করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফের লকডাউনের পথে মিরিক! আপাতত ১ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ বাজার-দোকানপাট, স্তব্ধ গণপরিবহন

ফের লকডাউনের পথে মিরিক! আপাতত ১ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ বাজার-দোকানপাট, স্তব্ধ গণপরিবহন
ফাইল ছবি

শিলিগুড়িতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় উদ্বিগ্ন মিরিক মহকুমা প্রশাসন । আর তাই টানা এক সপ্তাহ লকডাউনের পথকেই বেছে নিয়েছেন তাঁরা ।

  • Share this:

#মিরিক: ফের লকডাউনের পথে মিরিক ! আগামী ১ জুলাই পর্যন্ত সবই বন্ধ থাকবে মিরিক পাহাড়ে । চলবে না গাড়ি । বন্ধ থাকবে বাজার , দোকানপাট । আজ মিরিকের মহকুমা শাসক অশ্বিনী রায় বৈঠকে বসেন পুরসভার চেয়ারম্যান , ব্যবসায়ী সংগঠন , গাড়ি চালকদের সংগঠনের সদস্যদের নিয়ে । সেখানেই ঠিক হয়েছে টানা ৭ দিন লকডাউন থাকবে ।

কেন এই সিদ্ধান্ত ?  মূলত মিরিক মহকুমার বাসিন্দারা পণ্য সামগ্রীর জন্য শিলিগুড়ির ওপর নির্ভরশীল । শিলিগুড়িতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে । প্রতিদিনই কয়েকশো মিরিকবাসী নেমে আসেন সমতলে । আবার দিনের শেষে ফিরে যান । শিলিগুড়িতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় উদ্বিগ্ন মিরিক মহকুমা প্রশাসন । আর তাই টানা এক সপ্তাহ লকডাউনের পথকেই বেছে নিয়েছেন তাঁরা । এমনকী খুব প্রয়োজন ছাড়া শিলিগুড়িতে আনাগোনায় 'না' করে দিয়েছে প্রশাসন । আবার কেউ যদি শিলিগুড়ি ঘুরে এসে এলাকায় ঘুরে বেড়ায় , সেক্ষেত্রে তাঁদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মহকুমা শাসক । সেই সব বাসিন্দাকে বাধ্যতামূলক  হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে ।

আপাতত ঠিক হয়েছে ২ জুলাই বাজারঘাট খোলা হবে । এ দিকে , আজ নতুন করে মিরিকে চার আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে । চারজনই স্বাস্থ্যকর্মী । মিরিক ব্লক হাসপাতালের এক চিকিৎসক এবং দুই নার্সের রিপোর্ট পজিটিভ আসছে । আক্রান্ত আরও এক স্বাস্থ্য । বৃহস্পতিবার তাঁদের শিলিগুড়িতে নামিয়ে আনা হয়েছে । ভর্তি করা হয়েছে কোভিড স্পেশ্যাল হাসপাতালে । প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে, মিরিকের এক অ্যাম্বুলেন্স চালক করোনা আক্রান্ত । বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন । তাঁর সংস্পর্ষে এসেছিলেন এই চার স্বাস্থ্যকর্মী ।

আক্রান্তের হদিশ মিলতেই এ দিন দ্রুত ব্লক হাসপাতাল স্যানিটাইজ করা হয় । হাসপাতালের চারপাশেও স্যানিটাইজ করা হয় । আক্রান্তদের বাড়ি ও সংলগ্ন এলাকাও স্যানিটাইজ করে দমকলকর্মীরা । মহকুমা শাসক জানান, আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই । তবে সতর্ক থাকতে হবে । মানতে হবে কোভিড প্রোটোকল ।

Partha Sarkar

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 25, 2020, 6:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर