corona virus btn
corona virus btn
Loading

নির্ভয়ার রেপের মামলায় আর্জির শুনানি, ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন দোষী অক্ষয় ঠাকুরের

নির্ভয়ার রেপের মামলায় আর্জির শুনানি, ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন দোষী অক্ষয় ঠাকুরের

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে ফের শুনানি হবে

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে ফের শুনানি হবে ৷ নির্ভয়া কাণ্ডের ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত অন্যতম দোষী অক্ষয় ঠাকুরের আবেদনের ভিত্তিতে হবে শুনানি ৷ ২০১৭ সালে অ্যাপেক্স আদালতে নির্ভয়া ধর্ষণ কাণ্ডে ফাঁসির শাস্তি ঘোষণা হয়েছিল৷ এর প্রেক্ষিতে ফাঁসির আবেদন মুকুবের জন্য আবেদন করেন তিনি ৷ প্রধানবিচারপতি এসএ বোবদে ও আর বানুমতি ও অশোক ভূষণের বেঞ্চে হবে শুনানি ৷ তাঁর আবেদনে বলা হয়েছে দিল্লির বায়ু দূষণ ও জল দূষণের পর এমনিতেই মানুষের  আয়ু কমে আসছে তাহলে আর আলাদা করে ফাঁসির সাজা কী প্রয়োজন ৷

এদিকে নির্ভয়ার মা এই আবেদনের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে গেছেন ৷ ফলে কাউন্সিল সেই আবেদনও শুনে নেবে ৷ এ বছরের জুলাই মাসের ৯ তারিখ অন্য তিন দোষী মুকেশ (৩০), পওয়ন গুপ্তা (২৩), বিনয় শর্মা (২৪)-র ফাঁসির সাজা মুকুবের আবেদন খারিজ করে দিয়েছিল ৷ তাদের শুনানিতে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল ২০১৭ -র সাজার পর আর কোনও কারণেই তাদের সাজা মুকুবের প্রশ্ন ওঠে না ৷ ২০১০-র ডিসেম্বরের ১৬-১৭ তারিখ দক্ষিণ দিল্লিতে চলন্ত বাসে ধর্ষণের ঘটনায় শিউড়ে উঠেছিল গোটা দেশ ৷ ২০১২-র ২৯ ডিসেম্বর সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে মৃত্যু হয় ওই ধর্ষিতার ৷ এই ধর্ষণ কাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত রাম সিং তিহার জেলেই আত্মহত্যা করেছিল ৷ এই মামলায় একজন অপ্রাপ্তবয়স্ককের শুনানি হয়েছিল জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডে ৷ পুর্নবাসন কেন্দ্রে তিন বছর থাকার পর তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয় ৷ ২০১৭ সালে দিল্লি হাইকোর্ট সর্বোচ্চ সাজা ফাঁসি ঘোষণা করে ৷

আরও পড়ুন - #IPLAuction2020: আইপিএলের নিলাম, এই ‘কোটিপতি’ ক্রিকেটাররা কি এবার দল পাবেন!

অক্ষয় ঠাকুরের আইনজীবী জানিয়েছেন তাঁর মক্কেল দিল্লির জেলে রয়েছে ৷ সেখানে তাঁকে যদি ফাঁসি দেওয়া হয় সেটা একেবারে ঠান্ডা মাথায় খুন করার মতো ৷ সে বদলে যাওয়ার কোনও সুযোগই পাচ্ছে না ৷ আইনজীবী জানিয়েছেন],‘মহিলাদের বিরুদ্ধে যারা কোনও কিছু করছে তাদের মেরে কোনও কিছু হবে না , রাজ্যকে সিস্টেম মেনে বদলের চেষ্টা করতে হবে ৷ যাতে পুরো সমাজ বদলায় ৷ ফাঁসি শুধুমাত্র অপরাধীদের শেষ করে অপরাধকে নয় ৷ ’

মৃত্যুর সাজা না দিয়ে অন্য কোনও সাজা দেওয়া হক এই নীতি মেনেই এই আবেদন করেছে অক্ষয় ঠাকুরের আইনজীবী ৷ সমস্ত রকম আবেদন শেষ হয়ে গেলে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা করতে পারবে এই অপরাধীরা ৷ এরপরেই স্থানীয় আদালতের থেকে মঞ্জুরি নিয়ে ফাঁসির সাজা কার্যকর করতে পারবে ৷

আরও দেখুন

First published: December 17, 2019, 9:39 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर