Home /News /education-career /
US Study: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনার স্বপ্ন? কীভাবে উপযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় খুঁজে পাবেন?

US Study: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনার স্বপ্ন? কীভাবে উপযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় খুঁজে পাবেন?

অবশ্যই জানুন

অবশ্যই জানুন

US Study: বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থান, ফান্ডিং, ক্লাসের ছাত্র সংখ্যা, ফ্যাকাল্টি, ক্যাম্পাসের কার্যক্রম এবং প্লেসমেন্ট জাতীয় এমন অনেক বিষয় রয়েছে যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চ স্তরে পড়াশোনার পরিকল্পনা করার সময় ছাত্রছাত্রীদের বিবেচনা করা উচিত।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

SPAN Magazine:

#নয়াদিল্লি: নিজের জন্য উপযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় খোঁজা একটি চ্যালেঞ্জিং বিষয়। শিক্ষার্থীরা কীভাবে তাঁদের ব্যক্তিগত স্বপ্ন পূরণ করতে এবং সফল হতে নিজেদের জন্য সঠিক বিশ্ববিদ্যালয় বেছে নেবেন তা নিয়ে সকলেই চিন্তায় থাকেন। কোন বিশ্ববিদ্যালয় ভালো, কোন বিষয়ে ভালো ভবিষ্যৎ গড়তে পারে, আবার বিশ্ববদ্যালয় ভালো হলেও সকল শিক্ষার্থীদের উপযুক্ত কি না এই জাতীয় নানা প্রশ্ন থেকেই যায়। ছাত্রছাত্রীরা কীভাবে তাঁদের পছন্দ এবং প্রতিভা অনুযায়ী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে উপযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় বেছে নেবেন সেই বিষয়ে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের এবং বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের মতামত নিয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থান, ফান্ডিং, ক্লাসের ছাত্র সংখ্যা, ফ্যাকাল্টি, ক্যাম্পাসের কার্যক্রম এবং প্লেসমেন্ট জাতীয় এমন অনেক বিষয় রয়েছে যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চ স্তরে পড়াশোনার পরিকল্পনা করার সময় ছাত্রছাত্রীদের বিবেচনা করা উচিত। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় আবেদন করার সময় শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের র‍্যাঙ্কিং বা ব্র্যান্ড ভ্যালুর উপর খুব বেশি জোর দিয়ে থাকেন- যদিও র‍্যাঙ্কিং একটি প্রতিষ্ঠানের সামগ্রিক অ্যাকাডেমিক পরিবেশের মূল্যায়নের করতে পারে না। এই কারণে একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের উপর ভিত্তি করেই ভর্তির সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত নয়।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্বাচন করার সময় শিক্ষার্থীদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কোন বিষয়গুলি মনে রাখা উচিত? ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সাময়িক সিনিয়র সহকারী পরিচালক এবং আন্তর্জাতিক দলের ব্যবস্থাপক ক্যামেরন সদাফি (Cameron Sadafi) বলেছেন, “আমার অভিজ্ঞতায় এই প্রশ্নের একটিই উত্তর আছে। নির্দিষ্ট একটি কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় আপনার চাহিদা এবং ইচ্ছা কতটা পূরণ করছে সেটাই আপনার জন্য যোগ্য কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ার পরিমাপ হতে পারে।”

তিনি বলেন, “আমি শিক্ষার্থীদের প্রায়ই ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের র‍্যাঙ্কিং নিয়ে মাতামাতি করতে দেখি। তবে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের র‍্যাঙ্কিং বিচার করে যদি শিক্ষার্থীরা নিজেরা ভর্তি হওয়ার কথা ভাবে তাহলে সেক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরা তাঁদের চাহিদা পূরণের প্রাসঙ্গিকতা হারাতে পারেন।”

বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন করার কারণ সম্পর্কে প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হলে সদাফি পরামর্শ দেন, অ্যাকাডেমিক, সামাজিক, পরিবেশগত, আর্থিক এবং প্রফেশনাল এই সমস্ত দিকগুলিই গুরুত্বপূর্ণ।

তাঁর বক্তব্য, “আপনার ব্যক্তিগত প্রয়োজনের সঙ্গে এই বিষয়গুলির মানানসই যে কোনও কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে আপনাকে সাফল্য দিতে পারে। ছাত্রের প্রয়োজনীয়তা এবং ইচ্ছার সঙ্গে মিলে যাওয়ার বিষয়টি যে কোনও বিশ্ববিদ্যালয়ের র‍্যাঙ্কিংয়ের চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।”

এর সঙ্গের তিনি এও বলেন, “আপনার ব্যক্তিগত সাফল্যের জন্য একটি কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় বেছে নেওয়ার সময় এই কারণগুলির (উপরোক্ত) মধ্যে কোনটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তা চিহ্নিত করা প্রয়োজন। আপনার কী প্রয়োজন এবং কী চাহিদা নিজেকে জিজ্ঞাসা করুন, আপনার পরিবারকে জিজ্ঞাসা করুন তাঁদের কী প্রয়োজন এবং আপনার কাছ থেকে কী আশা করেন তাঁরা। প্রতিটি ইউনিভার্সিটি কী অফার করে তা জিজ্ঞাসা করুন এবং নিজের জন্য উপযুক্ত ইউনিভার্সিটি খুঁজে পেতে এই কারণগুলির প্রতিটির সঙ্গে আপনার এবং আপনার পরিবারের কাছে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি কতটা সম্পর্কিত তা যাচাই করুন।”

ইউনাইটেড স্টেটস ডিপার্টমেন্ট অফ এডুকেশন ডিগ্রি প্রদানকারী প্রায় ৪০০০ অ্যাকাডেমিক প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রকাশ করেছে যা সম্ভাব্য শিক্ষার্থীদের সঠিক বিশ্ববিদ্যালয় অনুসন্ধানের চাহিদা পূরণ করে। ভার্জিনিয়া টেকের আন্তর্জাতিক অ্যাডমিশন কমিটির সহকারী পরিচালক টাইলার অক্সলে (Tyler Oxley) বলেছেন, এটা বোঝা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অংশে বিভিন্ন ধরনের বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে।

তিনি বলেন, “বড় বড় গবেষণামূলক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে বা ছোট পাবলিক স্কুল আছে যেগুলি বিভিন্ন ছোট বড় শহরে অবস্থিত। সুতরাং, ছাত্রছাত্রীরা একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঠিক কী খুঁজছেন তা চিহ্নিত করতে বা খুঁজে বের করার চেষ্টা করতে বলব। তাঁরা কী চান? একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের মানদণ্ডের সাথে মানানসই প্রোগ্রাম রয়েছে কিনা তা আগে খুঁজে বের অতন্ত্য প্রয়োজনীয়।”

বিকল্প অনুসন্ধানের বিভিন্ন উপায়

শিক্ষার্থীরা স্কুল বা ডিগ্রি থেকে ভবিষ্যতে কী চান তা বেছে নিতে বিভিন্ন রকমের পন্থা বেছে নিতে পারেন। নৈমিষ উপাধ্যায় (Naimish Upadhyay) নামে একজন প্রাক্তন শিক্ষার্থী বলেছেন যে ভবিষ্যতে ছাত্ররা কী চান তার একটি খসড়া তৈরি করতে হবে। উদ্দেশ্যের বিবৃতির এই খসড়া তৈরির প্রক্রিয়াটি তাঁদের ভাবতে বাধ্য করবে যে কী বিষয়ে অধ্যয়ন করতে চান তাঁরা। একটি ডিগ্রি থেকে পাওয়া অর্জিত জ্ঞানকে তাঁরা ভবিষ্যতে কোথায় লাগাতে চান ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর পেলে শিক্ষার্থীরা খুব সহজেই নিজের জন্য উপযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় বেছে নিতে পারবেন। নৈমিষ ২০০৯ সালে ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিবেশ বিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

গৌরী তলওয়ার (Gouri Talwar) নামে অন্য একজন প্রাক্তনী বলেন প্রথমে তাঁর একাধিক বিষয়ে আগ্রহ ছিল এবং তিনি সেই সবকিছু নিয়ে পড়াশোনা করতে চেয়েছিলেন। তিনি বার্নার্ড কলেজে ভর্তি হন তবে তাঁর মেজর নিউ ইয়র্ক সিটির কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ছিল। গৌরী গণিত এবং অর্থনীতি, দুটি বিষয়ে মেজর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি বেছে নেওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, “তাদের অ্যাকাডেমিক প্রোগ্রাম খুবই আকর্ষণীয় ছিল এবং ক্যাম্পাসের ছাত্র জীবন স্বাধীন ছিল। আমি মূলত গণিত এবং নৃত্য অধ্যয়ন করতে চেয়েছিলাম এবং খুব কম কলেজ ছিল যা এই দুটি বিষয়েই ভালো।”

তলওয়ার মুম্বাইতে বড় হয়েছেন। তিনি জানতেন যে তিনি একটি শহরের কলেজেই পড়াশোনা করতে চান। তাঁর বক্তব্য, “আমি মানুষের আশেপাশে থাকতে, ভিড়ের আশেপাশে থাকতে খুব অভ্যস্ত ছিলাম। আমি বুঝতে পেয়েছিলাম যে একটি গ্রামীণ ক্যাম্পাস আমার জন্য ভাল বিকল্প হবে।”

শহরে পড়াশোনা করলে কর্মজীবন শুরু করতেও অনেক সুবিধা পাওয়া যায়। ওহাইয়ো স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে স্থাপত্যে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনকারী মুম্বইয়ের বাসিন্দা আতিতা শেঠি (Atita Shetty) বলেছেন যে বিশ্ববিদ্যালয় বেছে নেওয়ার সময় তিনি নিজেই রিসার্চ করে সঠিক বিকল্প বেছে নেন। এছাড়া তাঁর স্নাতক স্তরের কলেজের অধ্যাপক এবং উপদেষ্টারা তাঁকে কিছুটা সাহায্য করেন। তিনি বলেন, “বড় শহরগুলিতে বা শহরের কাছাকাছি বসবাস করলে ভালো চাকরির সম্ভাবনা বেশি বেড়ে যায়।”

আরও পড়ুন: এসএসসি-তে নিয়োগ, ৬৮৬১ পদের বিজ্ঞপ্তি জারি করল স্কুল শিক্ষা দফতর

শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ক রিসার্চ

অনেক শিক্ষার্থী আছেন যাঁরা আবেদনের আগে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলি পছন্দ তাদের নিয়ে অনেক বেশি গবেষণা করেন। ঈশ্বর শেষাদ্রি (Ishwaar Sheshadri) নামে একজন প্রাক্তন ছাত্র বলেন, “প্রথম পদক্ষেপটি ছিল স্পষ্টভাবে বোঝা যে আমি স্নাতক প্রোগ্রাম থেকে কী চাই। যেহেতু আমি প্রথম দিকে খোঁজাখুঁজি করা শুরু করেছিলাম, তাই আমি কী পছন্দ করি এবং কী না তা সম্পর্কে আমার কিছুটা স্পষ্ট ধারণা ছিল।” ঈশ্বর ২০১৯ সালে ইউনিভার্সিটি অফ মেরিল্যান্ড থেকে বিজনেস অ্যানালিটিকস বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, “দ্বিতীয় ধাপ ছিল একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি প্রোগ্রাম কাঠামোর সঙ্গে কিভাবে ফিট করে তা বোঝা।” শেষাদ্রির গবেষণায় শ্রেণীকক্ষের অভিজ্ঞতা এবং আর্থিক সহায়তা থেকে শুরু করে ভৌগোলিক অবস্থান এবং প্রাক্তন ছাত্রদের ফলাফলের বিষয়গুলি অন্তর্ভুক্ত ছিল।

আরও পড়ুন: সাফল্যের দরজা! মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক পড়ুয়ারা কী কী সুবিধা উপভোগ করেন?

ইউনিভার্সিটি অফ সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া ভিটারবি ইন্ডিয়া অফিসের ডিরেক্টর সুধা কুমার (Sudha Kumar) বলেছেন, “বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে খোঁজাখুঁজি সময়সাপেক্ষ কিন্তু নৈতিকতার বিচারে এটি আবশ্যিক।”

খোঁজাখুঁজি প্রক্রিয়া চলাকালীন শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে যে প্রশ্নগুলি জিজ্ঞাসা করতে পারেন তা হল - এটি কি তাঁদের মনের মতো কোর্স করার সুবিধা দিচ্ছে এবং এটি তাঁদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে কতটা সহায়তা করবে? কোর্সওয়ার্ক কি ব্যবহারিক বা তাত্ত্বিক এবং তাঁরা কী চান? বিশ্ববিদ্যালয়ের কি শিল্পের সঙ্গে এমন অংশীদারিত্ব রয়েছে যা তাঁদের প্রয়োজনীয়তার তালিকায় রয়েছে? বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ কেমন?

তিনি আরও বলেন, “প্রত্যেক ছাত্রছাত্রীর ক্ষেত্রে তাঁদের প্রয়োজনীয়তা এবং পছন্দ ভিন্ন হয়। শিক্ষার্থীদের এমন বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে আবেদন করা উচিত যেগুলি তাঁদের পছন্দ এবং চাহিদা মেটাতে পারবে।”

আবেদন প্রক্রিয়া জটিল এবং দীর্ঘ বলে মনে হলেও, প্রতি বছর প্রচুর সংখ্যক আন্তর্জাতিক ছাত্রছাত্রীরা সফলভাবে নিজেদের জন্য উপযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় খুঁজে পড়াশোনা করেন। বেশিরভাগই ডিগ্রি অর্জন করার পর ভালো যায়গায় চাকরি পেয়ে নিজের সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ে তুলেছেন। অক্সলি (Oxley) নামে একজন শিক্ষার্থী বলেছেন, “মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষাব্যবস্থা এতই বৈচিত্র্যময় যে সেখানে ছাত্রছাত্রীদের জন্য সবসময়ই সুযোগ রয়েছে। তাঁরা তাঁদের ইচ্ছেমতো বিশ্ববিদ্যালয় বেছে নিতে পারেন।”

First published:

Tags: SPAN Magazine, Study, US Study

পরবর্তী খবর