H.S Examination 2021: বাড়িতে বসেই উচ্চমাধ্যমিক? আজই বিশেষজ্ঞ কমিটির রিপোর্ট জমা পড়ার সম্ভাবনা

শুক্রবার বিশেষজ্ঞ কমিটির তৃতীয় দফায় বৈঠক। সেই বৈঠকেই বাড়ি থেকে বসেই ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দিতে পারেন নাকি, তা প্রস্তাব আকারে উল্লেখ থাকবে বলেই সূত্র মারফত খবর।

শুক্রবার বিশেষজ্ঞ কমিটির তৃতীয় দফায় বৈঠক। সেই বৈঠকেই বাড়ি থেকে বসেই ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দিতে পারেন নাকি, তা প্রস্তাব আকারে উল্লেখ থাকবে বলেই সূত্র মারফত খবর।

  • Share this:

#কলকাতাঃ পরীক্ষা নেওয়ার পক্ষেই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে নয়, তার বদলে বাড়ি থেকে বসেই ছাত্রছাত্রীরা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে পারে। অন্তত এমন প্রস্তাব গত দু'দফার বিশেষজ্ঞ কমিটির বৈঠকে রেখেছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ বলেই সূত্রের খবর। ছাত্র-ছাত্রীদের কথা মাথায় রেখে বাড়িতেই প্রশ্নপত্র পাঠিয়ে যাতে পরীক্ষা নেওয়া যায় সেই বিষয়ে সওয়াল করেছেন খোদ উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি মহুয়া দাস। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় বাড়িতে বসেই ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দিচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে উচ্চমাধ্যমিকে কেন সম্ভব নয়? এমনটাই গত দুই দফায় বৈঠকের প্রস্তাব আকারে রেখেছেন সংসদ সভাপতি বলেই সূত্রের খবর।

অন্যদিকে, শুক্রবার বিশেষজ্ঞ কমিটির তৃতীয় দফায় বৈঠক হবে। সেই বৈঠকেই এক প্রকার প্রস্তাব চূড়ান্ত হয়ে রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট জমা পড়বে বলেই সূত্রের খবর। প্রস্তাবে বাড়ি থেকে বসেই ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দিতে পারেন নাকি তা উল্লেখ থাকবে বলেই সূত্র মারফত খবর। উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের যুক্তি ইতিমধ্যেই প্র্যাক্টিকাল ও প্রোজেক্ট ওয়ার্কের নম্বর জমা পড়ে গিয়েছে সংসদের কাছে। সে ক্ষেত্রে সামান্য নম্বরেও হলেও পরীক্ষা নেওয়া প্রয়োজন ছাত্র-ছাত্রীদের স্বার্থে। প্রয়োজনে পিছনে যেতে পারে পরীক্ষা। পুজোর আগে বা পুজোর পরেও ফল প্রকাশ করা যেতে পারে। এমনটাই প্রস্তাব উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের বলেই সূত্রের খবর।

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহে হবে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। তারপর কেন্দ্রের তরফে সিবিএসই দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা বাতিল করার কথা ঘোষণা করা হয়।তার জেরে আইসিএসই বোর্ড ও দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা বাতিল ঘোষণা করে। তার জেরে গত বুধবার  মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সূচি ঘোষণা করার কথা থাকলেও তা স্থগিত রাখতে বলা হয় রাজ্যের তরফে দুই বোর্ডকে। পাশাপাশি রাজ্যের তরফে ছয় সদস্যের বিশেষজ্ঞ কমিটি ও তৈরি করে দেওয়া হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় রিপোর্ট জমা পড়ার পর দেখার রাজ্যের তরফে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়। তবে, এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Shubhagata Dey
First published: