মার্ভেল হোক বা DC, দু'টি ব্যানারেই দাপিয়ে অভিনয় করেছেন যে সমস্ত তারকারা!

মার্ভেল হোক বা DC, দু'টি ব্যানারেই দাপিয়ে অভিনয় করেছেন যে সমস্ত তারকারা!

মার্ভেল হোক বা DC, দু'টি ব্যানারেই দাপিয়ে অভিনয় করেছেন যে সমস্ত তারকারা!

এমন কয়েকজন অভিনেতা-অভিনেত্রী রয়েছেন, যাঁরা দু'টি ব্যানারেই অভিনয় করেছেন। অভিনয় দক্ষতার জোরে জিতে নিয়েছেন দর্শকদের মন।

  • Share this:

    একদিকে মার্ভেল ফিল্মস (Marvel Films)। আর অন্যদিকে ডিসি এক্সটেন্ডেড ইউনিভার্স ফিল্মস (DC Films)। এই দুই ছবি নির্মাতা সংস্থার সুপারহিরোদের ঘিরে প্রায়শই সাড়া পড়ে যায় বলিউডে। এক্ষেত্রে এমন কয়েকজন অভিনেতা-অভিনেত্রী রয়েছেন, যাঁরা দু'টি ব্যানারেই অভিনয় করেছেন। অভিনয় দক্ষতার জোরে জিতে নিয়েছেন দর্শকদের মন। আসুন দেখে নেওয়া যাক সেই সমস্ত তারকাদের!

    ক্রিশ্চিয়ান বেল (Christian Bale)

    থর: লাভ অ্যান্ড থান্ডার (Thor: Love and Thunder) সিনেমায় ভিলেনের চরিত্রে দেখা যাবে ক্রিশ্চিয়ান বেলকে। তবে দ্য ডার্ক নাইটের (The Dark Knight ) ট্রিলজির হাত ধরে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছেছেন এই তারকা।

    রায়ান রেনল্ডস (Ryan Reynolds)

    ২০১১ সালের DC-র সুপারহিরো ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যায় তাঁকে। X-Men ফ্র্যাঞ্চাইজির ডেডপুল ২ (Deadpool 2) সিনেমাতেও প্রশংসা কুড়িয়েছিল তাঁর অভিনয়।

    টম হার্ডি (Tom Hardy)

    ২০১২ সালের দ্য ডার্ক নাইট রাইজেস (The Dark Knight Rises)-এ মার্ভেল অ্যান্টি হিরো ভেনমের অবতারে দেখা যায় টম হার্ডিকে। ২০১৯ সালে থর: দ্য ডার্ক ওয়ার্ল্ড (Thor: The Dark World) সিনেমায় থরের বন্ধু ফ্যান্ড্রালের চরিত্রেও দাপুটে অভিনয় করেন।

    হ্যালি বেরি (Halle Berry)

    ২০০০ সালে এক্স মেন (X-Men) সিরিজে প্রথমবার দেখা যায় হ্যালি বেরিকে। এর পর ২০০৩ সালে এক্স মেইন ইউনাইডেট (X-Men United) সিরিজে দেখা যায় এই তারকাকে। পরের দিকে ২০০৪ সালে ক্যাটউওম্যানে (Catwoman) অভিনয় করেন তিনি।

    বেন অ্যাফলেক (Ben Affleck)

    প্রিয় ব্যাটম্যানকে এক সময় ডেয়ার ডেভিলের চরিত্রে দেখা গিয়েছিল। ২০০৩ সালে মার্ভেলের ব্যানারে ডেয়ার ডেভিলের চরিত্রে অভিনয় করেন অ্যাফলেক। তবে সেই চরিত্র ততটা হিট করেনি। এর পর ব্যাটম্যান রূপে জনপ্রিয়তা পান। ২০১৬ সালে ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান: ডন অফ জাস্টিস (Batman Vs Superman: Dawn of Justice), ২০১৭ সালে জাস্টিস লিগ (Justice League) ও জ্যাক স্নাইডারের (Zack Snyder) জাস্টিস লিগেও দেখা যায় ব্যাটম্যানকে। এগুলির পাশাপাশি সুইসাইড স্কোয়াডেও (Suicide Squad) ক্যামিও রোলে দেখা যায় বেন অ্যাফলেককে।

    মাইকেল কিটন (Michael Keaton)

    ১৯৮৯ সালে ব্যাটম্যান (Batman) ও ১৯৯২ সালে ব্যাটম্যান রিটার্নস (Batman Returns) ছবিতে দর্শকদের মনে ছাপ ফেলেছিলেন মাইকেল কিটন। এগুলি ছাড়াও স্পাইডার ম্যান: হোম কামিং (Spider-Man: Homecoming) সিনেমায় দেখা যায় তাঁকে।

    জে কে সিমনস (JK Simmons)

    জে জোনাহ জেমসন। জে কে সিমনসের এই আইকনিক চরিত্র আজও ভোলা যায় না। পরের দিকে ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত স্পাইডার ম্যান: ফার ফ্রম হোম (Spider-Man: Far From Home) সিনেমায় ফ্যানেদের রীতিমতো চমকে দেন সিমনস। এগুলির পাশাপাশি ২০১৬ সালের ছবি জাস্টিস লিগে (Justice League) কমিশনার জেমস গর্ডনের চরিত্রে দেখা যায় তাঁকে। ২০২১ সালেও জ্যাক স্নাইডারের (Zack Snyder) জাস্টিস লিগেও একই ভূমিকায় দেখা যাবে।

    ড্যানি হাস্টন (Danny Huston)

    X-Men Origins: Wolverine-এ জেনেরাল উইলিয়াম স্ট্রাইকারের চরিত্রে দেখা যায় ড্যানি হাস্টনকে। পরের দিকে DCEU সিনেমা ওয়ান্ডার উওম্যানে অভিনয় করেন তিনি। এই ছবিতে জার্মান রাজনীতিবিদ এরিখ লাডেনড্রফের (Erich Ludendorff) ভূমিকায় দেখা যায় তাঁকে।

    তাও ওকামোটো (Tao Okamoto)

    ২০১৩ সালের দ্য উলভারিনে (The Wolverine) মারিকো যশিদার (Mariko Yashida) চরিত্রে দেখা যায় তাও ওকামোটোকে এই রকম একটি সফল সুপারহিরো সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি অনেক ছোটখাটো চরিত্রেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। ২০১৬ সালের ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান (Batman Vs Superman: The Dawn of Justice) ছবিতে লেক্স লুথারের সেক্রেটারির একটি ছোট চরিত্রে দেখা যায় তাঁকে।

    উইলিয়াম ড্যাফো (Willem Dafoe)

    কমিক বুক ফ্যানেদের কাছে দারুণ জনপ্রিয় উইলিয়াম ড্যাফো। গ্রিন গোবলিনের সেই চরিত্র চিরস্মরণীয় হয়ে রয়েছে। ২০০০-এর শুরুর দিকে স্পাইডার ম্যানে (Spider-Man) দেখা গিয়েছে তাঁকে। পরের দিকে DC-র অ্যাকুয়াম্যানে (Aquaman) নুইডিস ভালকো (Nuidis Vulko) হিসেবে ধরা দিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি জ্যাক স্নাইডারের (Zack Snyder) জাস্টিস লিগে (Justice League) দেখা গিয়েছিল উইলিয়াম ড্যাফোকে।

    First published:
    0