স্বামীর হাতে রোজ মার খেতেন প্রয়াত অভিনেত্রী দিব্যা ভটনাগর ! পুলিশের দ্বারস্থ পরিবার !

স্বামীর হাতে রোজ মার খেতেন প্রয়াত অভিনেত্রী দিব্যা ভটনাগর ! পুলিশের দ্বারস্থ পরিবার !

তিনি নিয়মিত দিব্যাকে মারধর করতেন, তাঁর সব গয়নাও কেড়ে নিয়েছিলেন! স্বামীর এই অত্যাচার দিব্যাকে মানসিক দিক থেকে সম্পূর্ণ ভেঙে দিয়েছিল।

তিনি নিয়মিত দিব্যাকে মারধর করতেন, তাঁর সব গয়নাও কেড়ে নিয়েছিলেন! স্বামীর এই অত্যাচার দিব্যাকে মানসিক দিক থেকে সম্পূর্ণ ভেঙে দিয়েছিল।

  • Share this:

    #মুম্বই:  সোমবারই বলিউড (Bollywood) তোলপাড় হয়েছে ছোটপর্দার জনপ্রিয় নায়িকা দিব্যা ভটনাগরের (Divya Bhatnagar) মৃত্যুতে। মাত্র ৩৪ বছরে সবাইকে বিদায় জানিয়েছেন দিব্যা, সেটা নিঃসন্দেহেই মর্মান্তিক ব্যাপার। পাশাপাশি, তাঁর মৃত্যুর কারণ যে করোনা (Coronavirus), সেটাও আতঙ্কের আবহ তৈরি করেছে পরিচিত এবং ভক্তদের মধ্যে।

    সব মিলিয়ে প্রিয় বন্ধুর এই অকালপ্রয়াণে গত কাল থেকেই ভেঙে পড়েছিলেন ছোট পর্দার আর এক জনপ্রিয় অভিনেত্রী দেবলীনা ভট্টাচার্য। বন্ধুর করোনার কারণে মৃত্যুতে তিনি শোক প্রকাশ তো করেই ছিলেন। সেই সঙ্গে অভিনেত্রী আরও একটি বিষয় নিয়ে মুখ খোলেন। প্রিয় বন্ধুর জন্য সুবিচারের দাবিতে সরব হয়েছেন দেবলীনা। তাঁর পোস্ট বলছে যে দিব্যা তাঁর স্বামীর কাছে নিয়মিত পারিবারিক হিংসার (Domestic Viloence) শিকার হতেন! দেবলীনার দাবি- গগন গাবরু (Gagan Gabru) দিব্যার ভালোমানুষির সুযোগ নিয়েছিলেন। ভালোবাসার অভিনয় করে তিনি দিব্যাকে বিয়েতে রাজি করান! দিব্যাও সেই ফাঁদে পা রাখেন, পরিবারের অমতে বিয়ে করেন গগনকে!

    এর পরেই ধীরে ধীরে গগনের স্বরূপ প্রকাশ পায়! তিনি নিয়মিত দিব্যাকে মারধর করতেন, তাঁর সব গয়নাও কেড়ে নিয়েছিলেন! স্বামীর এই অত্যাচার দিব্যাকে মানসিক দিক থেকে সম্পূর্ণ ভেঙে দিয়েছিল, দাবি করেছেন দেবলীনা। দেবলীনা আরও জানিয়েছেন যে গগনের ক্রিমিনাল রেকর্ডও রয়েছে! সিমলা (Shimla) পুলিশ স্টেশনে গগনের নামে ধর্ষণের (Molestation) অভিযোগ জমা হয়েছিল, ছয় মাস জেলও খাটতে হয়েছিল তাঁকে। এখনও সেই মামলা চললছে, তার নিষ্পত্তি হয়নি! নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল মারফত দেবলীনা দাবি তুলেছেন যে অসুস্থতার সময়ে স্ত্রীর পাশে একবারের জন্যেও এসে দাঁড়াননি গগন! এ কথা জানাআনি হওয়ার পরই শোরগোল শুরু হয়।

    জানা গিয়েছে এবার দিব্যার পরিবারও আইনি ব্যবস্থা নিতে চায় গগনের বিরুদ্ধে। তাঁরা পারিবারিক নির্যাতনের ও মহিলা নির্যাতনের কেস করতে চান গগনের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে দিব্যার পরিবারের সঙ্গে কথা বলা হলে তাঁর ভাই জানান, তাঁরা পুলিশের কাছে যাবেন। এছাড়াও তিনি জানান, দিব্যার মৃত্যুর পর আলমারি থেকে একটি নোট পেয়েছেন তাঁর পরিবার। যেখানে দিব্যা লিখে গিয়েছেন, কিভাবে অত্যাচার করতো গগন। মানসিক এবং শারীরীক অত্যাচারের শিকার হতে হয়েছে তাঁকে। এমনকি সুইসাইড করতেও চেয়েছিলেন দিব্যা। এই নোট পাওয়ার পরই পুলিশে অভিযোগ জানাচ্ছে দিব্যার পরিবার।

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    লেটেস্ট খবর