ভারতের প্রথম সিঙ্গল ডোজ ভ্যাকসিন হতে পারে স্পুটনিক লাইট, অনুমোদনের অপেক্ষা

স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন৷ Photo-Reuters

ডক্টর রেড্ডিজ-এর শীর্ষকর্তার মতে, স্পুটনিক লাইট আসলে স্পুটনিক ভ্যাকসিনেরই প্রথম ডোজ৷ দ্বিতীয় ডোজ নিলে এর কার্যকরিতা ৯১.৬ শতাংশে পৌঁছয়৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  ভারতের প্রথম সিঙ্গল ডোজ করোনার ভ্যাকসিন হতে পারে রাশিয়ার স্পুটনিক লাইট৷ আগামী জুন মাসেই এই টিকার ছাড়পত্রের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে আলোচনা শুরু করতে পারে রাশিয়ার এই টিকা আমদানির দায়িত্বে থাকা সংস্থা ডক্টর রেড্ডিজ৷

    ডক্টর রেড্ডিজ-এর সিইও দীপক সাপরা এনডিটিভি-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, 'এ বিষয়ে আমরা আমাদের রাশিয়ার পার্টনার এবং গামালেয়া ইনস্টিটিউট-এর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে চলেছি৷ রাশিয়ায় স্পুটনিক লাইট ইতিমধ্যেই অনুমোদন পেয়ে গিয়েছে৷ সেখানে এর কার্যকরিতা ৭৯.৪ শতাংশ৷ এটি একটি সিঙ্গল ডোজ ভ্যাকসিন৷'

    ডক্টর রেড্ডিজ-এর শীর্ষকর্তার মতে, স্পুটনিক লাইট আসলে স্পুটনিক ভ্যাকসিনেরই প্রথম ডোজ৷ দ্বিতীয় ডোজ নিলে এর কার্যকরিতা ৯১.৬ শতাংশে পৌঁছয়৷

    তিনি বলেন, 'এই মুহূর্তে আমরা আমাদের রাশিয়ান সহযোগীদের থেকে সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করছি৷ টিকা নেওয়ার ২৮ দিন, ৪২ দিন পর তা কতটা নিরাপদ এবং কার্যকর হচ্ছে, সেই তথ্য আমরা নিয়ে আসছি৷ এ বিষয়ে খুব শিগগিরই দেশের নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে আমাদের আলোচনা হবে৷ আমরা আশা করি স্পুটনিক লাইট ভারতেও ছাড়পত্র পাবে এবং সেক্ষেত্রে দেশে টিকাকরণের ছবিটাই আমূল বদলে যাবে৷ কারণ তখন এই ভ্যাকসিনের একটি ডোজেই ৭৯.৪ শতাংশ কার্যকরিতা পাওয়া সম্ভব হবে৷'

    আপাতত ভারতের ৩৫টি কেন্দ্র থেকে দুই ডোজের স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন সরবরাহ করা হবে৷ ভারতে এই ভ্যাকসিনের একটি ডোজের দাম পড়বে ৯৯৫ টাকা৷ দেশে ডক্টর রেড্ডিজল এই ভ্যাকসিনের উৎপাদন শুরু করলে তা আরও কিছুটা সস্তা হওয়ার কথা৷

    ফাইজার এবং মডার্না ছাড়া স্পুটনিক ভি-ই একমাত্র ভ্যাকসিন যাতে ৯১ শতাংশের উপরে কার্যকরিতা প্রমাণিত হয়েছে৷ ২১ দিনের ব্যবধানে ভ্যাকসিনের দু'টি ডোজ নিলে এই কার্যকরিতা প্রমাণিত হয়েছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: