২৮ মে পর্যন্ত থাকুন আরও সাবধানে, করোনা আতঙ্ক থেকে মুক্তি কবে ? জানাচ্ছেন জ্যোতিষীরা

NRCE-এর ওই কর্তা বলেন, 'এই মুহূর্তে দেশে বিভিন্ন ধরনের ওষুধ তৈরির ক্ষেত্রে ভেষজ গাছের ব্যবহার করা হচ্ছে৷ যদি করোনাকে শেষ করার জন্য এই ভেষজ গাছগুলি কাজে লাগে, তাহলে তা শুধু ভারত নয় গোটা বিশ্বের জন্যই একটি বড় খবর হবে৷'

দেখে নিন জ্যোতিষী সন্ত বেত্রা অশোকের করোনা নিয়ে কী ভবিষ্যদ্বাণী ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: সূত্র মিলছে না! দেশে করোনা ভাইরাসের গতিবিধির নিরিখে এই উপলব্ধি জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের একাংশের। তাঁদের মতে, অঙ্কের মতো বাঁধাধরা নিয়মে চলে না এই ভাইরাস। বরং এই নতুন শত্রু বেশ রহস্যময়। তার চালচলনে ধাঁধা-ধোঁয়াশা অনেক।

    এই মারণ ভাইরাস থেকে মুক্তি কবে ? লকডাউন উঠে যাওয়ার পরই কি সব দ্রুত ঠিক হয়ে যাবে ? বাড়ির বাইরে বের হওয়াটা কতটা নিরাপদ হবে এখন ? এমন অনেক প্রশ্নই এখন সবার মনে উঠছে ৷ জ্যোতিষশাস্ত্রের মতে, করোনা ভোগান্তি এখনও বেশ কয়েকদিন অপেক্ষা করছে ৷ আরও কয়েক মাস প্রত্যেককেই থাকতে হবে সাবধানে ৷ ভ্যাকসিন হয়তো এ বছরই আসবে ৷ তবে তা বাজারে আসতে সময় লাগবে ৷ আগামী ২১ জুনের সূর্যগ্রহণের প্রভাবও মানবজাতির উপর পড়বে ৷ দেখে নিন জ্যোতিষী সন্ত বেত্রা অশোকের করোনা নিয়ে কী ভবিষ্যদ্বাণী ৷

    আক্রান্তের সরাসরি সংযোগে বা কাছাকাছি এলে করোনাভাইরাস অন্যের দেহে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকে। ইনফ্লুয়েঞ্জা বা অন্যান্য শ্বাসনালি সংক্রমণের ভাইরাস বা ব্যাক্টেরিয়ার মতো এই ভাইরাস হাঁচি-কাশির মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। সেই সূত্রে ভাইরাসের গতিবিধি নিয়ে বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর মিলছে না বলে জানাচ্ছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞেরা।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: