Home /News /business /
Indian Railways: চা, ব্রেকফাস্ট থেকে মধ্যাহ্নভোজ, অর্ডার দিলেই যাত্রীরা পাবেন নতুন উপহার! ভারতীয় রেলের বড় অফার!

Indian Railways: চা, ব্রেকফাস্ট থেকে মধ্যাহ্নভোজ, অর্ডার দিলেই যাত্রীরা পাবেন নতুন উপহার! ভারতীয় রেলের বড় অফার!

Indian Railways IRCTC Food

Indian Railways IRCTC Food

Indian Railways: ভারতীয় রেলের যাত্রীদের জন্য সুখবর। রেল সফরে IRCTC-এর খাওয়ার সংক্রান্ত নতুন গাইডলাইনে দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু চমকপ্রদ সুবিধে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি : ভারতীয় রেলের যাত্রীদের জন্য সুখবর। রেল সফরে IRCTC-এর খাওয়ার সংক্রান্ত নতুন গাইডলাইনে দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু চমকপ্রদ সুবিধে। এই গাইডলাইনে বলা হয়েছে যদি কোনও গ্রাহক টিকিট বুক করার সময় খাওয়ার সার্ভিস বুক না করে এবং ট্রেনে ওঠার পর সরাসরি খাবার অর্ডার করেন তাহলে টিকিট বুকিংয়ের সময় খাওয়ার বুকিংয়ের জন্য যত টাকা দিতে হতো তার থেকে ডবল টাকা দিতে হবে।

    ভারতের স্বচ্ছন্দে যাত্রী চলাচলে বিশেষত দূর-যাত্রায় ভারতীয় রেলওয়ে (Indian railways) যাতায়াতের একটি অন্যতম প্রধান মাধ্যম। রেল পরিষেবার কারণেই অনেক মানুষ একসঙ্গে অনেক দূরত্ব অতিক্রম করতে সক্ষম হন। ভারতীয় রেল ব্যবস্থায় ট্রেনে ভ্রমণ করা সুবিধাজনক এবং আরামদায়ক হয়। ভারতীয় রেল (Indian railways)বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম রেলওয়ে নেটওয়ার্ক। ভারতে ১৯ শতকে প্রথম ট্রেন চালু হয়েছিল। ভারতীয় রেলের এই নেটওয়ার্কটি প্রায় ১,১৫,০০০ কিমি জুড়ে বিস্তৃত রয়েছে এবং এই রেলওয়ে নেটওয়ার্কে প্রায় ৭৩৪৯ টি স্টেশন রয়েছে। এই স্টেশন গুলি থেকে প্রায় ২০০০০ এর বেশি যাত্রীবাহী ট্রেন ও ৭০০০ এর বেশি পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল করে।

    আরও পড়ুন : Shaadi.com-এ সবচেয়ে বেশি সার্চ করা কী ওয়ার্ড কী…? না, আইএএস বা আইপিএস কিন্তু নয়!

    এছাড়া ট্রেনে যাতায়াত করা এখন অনেক কম খরচে হয়ে যায় অন্যান্য ট্রান্সপোর্টের তুলনায়। শুধু তাই নয়, ট্রেনে কম খরচে যাতায়াতের সঙ্গে সঙ্গে কম খরচে খাওয়া-দাওয়ার সুবিধাও রয়েছে। আর বিশেষ করে এখন ট্রেনে লাঞ্চ-ডিনারের পরিষেবা আরও বেশি উন্নত ও ভালো হয়েছে। যদি কোনও গ্রাহকের যাত্রা করার সময় চা খাওয়ার বা খাবার খাওয়ার ইচ্ছা করে তবে সেই প্যাসেঞ্জার প্যান্ট্রি থেকে সহজেই অর্ডার করে খেতে পারেন। এই বিষয় নিয়ে ভারতীয় রেলওয়ে একটি গাইডলাইন জারি করেছে। এর অধীনে বলা হয়েছে প্যাসেঞ্জার কম টাকায় চা, প্রাতরাশ ও মধ্যাহ্নভোজ ও নৈশভোজের সুবিধা পেতে পারবে। আসুন ভারতীয় রেলের এই গাইডলাইন বিস্তারিত জেনে নিই।

    IRCTC-এর এই সংক্রান্ত নতুন গাইডলাইনে বলা হয়েছে যদি কোনও গ্রাহক টিকিট বুক করার সময় ফুড সার্ভিস বুক না করেন এবং ট্রেনে ওঠার পর সরাসরি অর্ডার করেন প্যান্ট্রি থেকে তাহলে টিকিট বুকিংয়ের সময় খাওয়ার বুকিংয়ের জন্য যত টাকা দিতে হত তার থেকে ডবল টাকা দিতে হবে। অর্থাৎ আপনি যদি রাজধানী বা শতাব্দীর টিকিট বুক করার সময় শুধু ব্রেকফাস্ট খাওয়ার খেতে চান তবে শুধুমাত্র ১০৫ টাকা পেমেন্ট করতে হবে। কিন্তু আপনি যদি টিকিট বুক করার সময় খাওয়ার বুক না করেন এবং ট্রেনে উঠে তারপর সরাসরি খাওয়ার নেন তবে আপনাকে ১৫৫ টাকা পেমেন্ট করতে হবে। আর এই সুবিধা আপনি 2AC/3A/CC কোচে পাবেন।

    শতাব্দী-রাজধানী ও বন্দে ভারত ট্রেনে টিকিটের সঙ্গে খাওয়ারের টাকা যুক্ত করে টিকিট কাটলে কম খরচ হয়। কিন্তু ট্রেনে উঠে ডায়রেক্ট খাওয়ার অর্ডার করলে খাওয়ারের পিছনে বেশি খরচ হবে। শতাব্দী-রাজধানী ট্রেনে আগে চা ২০ টাকা করে পাওয়া যেত এখনও সেই দামের পরিবর্তন ঘটেনি। কেউ যদি এই দুটি ট্রেনে ডিনার ও লাঞ্চ সমেত টিকিট বুক করে তবে খরচ হয় ১৮৫ টাকা। কিন্তু কেউ ট্রেনে উঠে খাওয়ার অর্ডার করলে খরচ হবে অনেকটাই বেশি, ২৩৫ টাকা।

    আরও পড়ুন : ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টি, পুবালি হাওয়া! টন টন ইলিশ ঢুকছে কলকাতার বাজারে! দর কেমন? দেখে নিন

    শতাব্দী-রাজধানী দুরন্ত এক্সপ্রেসের স্লিপার ক্লাসের যাত্রীদের জন্য একটি তালিকা জারি করা হয়েছে। দুরন্ত এক্সপ্রেসে ট্রাভেল করা যাত্রীরা যদি টিকিট বুকিংয়ের সময় খাবার বুকিং না করে তবে ট্রেনে উঠে ডায়রেক্ট অর্ডার করলে যাত্রীদের ১১৫ টাকা পেমেন্ট করতে হয়। আর লাঞ্চ ও ডিনারের জন্য 2AC/3A বা CC-তে যাত্রা করা দুরন্ত যাত্রীদের ১২০ টাকার জায়গায় ১৭০ টাকা দিতে হবে। সুতরাং টিকিট বুকিং-এর সময় খাওয়ারের অর্ডার দিলেই যাত্রীরা পাবেন বিশেষ সুবিধে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published:

    Tags: Indian Railways, IRCTC

    পরবর্তী খবর