করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজ্যে বাড়ছে করোনার কোপ, পাল্লা দিয়ে করোনা যুদ্ধে তৈরি স্বাস্থ্য পরিকাঠামো

রাজ্যে বাড়ছে করোনার কোপ, পাল্লা দিয়ে করোনা যুদ্ধে তৈরি স্বাস্থ্য পরিকাঠামো

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ বা আইসিএমআর-এর কাছ থেকে অনুমতি পেলেই কলকাতার এন আর এস, বাঁকুড়া মেডিকেল কলেজের মত অন্যান্য হাসপাতালেও সেই সমস্ত পরীক্ষাগার গুলি করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র হিসেবে কাজ শুরু করবে।

  • Share this:

#কলকাতা: গোটা দেশের সঙ্গে  কলকাতা-সহ এ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তেও চোখ রাঙাচ্ছে করোনা। আর এর সঙ্গে সঙ্গেই করোনা মোকাবিলায় কোমর বেঁধে নামছে স্বাস্থ্য দফতর। বর্তমানে রাজ্যে পনেরোটি করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ১০ এবং বেসরকারি হাসপাতালে ৫ পরীক্ষাকেন্দ্র।  আগামী দিনে আরও ১২ করোনা পরীক্ষাগার করার অনুমতি চাওয়া হয়েছে। এরমধ্যে দশটি সরকারি ও দু’টি বেসরকারি পরীক্ষাগার রয়েছে। পরিকাঠামো প্রস্তুত।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ বা  আইসিএমআর-এর কাছ থেকে  অনুমতি পেলেই কলকাতার এন আর এস,  বাঁকুড়া মেডিকেল কলেজের  মত অন্যান্য  হাসপাতালেও সেই সমস্ত পরীক্ষাগার গুলি করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র হিসেবে কাজ শুরু করবে। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'একমাস আগে যেখানে প্রতিদিন গড়ে ২৫০ জনের পরীক্ষা হত। বর্তমানে সেই টেস্টের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২৫০০। কেন্দ্রের কড়া চিঠি প্রসঙ্গে কোনও  মন্তব্য করতে না চাইলেও কেউ কেউ স্বাস্থ্য পরিকাঠামো নিয়ে যে অপপ্রচার চালাচ্ছেন তা ঠিক নয় বলে মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রসচিব  স্পষ্ট জানান, ' করোনা নিয়ে আমাদের যথেষ্ট নজরদারি ও পরীক্ষা চলছে'।

গোটা দেশের সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এ রাজ্যেও করোনা রোগীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে ।সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে কোনও  রকম ঝুঁকি না নিয়ে একদিকে করোনা হাসপাতলের সংখ্যা বাড়ানো আর অন্যদিকে করোনা পরীক্ষা কেন্দ্রের পরিকাঠামো গড়ে তুলতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য সরকার। নির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে রোগীদের উপসর্গ দেখা দেওয়া এবং নির্দিষ্ট প্রটোকল মোতাবেক চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী রোগীদের করোনা টেস্ট করা হচ্ছে বলে দাবি  স্বাস্থ্য দফতরের । স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে , করোনায়  আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৭২ । করোনা পজিটিভ হলেও 'অন্য' কারণে রোগী মৃত্যুর সংখ্যা ১৪৪ জন। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ১১২ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৪৫৬ জন। বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১০৪৭ জন ।

স্বাস্থ্য দফতরের এক কর্তা জানান, করোনায়  আক্রান্ত হলে তার চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত শয্যা রয়েছে ।এ রাজ্যে ২৭১ টি ভেন্টিলেটর সাপোর্ট সিস্টেম, মোট ৮০৩৬ টি করোনা শয্যা,  ৮৬০ টি আইসিইউ বেড -সহ অন্যান্য  করোনা  চিকিৎসার পরিকাঠামো প্রস্তুত রয়েছে। আগামী দিনে কলকাতার পাশাপাশি বিভিন্ন জেলাতেও করোনা পরীক্ষাগার গড়ে তোলার পাশাপাশি সরকারি এবং বেসরকারি ভাবে আরও বেশ কিছু হাসপাতাল গড়ে তুলে শয্যা বা বেড বৃদ্ধির ভাবনা রয়েছে বলেও জানান ওই স্বাস্থ্য কর্তা।

করোনা উপসর্গের অন্যতম শ্বাসকষ্ট। এখনও পর্যন্ত ভেন্টিলেটরের অভাবে কোনও রোগীর মৃত্যু হয়নি । এ যাবৎ  ৩০ জন রোগীর ক্ষেত্রে ভেন্টিলেটর সাপোর্ট সিস্টেম প্রয়োজন হয়েছে। সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে  যারা সামনে থেকে করোনা রোগীদের সুস্থ করে তোলার কাজ করছেন সেই সমস্ত চিকিৎসক , স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য সাড়ে ষোল লক্ষ পিপিই,  সাড়ে তিয়াত্তর লক্ষ মাস্ক, ৩০ লক্ষ গ্লাভস, কুড়ি লক্ষ N95 মাস্ক সহ অন্যান্য সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে বলে স্বাস্থ্য দফতরের এক কর্তা দাবি করেন। এদিকে কলকাতা সহ  রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে নতুন করে করোনার সংক্রমণ ছড়ানোয় উদ্বিগ্ন রাজ্য সরকার তথা স্বাস্থ্য দফতর। ইতিমধ্যেই রাজ্যে কনটেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত এলাকার সংখ্যা ৫১৬ থেকে বেড়ে হয়েছে ৫৫৫ টি । এরমধ্যে কলকাতার কনটেইনমেন্ট জোন বেড়ে হয়েছে ৩৩৪ টি। উল্লেখযোগ্য কনটেইনমেন্ট জোন  জেলা দক্ষিন ২৪ পরগনা । এখানে  একটি থেকে কনটেইনমেন্ট জোন বেড়ে হয়েছে  ২২ টি।  এই সমস্ত এলাকায় পুলিশ প্রশাসনকে বাড়তি নজরদারি চালানোর নির্দেশ জারি করা হয়েছে নবান্নের  তরফে।

প্রসঙ্গত আজ, বৃহস্পতিবার থেকে  কলকাতা মেডিকেল কলেজ  পূর্ণ সময়ের করোনা হাসপাতাল হিসেবে কাজ করবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকালই  টুইট করে একথা জানিয়েছেন। ৫০০ শয্যার এই হাসপাতলের  সম্পূর্ণ পরিকাঠামো ইতিমধ্যেই প্রস্তুত। রাজ্য সরকার মেডিকেল কলেজকে   সম্পূর্ণ  covid  হাসপাতাল  হিসেবে গড়ে তোলায় করোনা  রোগীদের চিকিৎসা পরিষেবা অনেকটাই গতি পাবে বলে  মনে করছেন চিকিৎসক মহল। মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রের খবর প্রাথমিকভাবে পাঁচশো শয্যার হাসপাতালের  পরিকাঠামো প্রস্তুত থাকলেও প্রয়োজন মোতাবেক শয্যা সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রের খবর , মেডিকেল কলেজে করোনা চিকিৎসার জন্য ৩ হাজার শয্যার পরিকল্পনা রয়েছে।  সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে বৃহস্পতিবার থেকে covid হাসপাতাল হিসেবে গড়ে তোলায় রাজ্যে করোনা  হাসপাতালের  মোট সংখ্যা দাঁড়াল ৬৮ ।

Published by: Pooja Basu
First published: May 7, 2020, 9:34 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर