Home /News /business /
LIC IPO: এলআইসি আইপিও-র শেষ দিনে গ্রে-মার্কেটের সূচক কোন দিকে? জানুন বিশদে

LIC IPO: এলআইসি আইপিও-র শেষ দিনে গ্রে-মার্কেটের সূচক কোন দিকে? জানুন বিশদে

LIC IPO: ৫ দিনের বিডিংয়ের পর, এলআইসি আইপিও-র সাবস্ক্রিপশন স্ট্যাটাস বলছে, পাবলিক ইস্যু ১.৭৮ গুণ সাবস্ক্রাইব করা হয়েছে, সেখানে রিটেল-এর দিকটা সাবস্ক্রাইব করা হয়েছে ১.৫৯ গুণ।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আইপিও (Initial Public Offering)-এর মাধ্যমে স্টক মার্কেটে দেশের সবচেয়ে বড় বিমা কোম্পানি লাইফ ইনস্যুরেন্স কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার (LIC) লিস্টিং প্রক্রিয়া ৪ মে শুরু হয়েছে। ৫ দিন ধরে খোলা থাকার পর আজ অর্থাৎ ৯ মে-তে বিনিয়োগকারীদের জন্য বন্ধ হয়ে যাচ্ছে আইপিও (LIC IPO)। ৫ দিনের বিডিংয়ের পর, এলআইসি আইপিও-র সাবস্ক্রিপশন স্ট্যাটাস বলছে, পাবলিক ইস্যু ১.৭৮ গুণ সাবস্ক্রাইব করা হয়েছে, সেখানে রিটেল-এর দিকটা সাবস্ক্রাইব করা হয়েছে ১.৫৯ গুণ। পলিসিহোল্ডার বিভাগে ৫.০৪ গুণ সাবস্ক্রাইব এবং কোম্পানির কর্মচারী বা এমপ্লয়ী বিভাগে ৩.৭৫ গুণ সাবস্ক্রাইব করা হয়েছে এলআইসি আইপিও।

যদিও শেয়ার বাজারের ওঠা-নামার কারণে গ্রে-মার্কেটে এলআইসি স্টকের দাম নিচে নেমে গিয়েছে। মার্কেট পর্যবেক্ষকদের মতে, আজ এলআইসি-এর শেয়ার গ্রে-মার্কেটে ৩৬ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। গ্রে-মার্কেটের শেয়ারের দামকে ‘গ্রে মার্কেট প্রিমিয়াম’ বা জিএমপি (GMP) বলা হয়।

আরও পড়ুন- দুঃখ হয়, রবীন্দ্রনাথের নোবেল প্রাইজ এখনও উদ্ধার হল না, বললেন মমতা

এলআইসি আইপিও জিএমপি?

শেয়ার মার্কেট পর্যবেক্ষকরা জানিয়েছেন যে, আজ এলআইসি আইপিও-র জিএমপি হল ৩৬ টাকা। যা গত কালের তুলনায় ২৪ টাকা কম। গত কাল জিএমপি ছিল ৬০ টাকা। এক সময় জিএমপি ৯২ টাকায় পৌঁছেছিল, কিন্তু তার পর বাজারের ওঠা-নামার কারণে এই মূল্য দ্রুত গতিতে নিচে নামতে শুরু করে। বিশ্ব বাজারে একই রকমের ট্রেন্ড চলছে এবং ভারতীয় স্টক মার্কেট তার প্রভাব থেকে সুরক্ষিত নয়।

গ্রে মার্কেট প্রিমিয়াম বা জিএমপি (GMP) কী?

পর্যবেক্ষকদের বক্তব্য অনুযায়ী, এলআইসি আইপিও-র জিএমপি ৩৬ টাকা হওয়ার অর্থ হল গ্রে-মার্কেটে এলআইসি আইপিও-র প্রিমিয়াম ৯৮৫ টাকা স্তরে (৯৪৯+৩৬) নথিভুক্ত হবে। এই মূল্য এলআইসি আইপিও-র প্রত্যেক ইক্যুইটি শেয়ারের মূল্যের তুলনায় ৩ শতাংশ বেশি। এলআইসি-র ইক্যুইটি শেয়ার মূল্য ৯০২ টাকা থেকে ৯৪৯ টাকা।

আরও পড়ুন - মায়ের মৃত্যু ভারতে, মেয়েরা ছিলেন বাংলাদেশে! সীমান্তে কী কাণ্ড ঘটল শুনলে অবাক হবেন

গ্রে-মার্কেটের পরিসংখ্যান কোনও সরকারি তথ্য নয়। এটি আনঅফিসিয়াল তথ্য, যার সঙ্গে এলআইসি কোম্পানির আর্থিক বিষয়ের কোনও সম্পর্ক নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে, গ্রে-মার্কেটের পরিসংখ্যান না-দেখে বিনিয়োগকারীদের এলআইসি কোম্পানির ব্যালেন্স শিট ভালো ভাবে পর্যবেক্ষণ করা উচিত।

এলআইসি কোম্পানির শেয়ার আগামী ১৭ মে স্টক এক্সচেঞ্জে নথিভুক্ত করা হবে। এর আগে বিডাররা জানতে পারবেন তাঁদের নামে শেয়ার বরাদ্দ করা হয়েছে কি না। আর শেয়ার বা স্টক বরাদ্দ না-হলে বিনিয়োগকারীর টাকা তাঁর অ্যাকাউন্টে ফেরত দেওয়া হবে।

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: LIC IPO

পরবর্তী খবর