Home /News /business /
New Business Idea: সামনেই রয়েছে ধনী হওয়ার সুযোগ! দামি এই মশলার চাষ করেই প্রতি মাসে আয় হবে লক্ষ লক্ষ টাকা!

New Business Idea: সামনেই রয়েছে ধনী হওয়ার সুযোগ! দামি এই মশলার চাষ করেই প্রতি মাসে আয় হবে লক্ষ লক্ষ টাকা!

New Business Idea: কৃষিতে বিপুল লাভের দিকে তাকিয়ে শিক্ষিত তরুণদের এখন জাফরান (Saffron) চাষের দিকেই ঝোঁক বাড়ছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: খাবারে নবাবিয়ানা আনতে কেসর বা জাফরানের জুড়ি মেলা! অত্যন্ত দামি এই মশলা খাবারের স্বাদ, সুগন্ধ এবং রঙ কয়েক দিন বাড়িয়ে দিতে পারে। তবে জাফরানের কথা উঠলেই মনে পড়ে জম্মু-কাশ্মীরের কথা। কারণ ঐতিহ্যগত ভাবে এই রাজ্যেই চাষ করা হয় জাফরান (Saffron Cultivation)। কিন্তু এখন এই ধারণা পাল্টানোর সময় এসে গিয়েছে। বর্তমানে উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানা, রাজস্থান-সহ বহু রাজ্যেই এই মহার্ঘ্য মশলার চাষ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: LIC স্টকে অ্যাঙ্কর বিনিয়োগকারীদের জন্য শেষ হচ্ছে লক ইন পিরিয়ড, বিরাট ক্ষতি!

আসলে জাফরান এতটাই দামি যে, মানুষ একে লাল সোনা বলেই জানে। ভারতে এর বর্তমান দাম কেজি প্রতি আড়াই লক্ষ থেকে ৩ লক্ষ টাকা। ফলে কৃষিতে বিপুল লাভের দিকে তাকিয়ে শিক্ষিত তরুণদের এখন জাফরান (Saffron) চাষের দিকেই ঝোঁক বাড়ছে। তাই কেউ যদি ব্যবসা শুরু করতে চান, তাহলে জাফরান চাষ করার কথা ভাবতেই পারেন। আয় হবে লাখ লাখ টাকা!

আর এই চাষের ক্ষেত্রে প্রথমেই মাথায় রাখতে হবে যে, জাফরান চাষের ক্ষেত্রে আয়টা নির্ভর করবে এর চাহিদার উপরেই। শুধু আমাদের দেশেই নয়, বিদেশেও জাফরানের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। এটি বিশ্বের অন্যতম দামি মশলা হিসেবে গণ্য হয়।

আরও পড়ুন: ওয়ার্ক ফ্রম হোম কি থেকেই যাচ্ছে আপাতত? কী বলছে আইটি সংস্থাগুলো?

জাফরান চাষের উপযুক্ত ঋতু:

জাফরান চাষ করার ক্ষেত্রে উপযুক্ত পরিবেশ এবং উপযুক্ত সময়ের কথা মাথায় রাখা জরুরি। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৩০০০ মিটার উচ্চতায় জাফরান চাষ করা সম্ভব। আর এমন জমি বেছে নিতে হবে যেখানে জল জমতে পারে না। জাফরান চাষের জন্য আবহাওয়া গরম থাকা অত্যন্ত জরুরি। বোঝাই যাচ্ছে যে, শীতকাল এবং বর্ষাকাল জাফরান চাষের জন্য একেবারেই উপযুক্ত নয়। একই সঙ্গে জাফরান চাষের জন্য বেলে মাটি অথবা দো-আঁশ মাটি আদর্শ। আর ব্যবহার করতে হবে ১০ ভালভ বীজ, যার দাম প্রায় ৫৫০ টাকার কাছাকাছি।

আরও পড়ুন: সর্বকালে সর্বনিম্নে এসে ঠেকল টাকার দাম, কিন্তু কেন?

এই চাষের মাধ্যমে কত টাকা উপার্জন করা যায়?

জাফরান চাষ করে প্রচুর মুনাফা অর্জন করা যেতে পারে। প্রতি মাসে যদি ২ কেজি জাফরানও বিক্রি করা যায়, তাহলে ৬ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় হতে পারে। জাফরান ভালো ভাবে প্যাকিং করে আশে-পাশের কোনও বাজারে ভালো দরে বিক্রি করা যায়। শুধু তা-ই নয়, অনলাইনেও জাফরান বিক্রি করা সম্ভব। বিশেষজ্ঞদের মতে, জাফরান চাষ শুরু করার জন্য জুন, জুলাই, অগাস্ট এবং সেপ্টেম্বর মাসই আদর্শ সময়। কারণ জাফরান গাছ অক্টোবরে ফুল দিতে শুরু করে। উচ্চ পাহাড়ি এলাকায় জাফরান রোপণের উপযুক্ত সময় হল জুলাই থেকে অগাস্ট মাস, সেখানে সমভূমিতে জাফরান বীজ রোপণের জন্য ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাসই আদর্শ সময়।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: New Business Idea, Saffron Business

পরবর্তী খবর