘরের ভিতর। আপাতত দু'টি শিবিরে ভাগ হয়েছেন প্রতিযোগীরা। যাদের মধ্যে নিরন্তর কাদা ছোড়াছুড়ি চলছে। এরই মাঝে উঠল Me Too-র অভিযোগ।

সম্প্রতি ইজাজ খান (Eijaz Khan)-এর বদলে বিগ বস হাইজে এসেছেন অভিনেত্রী দেবলীনা ভট্টাচার্য (Devoleena Bhattacharjee)। আর তাঁকে নিয়ে একাধিক সমস্যা তৈরি হয়েছে। অনেকেই তাঁকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেছেন। অনেকে আবার তাঁর আস্থাভাজনও হয়েছেন। এরই মধ্যে নিকি তাম্বোলি (Nikki Tamboli) অভিযোগ তোলেন দেবলীনা সিদ্ধার্থ শুক্লা (Sidharth Shukla)-কে Me Too-তে ফাঁসিয়ে দেবেন বলে হুমকি দেন। যা নিয়ে রীতিমতো হইচই শুরু হয়।

ঘটনার সূত্রপাত কয়েকদিন আগে। একটি টাস্ক চলাকালীন নিকি রুবিনা (Rubina Dilaik)-র টিম থেকে পয়েন্ট কালেক্ট করতে তাঁর টিমে যান কিন্তু শেষমেশ দেবলীনার সঙ্গে কথা কাটাকাটি শুরু হয় তাঁর। এবং সেই কথা কাটাকাটি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে অবশেষে Me Too-র কথা ওঠে। নিকি বলেন, কিছু দিন আগে সিদ্ধার্থকে Me Too-তে ফাঁসিয়ে দেবেন বলে হুমকি দেন দেবলীনা। আর তার পরই এই নিয়ে সমালোচনা শুরু হয় বিগ বসের ঘরে।


একে একে আরশি খান (Arshi Khan), বিকাশ গুপ্তা (Vikas Gupta)-সহ অনেকেই দেবলীনার বিরুদ্ধে সরব হন এবং এই কাজের নিন্দা করেন।

এদিকে, এক দিকে যখন Me Too-র অভিযোগ উঠছে দেবলীনার বিরুদ্ধে, তখন তিনিও ছাড়েননি নিকিকে। ব্যক্তিগত আক্রমণের পথে হেঁটে নিকিকে তাঁর বেশ কয়েকজন প্রাক্তন সঙ্গীর নাম করে আক্রমণ করতে থাকেন দেবলীনা। ওঠে জান কুমার শানু (Jaan Kumar Sanu)-র নামও।

Me Too-র বিষয়টি দেবলীনা স্বীকার করে নেন। এবং পরে তিনি জানান, ইজাজের জায়গায় বিগ বসের ঘরে আসায় তিনি আগের কিছুই জানতেন না। তবে, পুরো যা যা ঘটেছিল, Me Too-র কথাটি বলার সময় তা পুরোটাই বিশ্লেষণ করেন রুবিনার কাছে।

দেবলীনার এই ঘটনায় রুবিনা জানান, একটি টাস্ক চলাকালীন মাথা গরম হয়ে গিয়েছিল দেবলীনার এবং তিনি সে কারণে এমনটা বলে ফেলেন। এবং পরে বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধার্থের সঙ্গে ঝামেলা মিটিয়ে নিয়েছেন।

আসলে আগের পর্বে সেই টাস্ক চলাকালীন একটা সময় দেবলীনা, রশমি দেশাই (Rashami Desai), শেফালি বগ্গা (Shefali Bagga) ও মাহিরা শর্মা (Mahira Sharma) বার বার একটি মাটির সিঁড়ি বানানোর চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই সিদ্ধার্থ সেটি ভাঙতে শুরু করেন। তাই তাঁরা প্রত্যেকে সিদ্ধার্থকে সেখান থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। এবং যখন সিদ্ধার্থ ওই সিঁড়ির দিকে আবার ফিরে আসার চেষ্টা করেন তখন প্রত্যেকেই তাঁকে বলেন যেন মহিলাদের গায়ে হাত না দেন। সেই সময়ই দেবলীনা বলেন, গায়ে হাত দিলে Me Too-র অভিযোগ তুলবেন!

Published by:Piya Banerjee
First published: