• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • GOSSIP HARBHAJAN SINGH WIFE ACTRESS GEETA BASRA SAYS SHE SUFFERED TWO MISCARRIAGES BEFORE SON JOVAN BIRTH PBD

সন্তানের জন্মের আগে দু-দুবার গর্ভপাত হয়েছে অভিনেত্রীর, ক্রিকেটার স্বামী ছিলেন সবসময় পাশে

গীতা বসরা-হরভজন সিং

প্রথমবার যখন তাঁর গর্ভপাত হয়, তখন স্বামী পাশে ছিলেন না৷ খবর পেয়ে তিনি চলে আসেন৷

  • Share this:

    #মুম্বই: সন্তান জন্মের পর মুখ খুললেন অভিনেত্রী৷ স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন যে এর আগে দু’বার মিসক্যারেজ বা গর্ভপাত হয়েছিল তাঁর৷ তাই তিনি খুবই ভীত ছিলেন৷ তবে সবকিছু স্বাভাবিক ভাবে হয়ে যাওয়ার পর এবার তিনি সকলের উদ্দেশ্যে বার্তা দিলেন৷ তিনি বললেন যে গর্ভপাত হলেই ঘাবড়ে যাওয়ার কিছু নেই৷ মন খারাপ হতে নিশ্চিত, তবে তা কাটিয়ে ফের সন্তান ধারণের জন্য চেষ্টা করতে হবে৷ এভাবে যারা ফ্যামিলি প্ল্যনিং করছেন, তাঁদের কাছে নিজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরলেন হরভজন সিং-এর (Harbhajan Singh wife Geeta Basra) স্ত্রী, অভিনেত্রী গীতা বসরা ( Actress Geeta Basra)৷

    কিছুদিন আগেই জন্ম নিয়েছে হরভজন-গীতার ছেবে জোভান৷ তাঁদের এক কন্যা সন্তানও রয়েছে৷ তার নাম হিনায়া৷ হিনায়ার পর দ্বিতীয় সন্তানের চেষ্টা করছিলেন হরভজন ও গীতা৷ তখন পরপর গীতার গর্ভপাত হয়৷ তিনি খুবই মর্মাহত হন৷ গত দু’বছর খুবই ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা হয়েছিল আমার৷ তবে নিজেকে ভেঙে পড়তে দিনি কোনওভাবে৷ মিসক্যারেজের পর একজন মহিলার শরীরে নানা রকমের সমস্যা দেখা যায়৷ বিশেষ করে তাঁর শরীরে কিছু হরমোনের মাত্রা বাড়ে এবং কমে৷ যার জেরে মানসিক স্বাস্থ্যের উপর চাপ পড়ে৷ এগুলো কাটিয়ে স্বাভাবিক জীবনযাপন অত্যন্ত সমস্যার হয়ে পড়ে৷ তবে আমি নিজেকে নানাভাবে সামলেছিলাম৷ বলছেন হরভজন পত্নী৷

    প্রথমবার যখন তাঁর গর্ভপাত হয়, তখন স্বামী পাশে ছিলেন না৷ খবর পেয়ে তিনি চলে আসেন৷ তবে দ্বিতীয়বার লকডাউনের সময় গর্ভপাত হওয়ায় স্ত্রী গীতার সঙ্গেই ছিলেন হরভজন৷ এরপর গীতা চলে আসেন তাঁর শ্বশুরবাড়ি৷ সেখানে আরও একবার গর্ভবতী হন গীতা৷ প্রথম কয়েক মাস তিনি পুরোপুরি বিশ্রামে থাকেন৷ তারপর চিকিৎসকের পরামর্শ মতো তিনি যোগব্যায়াম শুরু করে৷ শেষের দিকে তিনি নিয়মিত হাঁটতেনও৷ এরপর ফুটফুটে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি৷ ১০ জুলাই জন্ম হয় হরভজন সিং ও গীতা বসরার পুত্র জোভন ভির সিং প্লাহার৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় সে খবর জানান তারকা দম্পতি৷ এবং সকলকে ধন্যবাদ জানান তাঁরা৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: