• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • চাকরি ছেড়ে ব্যবসায় নামতে চান? এই ব্যবসায় পা রাখলে প্রথম মাস থেকেই ১ লক্ষ টাকার বেশি আয় করা যায়!

চাকরি ছেড়ে ব্যবসায় নামতে চান? এই ব্যবসায় পা রাখলে প্রথম মাস থেকেই ১ লক্ষ টাকার বেশি আয় করা যায়!

স্ট্রবেরি চাষ একধরনের আধুনিক চাষ এবং এতে খুব কম খরচের প্রয়োজন হয়। এই চাষের জন্য কম সেচ কার্যের প্রয়োজন হয়।

স্ট্রবেরি চাষ একধরনের আধুনিক চাষ এবং এতে খুব কম খরচের প্রয়োজন হয়। এই চাষের জন্য কম সেচ কার্যের প্রয়োজন হয়।

স্ট্রবেরি চাষ একধরনের আধুনিক চাষ এবং এতে খুব কম খরচের প্রয়োজন হয়। এই চাষের জন্য কম সেচ কার্যের প্রয়োজন হয়।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই রয়েছে যারা প্রতিদিনের ৯টা থেকে ৫টার চাকরি নিয়ে বিরক্ত এবং কাজ ছেড়ে নিজের ব্যবসা খোলার কথা ভাবেন। কিন্তু লাভ, লোকসানের অঙ্ক হিসেবে করতে বসলেই বেঁধে যায় গোলমাল। আরও চিন্তার বিষয় হল কী ধরনের ব্যবসায় নামলে রিস্ক ফ্যাক্টর একদমই কম থাকবে? এই প্রশ্নের উত্তর হল স্ট্রবেরি চাষ (Strawberry Cultivation)।

আরও পড়ুন: ৪০,০০০ টাকা দিয়ে শুরু করুন এই ব্যবসা, ৬ মাসে আয় করবেন ১০ লক্ষ টাকা!

এই ফলের চাষ করে লক্ষেরও বেশি মুনাফা আয় করা যায়। শুধুমাত্র এক একর জমি থাকলেই এই ব্যবসায় নিঃসন্দেহে বিনিয়োগ করা যায়। বর্তমানের প্রযুক্তির দুনিয়ায় অনেকে কৃষকই পুরনো একই ধরনের চাষবাস ছেড়ে বিভিন্ন ধরণের নতুন জিনিস চাষের ব্যবসা (Farming business) করছে। অনেক উচ্চশিক্ষিত যুবকরাও চাষবাস করে মাসিক ১-২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করছে। এই কারণেই অনেকেই ইঞ্জিনিয়ারিং এবং বিজনেস ম্যানেজমেন্ট (MBA) করার পর চাকরি খোঁজ করে সময় নষ্ট না করে চাষবাসে উদ্যোগী হয়।

মার্কেটে স্ট্রবেরির চাহিদা কেমন?

স্ট্রবেরি চাষ একধরনের আধুনিক চাষ এবং এতে খুব কম খরচের প্রয়োজন হয়। এই চাষের জন্য কম সেচ কার্যের প্রয়োজন হয়। কৃষি বিশেষজ্ঞদের মতে, স্ট্রবেরি একটি ঔষধি ফল। স্ট্রবেরিতে ভিটামিন C, ভিটামিন A এবং ভিটামিন K সহ প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এবং মিনারেল থাকে যা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধির পাশাপাশি এটি দাঁতের উজ্জ্বলতা বাড়াতেও সাহায্য করে। এছাড়া, জেলি, আইসক্রিম সহ একাধিক মিষ্টি জাতীয় খাবার বানানোর জন্য স্ট্রবেরির ব্যবহার করা হয়। এই ফলের উৎপাদন কম এবং চাহিদা বেশি হওয়ায় স্ট্রবেরির বাজার মূল্য খুব বেশি হয়।

আরও পড়ুন: আরও উন্নত দেশের রাস্তাঘাট, ঝাড়খণ্ডের সড়ক নির্মাণের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার বিনিয়োগ করবে প্রায় ১ লাখ কোটি টাকা!

কী ভাবে স্ট্রবেরি চাষ করা হয়?

নৈনিতাল, দেরাদুন, হিমাচল প্রদেশ, মহাবালেশ্বর, মহারাষ্ট্র, নীলগিরি, দার্জিলিং-এর মতো কয়েকটি পাহাড়ি অঞ্চলে স্ট্রবেরি বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন করা হয়। স্ট্রবেরি চাষের জন্য সাধারণত বেলে মাটি বা দোআঁশ মাটির প্রয়োজন হয়। এই গাছের চারা লাগানোর সঠিক সময় হল ১০ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ অক্টোবর। স্ট্রবেরি চাষ করার সময় তাপমাত্র ৩০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের বেশি হওয়া যাবে না। এই কারণেই সাধারণত শীতকালে এই ফলের চাষ করা হয়। এক একর জমিয়ে দিয়ে চাষবাস শুরু করা যেতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, শীতল আবহাওয়ার ফসল স্ট্রবেরি চাষের সবচেয়ে ভালো পদ্ধতি হল পলি হাউজ প্রযুক্তি। যদিও, ফসল সুরক্ষিত রাখতে রোদ এবং তুষার ঝড় থেকে বাঁচাতে পলি টানেল পদ্ধতিও অবলম্বন করা যেতে পারে।

চাষের জন্য চারাগাছ কোথা থেকে কিনতে হবে?কী ভাবে এর বিপণন হবে?

কেএফ বায়োপ্ল্যান্টস প্রাইভেট লিমিটেড পুণে থেকে চারাগাছ কেনা যেতে পারে। হিমাচল প্রদেশ থেকেও কেনা যাবে। এটি বিক্রি করা খুব সহজ, কারণ এর চাহিদা বেশি এবং সরবরাহ কম। বাজারে এটি সহজেই ৩০০ থেকে ৬০০ টাকায় বিক্রি হয়। ফসল ফলার সঙ্গে সঙ্গেই এর ক্রেতা পাওয়া যাবে, এমনকী অগ্রিম বুকিংও নিতে পারবেন ব্যবসার মালিক। খরচ যই হোক না কেন, সহজেই সেই খরচের ৩ গুণ মুনাফা উঠে আসবে।

আরও পড়ুন: আরও বাড়ল পেট্রোল-ডিজেলর দাম ? এই ভাবে মোবাইলে চেক করে নিন তেলের লেটেস্ট দাম....

মিলবে সরকারি অনুদান

বিভিন্ন রাজ্যের উদ্যান ও কৃষি বিভাগ থেকে স্ট্রবেরি চাষে অনুদানও দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে প্লাস্টিক মালচিং, ড্রিপ ইরিগেশন, স্প্রিংকলার সেচ ইত্যাদিতে ৪০% থেকে ৫০% ভর্তুকিও পাওয়া যায়। রাজ্য অনুযায়ী কৃষি বিভাগের সাহায্য নেওয়া যাবে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: