• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে জানেন না ‘বিম্ববতী’ অদ্রিজা ! কিন্তু কেন ?

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে জানেন না ‘বিম্ববতী’ অদ্রিজা ! কিন্তু কেন ?

নায়িকার মুখে এ কী কথা ! ছবি: ইনস্টাগ্রামের সৌজন্য ৷

নায়িকার মুখে এ কী কথা ! ছবি: ইনস্টাগ্রামের সৌজন্য ৷

সেকি! আজকের যুগের মেয়ে হয়ে নায়িকার মুখে একি কথা ? সত্যিই নাকি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে জানেন না ‘সন্ন্যাসী রাজা’র জনপ্রিয় নায়িকা বিম্ববতী থুড়ি অদ্রিজা রায় !

  • Share this:

    #কলকাতা: সেকি! আজকের যুগের মেয়ে হয়ে নায়িকার মুখে একি কথা ? সত্যিই নাকি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে জানেন না ‘সন্ন্যাসী রাজা’র জনপ্রিয় নায়িকা বিম্ববতী থুড়ি অদ্রিজা রায় ! এমনিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুন অ্যাকটিভ অদ্রিজা ৷ তাঁর ফেসবুক আর ইনস্টাগ্রাম পেজ ভরে থাকে নিত্য নতুন আপডেটে ৷ কখনও শুটিং ফ্লোরের বিভিন্ন মুহূর্ত, কখনও তাঁর মিষ্টি মিষ্টি দুষ্টুমি, কখনও বা বন্ধুদের সঙ্গে হ্যাংআউট ৷ দর্শকদের প্রিয় মেজবৌ রানির তাঁর জীবনের বিশেষ মুহূর্তগুলি প্রায়ই শেয়ার করেন ফ্যানকূলের সঙ্গে ৷ এবারও তেমনই একটি পোস্টে শেয়ার করলেন এই সিক্রেট ৷ তিনি নাকি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে জানেন না ৷ তাহলে কী ব্যবহার করেন নায়িকা ? নিজের মুখে জানিয়েছেন হোয়াটসঅ্যাপের বদলে নাকি ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি ব্যবহার করেন তিনি ৷ ভাবা যায় ?

    আরও পড়ুন:স্তনের গঠন ঠিক করুন, বলা হয়েছিল বলিউডের প্রথম সারির এই অভিনেত্রীকে

    দাঁড়ান দাঁড়ান ৷ অত সিরিয়াস হবেন না ৷ ভাবছেন এগুলো সত্যি কথা ? নাহ! আসলে একটু মজা করেছেন অদ্রিজা ৷ পর্দায় তাঁর প্রতিপক্ষ ‘ডাক্তার ঠাকুরপো’ অর্থাৎ রোহিত সামন্তর সঙ্গে মিউজিক্যালি ভিডিও থেকে একটি মজা ভিডিও তৈরি করেছেন তিনি ৷ সেই ভিডিওটিতেই নায়িকাকে এমন কথা বলতে শোনা গিয়েছে ৷ রোহিত ওই ভিডিওতে অদ্রিজাকে জিজ্ঞাসা করেছেন, তিনি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন কিনা ৷ তার উত্তরে বিম্ব জানিয়েছে, সে ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি ব্যবহার করতে পারে ৷ তাতে বিরক্ত হয়ে নায়িকাকে ‘আম্মা’ হিসাবে সম্বোধন করে রোহিত জিজ্ঞাসা করেছেন, তিনি হোয়াটসঅ্যাপ চালাতে পারেন কিনা সে ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হচ্ছে ৷ এরপর অদ্রিজা উত্তর দেন, ‘তুমি তো চালাতে পারো ৷ তুমি চালাবে আমি পিছনে বসে থাকব ৷’ ইতিমধ্যেই সাড়ে ১৪ হাজার ভিউ হয়েছে ভিডিওটিতে ৷

    আরও পড়ুন:সুপারস্টার জিৎ-এর বাড়ি থেকে উদ্ধার হল অনেক বছরের পুরনো গুপ্তধন !

    First published: