Home /News /business /
Mutual Fund: ভুল মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করেছেন? বিশেষজ্ঞরা জানালেন ফাঁদ কেটে বেরোনোর উপায়!

Mutual Fund: ভুল মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করেছেন? বিশেষজ্ঞরা জানালেন ফাঁদ কেটে বেরোনোর উপায়!

প্রতীকী ছবি ৷

প্রতীকী ছবি ৷

Mutual Fund: অনেকেই ‘ঠিক আছে বিনিযোগ চালিয়ে যাই’ না কি ‘পুরোটাই তুলে নিই’ এই দ্বিধায় ভুগতে থাকেন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ভাল রিটার্ন পেতে যারা ঝুঁকি নিতে পিছ-পা হন না, তাদের জন্য রয়েছে মিউচুয়াল ফান্ড। কিন্তু অনেক সময়ই ভুল ফান্ডে বিনিয়োগ করা হয়ে যায়। যা বিনিয়োগকারীর কোনও উদ্দেশ্যে পূরণ তো করেই না উল্টে আর্থিক দূরবস্থার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এবার সেই সব মিউচুয়াল ফান্ডগুলো থেকে বিনিয়োগ সরিয়ে নেওয়াটাও একটা চ্যালেঞ্জ। অনেকেই ‘ঠিক আছে বিনিযোগ চালিয়ে যাই’ না কি ‘পুরোটাই তুলে নিই’ এই দ্বিধায় ভুগতে থাকেন।

আরও পড়ুন:  Health Insurance: কষ্টের টাকা বাঁচাতে চাইলে স্বাস্থ্য বিমা করান, তবে খেয়াল রাখুন এই বিষয়গুলো

স্বাতী আনন্দের (নাম পরিবর্তিত) অবস্থা এমনই হয়েছিল। তিনি বলছেন, ‘কয়েক বছর আগে বন্ধুদের কথা শুনে কয়েকটা মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করেছিলাম। ওরা বলেছিল, এই সব মিউচুয়াল ফান্ডে এসআইপি-র মাধ্যমে বিনিয়োগ করলে দুর্দান্ত রিটার্ন মিলবে। কিন্তু পুরো ডুবে যাই। এমন কুকি-কাটার বিনিয়োগ ধ্বংসই ডেকে আনে। তারপর থেকে আর কখনও মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের ফাঁদে পা দিইনি। কারণ আমার মনে হয় খুচরো বিনিয়োগকারীদের জালে ফাঁসাতেই এরা মিষ্টি মিষ্টি কথা বলে’।

এখন দোষটা মিউচুয়াল ফান্ডের না কি ভুল ফান্ডে বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের, সেই বিচার কে করবে! তবে প্রতিদিন মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ বাড়ছে। সবচেয়ে বেশি এগিয়ে আসছে যুবসমাজ। তবে সিদ্ধান্ত ভুল হলে বিপর্যয় অবশ্যম্ভাবী সেটা মাথায় রাখতে হবে।

আরও  পড়ুন :  Mutual Fund Investment: মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করবেন? দুর্দান্ত রিটার্ন দিচ্ছে এই ৫ ফান্ড, দেখে নিন বিস্তারিত!

ভুল মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করে ফেললে বাঁচার উপায়: অ্যাক্সিফম ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসের সিইও দীপক ছাবরিয়া বলছেন, ‘ভুল ফান্ড নির্বাচন হলে যত তাড়াতড়ি বিনিয়োগ প্রত্যাহার করা হবে তত ভালো। অল্প লাভ বা ক্ষতি মেনে নিয়ে ভালো ফান্ডের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। অনেক সময় কী করা উচিত, সেই সিদ্ধান্ত নিতে দেরি হয়। এতে শুধু ক্ষতির পরিমাণ বাড়ে, সুযোগ নষ্ট হয়। যদি মনে হয় উপযুক্ত পণ্যটা ঋণ তহবিল হওয়া উচিত ছিল কিন্তু লোভের বশে সেটা ইকুইটিতে বিনিয়োগের দিকে চলে গেছে তাহলে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে বাজার পুনরুজ্জীবিত হওয়ার জন্য অপেক্ষা করার মতো বেদনাদায়ক আর কিছু হতে পারে না। কিছু ক্ষেত্রে সামান্য ক্ষতি মেনে নিয়ে তার সংশোধন করে নেওয়াই ভালো’।

যে জিনিসগুলো মাথায় রাখতে হবে:

১। ভুল বিনিয়োগ থেকে বেরিয়ে আসা এবং বিনিয়োগের জন্য উপযুক্ত পণ্য খুঁজে বের করার মধ্যবর্তী সময়ে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে নিজের লক্ষ্যটাকে আরও একবার ঝালিয়ে নিতে হবে।

২। ভুল মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের কারণে যদি বড়সড় ক্ষতি হয় তাহলে যত চাপই থাক আর্থিক উপদেষ্টার সাহায্য নিতে দ্বিধা করলে চলবে না।

৩। বিনিয়োগ চালিয়ে যাওয়া উচিত নাকি একেবারে পুরোটা প্রত্যাহার করা ঠিক হবে, এই দ্বিধা খুব সাধারণ।

৪। ভুল ফান্ড নির্বাচন হলে যত তাড়াতাড়ি প্রত্যাহার করা হবে তত ভালো। অল্প লাভ বা ক্ষতি মেনে নিয়ে ভালো ফান্ডের সন্ধান করতে হবে। সিদ্ধান্ত গ্রহণে সময় নষ্ট করা উচিত নয়। এতে ক্ষতির পরিমাণ বাড়বে, সুযোগও নষ্ট হবে।

৫। এক্সিট লোডের মেয়াদ শেষ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করা দীর্ঘমেয়াদি হোল্ডিং পিরিয়ড আঁকড়ে বসে থাকলে হিতে বিপরীত হতে পারে।

Published by:Arjun Neogi
First published:

Tags: Mutual Fund

পরবর্তী খবর