কৃষকদের নিয়ে রিহানার টুইটের পরেই আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্বরা আন্দোলনের সমর্থনে সরব

কৃষকদের নিয়ে রিহানার টুইটের পরেই আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্বরা আন্দোলনের সমর্থনে সরব

মার্কিন পপ তারকা রিহানা, পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ সহ বহু আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব কৃষকদের সমর্থনে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন।

মার্কিন পপ তারকা রিহানা, পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ সহ বহু আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব কৃষকদের সমর্থনে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন।

  • Share this:

    #দিল্লি: কেন্দ্রের তিন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। সেই আন্দোলন পৌঁছেছে আন্তর্জাতিক স্তরে। মার্কিন পপ তারকা রিহানা, পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ সহ বহু আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব কৃষকদের সমর্থনে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন। তাঁদের টুইটের জেরেই আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে এই আন্দোলন বিরাট জায়গা করে নিয়েছে।

    শুধু রিহানা ও গ্রেটা নন। এছাড়াও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইংল্যান্ডের কয়েকজন আইন প্রণেতা এই আন্দোলনের সমর্থনে টুইট করেছেন। গত দুমাসের বেশি সময় ধরে এই আন্দোলন করছেন কৃষকরা। সাধারণতন্ত্র দিবসে এই আন্দোলন চরম রূপ নেয়। পুলিশ ও কৃষকদের মধ্যে অশান্তিতে হিংসা ছড়ায় রাজধানীতে। তার পরেই বিভিন্ন জায়গায় তৈরি করা হয়েছে ব্যারিকেড এবং কড়া নিরাপত্তা মোতায়েন করা হয়েছ।

    রবিবার মার্কিন তারকা রিহানা কৃষক আন্দোলনের একটি প্রতিবেদন শেয়ার করে লেখেন, "আমরা কেন ই বিষয়টি নিয়ে কোনও কথা বলছি না? #FarmerProtest." ব্রিটিশ রাজনীতিক ক্লডিয়া ওয়েবেও কৃষকদের সমর্থনে টুইট করেন। রিহানার টুইট শেয়ার করে তিনি লেখেন, "ভারতের কৃষকদের প্রতি সংহতি। ধন্যবাদ রিহানা।" তিনিও #FarmerProtest- এই হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেন।

    আন্তর্জাতিক স্তরে কৃষকদের আন্দোলন নিয়ে কথা হচ্ছে দেখে নড়েচড়ে বসেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। একটি বিজ্ঞপ্তি থেকে বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভারতের মোট কৃষকদের কিছু সংখ্যকই আন্দোলন করছেন। এই ধরনের বিষয়ে নিয়ে মন্তব্য করার আগে আমরা বিষয়টিকে ঠিক করে অনুধাবন করার অনুরোধ করছি। সেলেব্রিটিদের দ্বারা চাঞ্চল্যকর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট ও হ্যাশট্যাগ দিয়ে উত্তেজনা তৈরি করা মোটেই দায়িত্বপূর্ণ ও কাজ নয়।

    রিহানার টুইটারে ফলোয়ার সংখ্যা ১০০ মিলিয়ন। সেই সংখ্যক মানুষের উদ্দেশে তিনি লিখেছেন, কেন কেউ কৃষক আন্দোলন নিয়ে কোনও কথা বলছেন না। আর তার পরেই টুইটারে এই বিষয়টি নিয়ে তুমুল আলোচনা শুরু হয়। মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের ভাইঝি মীনা হ্যারিসও এই কৃষক আন্দোলনের সপক্ষে কথা বলেছেন।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: